• বুধবার   ২০ অক্টোবর ২০২১ ||

  • কার্তিক ৪ ১৪২৮

  • || ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

সর্বশেষ:
প্রথমবার জাতীয়ভাবে পালিত হচ্ছে ‘শেখ রাসেল দিবস’ জুড়ীতে ইউপি নির্বাচনে মনোনয়ন জমা দিলেন যারা আজ থেকে টিকা পাচ্ছেন শাবির সকল শিক্ষার্থী সিলেটের মন্দিরে হামলা ঠেকাতে রাত জেগে ছাত্রলীগের পাহারা হবিগঞ্জে ট্রাফিক পুলিশের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির অভিযোগ, সড়ক অবরোধ বিয়ানীবাজারে ইয়াবাসহ নারী গ্রেপ্তার শেখ রাসেলের জন্মদিনে সিলেট জেলা আ. লীগের মিলাদ

আয়নার সামনে নামাজ পড়া কি জায়েজ?

সিলেট সমাচার

প্রকাশিত: ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১  

আল্লাহ তায়ালার সর্বশ্রেষ্ঠ জিকির নামাজ। এমনকি নামাজ আল্লাহ তায়ালার অন্যতম ইবাদত। যা আল্লাহর সঙ্গে বান্দার সুসম্পর্ক ও সেতুবন্ধন তৈরি করে। কোরআন-সুন্নায় নামাজের ফজিলত, উপকারিতা ও মর্যাদা তুলে ধরে নামাজের প্রতি উদ্বুদ্ধ করা হয়েছে। কেয়ামতের দিন সর্ব প্রথম বান্দার নামাজের হিসাব নেয়া হবে। নামাজ ইসলাম ও মুসলমানের কাছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। 

তবে নামাজ নিয়ে আমাদের অনেকেরই পরিপূর্ণ জ্ঞান না থাকায় দ্বিধাদ্বন্দ সৃষ্টি হয়। অনেক ক্ষেত্রে ঘরে-বাড়িতে নামাজ পড়ার সময় নামাজীর সামনে আয়না থাকে। কিংবা এখন মসজিদের বিভিন্ন গ্লাস সামনে থাকে। আয়না-গ্লাস দিয়ে মসজিদের বারান্দা আলাদা করা হয়। সে কারণে মুসল্লির সামনে আয়নার উপস্থিতি এসে যায়। সে ক্ষেত্রে আয়না সামনে নিয়ে সালাত আদায় করা জায়েজ হবে কিনা সে বিষয়ে প্রশ্ন আসে অনেকের মনে। 

বর্তমানে প্রায় মসজিদগুলোতে প্রায় দুইটি অংশ থাকে। একটি প্রধান অংশ ও দ্বিতীয়টি বারান্দা। প্রধান অংশ ও বারান্দার মাঝখানে প্রায় মসজিদে গ্লাস বা আয়না লাগানো থাকে। এটি বাস্তব ও সত্য। এতে বারান্দায় নামাজ আদায় করলে নিজ প্রতিবিম্ব দেখা যায়। অথবা কোনো আয়নার সামনে দাঁড়িয়ে নামাজ আদায় করলেও সেখানে নিজেকে দেখা যায়। সে হিসেবে স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন আসে- আয়নার সামনে দাঁড়িয়ে নামাজ পড়লে কি নামাজ আদায় হবে?

নামাজে থাকাকালীন সময়ে যদি আয়নার দিকে চোখ একদম না ফিরানো হয়, বরং নিচের দিকে তাকিয়ে নামাজ আদায় করা হয়; অথবা হঠাৎ চোখ পড়লে সঙ্গে সঙ্গে ফিরিয়ে নেয়া হয়, তাহলে নামাজে কোনো সমস্যা হবে না। কিন্তু যদি আয়নার দিকে বারবার তাকানো হয়, কিংবা যদি তাকানোর মাধ্যমে কোনোভাবে নামাজের খুশুখুজু (একাগ্রতা ও আল্লাহভীরুতা) নষ্ট হয়ে যায়- তাহলে নামাজ মাকরূহে তানযিহি হবে। অর্থাৎ শরিয়তের দৃষ্টিকোণ থেকে অপছন্দনীয় বিষয় এটি। তবে এতে নামাজ ফাসিদ হবে না।

মহান আল্লাহ পাক আমাদের সহিশুদ্ধভাবে নামাজ আদায় করার তাওফিক দান করুন। আমিন।  

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার