• সোমবার   ৩০ জানুয়ারি ২০২৩ ||

  • মাঘ ১৬ ১৪২৯

  • || ০৭ রজব ১৪৪৪

সর্বশেষ:
শ্রীমঙ্গলে অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে অনুদানের চেক বিতরণ বাংলার মানুষের কথা ভেবেই দেশে এসেছি, পালাতে নয়: প্রধানমন্ত্রী মৌলভীবাজারে বিশ্ব কুষ্ঠ দিবস পালিত সিলেটে ভারতীয় চোরাই চিনিসহ কারবারি গ্রেফতার শাবিপ্রবিতে শূন্য আসন পূরণে ফের ডাকা হবে শিক্ষার্থী হবিগঞ্জে দুদকের মামলায় ৩ কর্মকর্তা-কর্মচারী কারাগারে এই সরকারের আমলে মানুষ বিচার পেয়েছে: স্পিকার
২৪

সিলেটে বীর মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রীর ঘর ভাঙচুরের অভিযোগ!

সিলেট সমাচার

প্রকাশিত: ২৪ জানুয়ারি ২০২৩  

সিলেট মহানগরে রাতের আঁধারে একজন বীর মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রীর টিনশেড একটি ঘর ভাঙচুরের অভিযোগ পাওয়া গেছে। সোমবার (২৩ জানুয়ারি) রাত ১০টার দিকে মহানগরের বনকলাপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পরিদর্শন করেছে। এ ঘটনায় মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রী বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানা গেছে। 

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, মহানগরের এয়ারপোর্ট থানাধীন বনকলাপাড়া এলাকার চৌরাশিগলির ৮৪/৯-এ নং বাসার মৃত বীর মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ তসির আহমদের স্ত্রী শাহেনা বেগম ২০১৯ সালে ওই এলাকায় ৩ শতক জায়গা ক্রয় করেন। পরে সেখানে টিনশেড একটি ঘর নির্মাণ করে একজন মহিলাকে ভাড়া দেন। কিন্তু স্থানীয় আশরাফুল আলম খান নামের প্রভাবশালী এক ব্যক্তি সেই ৩ শতকে তার অংশ রয়েছে বলে কিছুদিন পর পরই জবরদখলের চেষ্টা চালান। এ বিষয়ে আদালতে মামলা চলমান। সর্বশেষ আদালত সেই জায়গার উপর স্থিতাবস্থা জারি করেন।

এরই মাঝে সোমবার রাত ১০টার দিকে আশরাফুল আলম খান ১০/১৫ জন লোক নিয়ে এ ঘর ভঙচুর করেন বলে শাহেনা বেগমের ছেলে সুমন আহমদ অভিযোগ করেন।

তবে অভিযোগটি সম্পূর্ণ মিথ্যা বলে দাবি করেছেন আশরাফুল আলম খান। তিনি সিলেটভিউ-কে বলেন- এখানে আমার ২৪ শতক রয়েছে। ক্রয়সূত্রে আমি এবং আমার স্ত্রী মালিক। কিন্তু ওই শাহেনা বেগমের ছেলে ও তার সহযোগিরা আমার কাছে চাঁদা দাবি করেছে। তারা ওই জায়গার কোনো মালিকই নন। চাঁদা দেইনি বলেই এমন মিথ্যা ঘটনা সাজিয়ে আমাকে ফাঁসাতে চাচ্ছে। তাদের বিরুদ্ধে আমি ইতিপূর্বে একটি চাঁদাবাজি মামলাও করেছি।

তিনি বলেন- যে সময় তারা ভাঙচুরের কথা বলছে সে সময় আমি একটি কাজে এয়ারপোর্ট থানায় অবস্থান করছিলাম। একজন পুলিশ সদস্য এর সাক্ষীও আছেন।

এ বিষয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শনকারী এয়ারপোর্ট থানার এস.আই সোলাইমান আহমদ বলেন- খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে যাই। তবে আমরা গিয়ে ওখানে কাউকে পাইনি। অভিযোগকারী সুমন বলেছেন- তাদের ঘর ভাঙচুর করা হয়েছে।

এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানান এস.আই সোলাইমান।

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার