• শুক্রবার   ২৮ জানুয়ারি ২০২২ ||

  • মাঘ ১৫ ১৪২৮

  • || ২৩ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

সর্বশেষ:
টোঙ্গায় আবারও শক্তিশালী ভূমিকম্প টি-টোয়েন্টি থেকে ৬ মাসের বিরতি নিলেন তামিম শাবিতে অবরোধ তুলে নিলেন শিক্ষার্থীরা, খুলেছে অফিস শাবি ভিসিকে সরানো হবে কিনা আচার্যের বিষয়: শিক্ষামন্ত্রী দোয়ারাবাজারে স্বতন্ত্র প্রার্থী তানভীর আশরাফীর জয়
১৭

বার্সায় বিলম্বিত হচ্ছে আলভেসের দ্বিতীয় অভিষেক

সিলেট সমাচার

প্রকাশিত: ১ ডিসেম্বর ২০২১  

বার্সেলোনায় বিলম্বিত হচ্ছে দানি আলভেসের দ্বিতীয় অভিষেক। জানা গেছে, আগামী জানুয়ারিতে খেলতে পারেন তিনি।

এ বছরের ১২ নভেম্বর দানি আলভেসকে ফেরানোর কথা জানায় বার্সা। ঘরে ফেরার এক মাস হয়ে গেলেও এখনো ক্লাবের জার্সি গায়ে খেলা হয়নি তার। ক্লাবের কোচ জাভি হার্নান্দেজ এখনই তার ওপর ভরসা রাখতে নারাজ। কারণ ব্রাজিলিয়ান তারকার বয়সটা যে ৩৮ চলছে। দানি বার্সায় আসার পর জাভি রক্ষণভাগের ডাব প্রান্তে খেলিয়েছেন অস্কার মিনগুয়েজাকে। সার্জিনো দেস্ত ও সার্জি রবার্তোরাও রয়েছেন এই পজিশনে খেলার পাত্র হিসেবে। আলভেসকে কোচ মাঠে নামাতে পারেন আগামী ২ জানুয়ারি, সেদিন মায়োর্কার বিপক্ষে খেলবে কাতালান ক্লাবটি।

দানি আলভেস ক্যারিয়ারের বেশিরভাগ সময়ই কাটিয়েছেন বার্সেলোনার জার্সিতে। ক্লাবটির হয়ে অসংখ্য স্মৃতি জমা আছে তার। ক্যারিয়ারের গোধূলি বেলায় এসেও কদিন আগেই কাতালান ক্লাবটির ‘জার্সি গায়ে চাপাতে রাজি আছেন’ বলে জানিয়েছিলেন। ৩৮ বছর বয়সী ফুটবলার আবারও ফিরলেন পুরনো ক্লাবেই। এখন ভালোই ভালোই অভিষেকটা হয়ে গেলেই মাঠে চমক দেখানোর পালা তার সামনে।

আলভেসকে ক্লাবে ফেরাতে ‘সবুজ সংকেত’ দিয়েছিলেন বার্সার নতুন কোচ জাভি হার্নান্দেজ। আর এরপরই গুঞ্জন শুরু হয়। জানা গিয়েছিল, তার সঙ্গে চুক্তির জন্য আগে খুঁটিনাটি বিষয়ে ঐকমত্যে পৌঁছানোর চেষ্টা করে স্প্যানিশ ক্লাবটি। এরপরই চূড়ান্ত ঘোষণা আসে। যদিও বুড়ো আলভেসকে ক্লাবে ফেরানো নিয়ে অনেকের দ্বিমতও ছিল। যদিও তাকে দলে ভেড়াতে অতিরিক্ত কোনো অর্থ ব্যয় করতে হয়নি চরম আর্থিক সংকটে পড়া বার্সাকে।

প্রায় আট মৌসুম বার্সার হয়ে খেলেছেন আলভেস। তার সময়ে ক্লাবটির ডান প্রান্তের রক্ষণভাগ ছিল ইস্পাতসম দৃঢ়। পিএসজিতে পাড়ি জমানো লিওনেল মেসির সঙ্গে তার বোঝাপড়াটাও ছিল দুর্দান্ত। এই জুটির বেলায় ওয়ান টু ওয়ান পাসে খেলার জুড়ি মেলাও এখন ভার। সেই আলভেস ২০১৬ সালে কাতালান ক্লাবটি ছাড়র পর খেলেছেন আরও তিনটি ক্লাবের হয়ে। বর্তমানে অবশ্য কারও সঙ্গেই চুক্তিতে নেই, সবশেষ খেলেছেন নিজ দেশের ক্লাব সাও পাওলোর হয়ে।

ফ্রি এজেন্ট আলভেস এবার নোঙর করেছেন পুরনো ঘরে। কদিন আগেই সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছিলেন, যদি বার্সা মনে করে আমাকে প্রয়োজন, তবে আমি আবার তাদের হয়ে খেলতে রাজি। শুধু আমাকে ডাকলেই হবে। এখনও মনে হয় আমি তাদের জন্য কিছু করতে পারব। কিন্তু আমি এটাও জানি তাদের বর্তমানে অনেক তরুণ খেলোয়াড় রয়েছে।

ক্লাব ও দেশ মিলিয়ে প্রায় ৪৩টি ট্রফি জিতেছেন দানি আলভেস। ফুটবল ইতিহাসে তিনিই সর্বোচ্চ ট্রফি জেতার রেকর্ডটি নিজের দখলে রেখেছেন। সব মিলিয়ে তাকে সুপারস্টারদের তালিকায় নিলেও বোধহয় ফুটবলবোদ্ধারা খুব একটা অবাক হবেন না। এখনও তিনি রয়েছেন দুর্দান্ত ফর্মে। ক'দিন আগেই ব্রাজিল অলিম্পিক দলের হয়ে স্বর্ণ জিতেছেন আলভেস। এখনও তিনি ধরে রেখেছেন জয়ের মানসিকতা।

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার