• মঙ্গলবার   ০৯ আগস্ট ২০২২ ||

  • শ্রাবণ ২৫ ১৪২৯

  • || ১০ মুহররম ১৪৪৪

সর্বশেষ:
সাকিবকে নোটিশ পাঠাল বিসিবি সিলেটের শ্রেষ্ঠ এএসআই মোহাম্মদ অলিউল হাসান এলজিইডি প্রকৌশলীর উপর সন্ত্রাসী হামলা, থানায় মামলা সিলেটের সৈয়দা জেবুন্নেছা হক পেলেন "বঙ্গমাতা" পদক সুনামগঞ্জে কৃষক হত্যায় একজনের আমৃত্যু, ৫ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড  ওসমানীতে হামলা: আ.লীগ নেতার ভাতিজার আত্মসমর্পণ অবৈধভাবে ইতালি যাওয়ার পথে সুনামগঞ্জের যুবকের মর্মান্তিক মৃত্যু
৪২১

দোয়ারায় শুরু হয়নি জরুরি বাঁধের কাজ!

সিলেট সমাচার

প্রকাশিত: ২৪ জানুয়ারি ২০২০  

দোয়ারাবাজার সীমান্তের খাসিয়ামারা নদীর বাম পাড়ের বাঁধের ভাঙনে হচ্ছে না বাঁধের কাজ, অথচ এই ভাঙনের কিছু উপরে অপ্রয়োজনীয় বাঁধ দিয়ে এবং মংলার বাঁধ নামে আরেকটি স্থানে বাঁধ দেবার নামে ৫৫ লাখ টাকার অপচয় ঘটানো হচ্ছে।

জানা যায়, সীমান্তের ওপার থেকে নেমে আসা পাহাড়ী ঢলের অসহনীয় যন্ত্রণা ৫ বছর ধরে সইছেন দোয়ারাবাজার সীমান্তের শতাধিক গ্রামের মানুষ। বর্ষায় পাহাড়ী ঢল নামলে বাড়ী-ঘর ভাসিয়ে নিয়ে যায়, একনাগারে সপ্তাহ্ থেকে ১৫ দিন জলাবদ্ধতায় ভোগেন লক্ষাধিক মানুষ। যোগাযোগ সড়কেও থাকে হাঁটু সমান পানি। গবাদি পশু থেকে শুরু করে গৃহপালিত পশু নিয়েও বেকায়দায় পড়েন এলাকাবাসী। সীমান্ত এলাকার ছোট ছোট হাওরে এ কারণে চাষাবাদ হয় না। 

গুরুত্বপূর্ণ এই বাঁধে কাজ না করেই এর কিছুটা উপরে বক্তারপুর স্লুইসগেট থেকে মীরপুর মসজিদ হয়ে রাজু মিয়ার বাড়ি পর্যন্ত বাঁধের কাজ করার জন্য দুটি পিআইসি কে (৩৩ নম্বর ও ৩৪ নম্বর পিআইসি) ২৯ লাখ ৪৩ হাজার টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। স্থানীয় লোকজনের দাবি খাসিয়ামারা’র ভাঙনে কাজ না করে এখন যে বাঁধের কাজ করা হচ্ছে, এটি মানুষের বা হাওরের ফসলের কোনো কাজে আসবে না।

দোয়ারাবাজারের দায়িত্বপ্রাপ্ত উপসহকারী প্রকৌশলী শমশের আলী জানালেন, আমি এখানে নতুন এসেছি, খাসিয়ামারা নদীর রাবারড্যামের বাম পাশের ভাঙনে বাঁধের দাবী আছে। আবার ভেতরে যেখানে বাঁধ হচ্ছে, সেখানে এর আগেও বাঁধ হয়েছে। নাইন্দার হাওরের মংলার বাঁধটি দেখে আমারও খারাপ লেগেছে। ওখানে বাঁধের ভেতরে বাঁধ হচ্ছে, অর্থাৎ দুতরফা বাঁধ দেওয়া হচ্ছে। ৭ লাখ ৪৭ হাজার টাকার বাঁধে (৫ নম্বর পিআইস) সামান্য পরিমাণে কাজ হবার পর, আমরা কাজ বন্ধ করে দিয়েছি। ১৮ লাখ টাকার কাজ যেটি ( ৭ নম্বর পিআইসি) সেটি’র কাজ অনেক হয়ে গেছে। এই বিষয়টি উপজেলা কমিটিতে কথা বলে সিদ্ধান্ত নিতে হবে। এই বাঁধটিও না হলে চলতো।


 

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার