• শনিবার   ০৪ ডিসেম্বর ২০২১ ||

  • অগ্রাহায়ণ ২০ ১৪২৮

  • || ২৭ রবিউস সানি ১৪৪৩

সর্বশেষ:
তাহিরপুরে শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়নে নৌকার একক প্রার্থী সিলেট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থীদের হুশিয়ারি! নিখোঁজের দু’দিন পর রোমানার লাশ মিললো নদীতে শেষ ওভারের রুদ্ধশ্বাস লড়াইয়ে হোয়াইটওয়াশ বাংলাদেশ পরীক্ষার্থীদের হলে পৌঁছে দিচ্ছে সিলেট জেলা ছাত্রলীগ

বিকাশের ‘খরচ কমলো’ বিজ্ঞাপন পুরোটাই প্রতারণা: টিক্যাব

সিলেট সমাচার

প্রকাশিত: ২৪ নভেম্বর ২০২১  

ভোক্তা অধিকারে অভিযোগের পর এবার নতুন করে ধাক্কা খেলো বিকাশের ‘খরচ কামানো’ বিজ্ঞাপন। এই বিজ্ঞাপনকে পুরোপুরি প্রতারণা বলে অভিহিত করেছে টেলি কনজ্যুমারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (টিক্যাব)।

সম্প্রতি টেলিভিশন চালু করলে বিভিন্ন চ্যানেলে কিছুক্ষণ পর পর ‘বিকাশে খরচ কমলো, ক্যাশ আউট চার্জ মাত্র ১৪.৯০ পয়সা’ এই বিজ্ঞাপন চলতে থাকে। এ ধরনের বিজ্ঞাপনকে প্রকৃত অর্থে গ্রাহকদের সঙ্গে  ‘শুভঙ্করের ফাঁকি’ বলে মনে করে টিক্যাব।

একইসঙ্গে সংগঠনটি অবিলম্বে সত্য লুকানো এই বিভ্রান্তিকর বিজ্ঞাপন বন্ধ করার দাবি জানিয়েছে। সেই সঙ্গে মোবাইল ব্যাংকিংয়ের ক্যাশ আউট চার্জ কমিয়ে সিঙ্গেল ডিজিটে নামিয়ে আনার দাবিও জানিয়েছে।

টিক্যাবের আহ্বায়ক মুর্শিদুল হক বুধবার (২৪ নভেম্বর) সংবাদ মাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা বলেন।

মুর্শিদুল হক বলেন, মোবাইল ব্যাংকিং সার্ভিস বিকাশের ক্যাশ আউট চার্জ আগে ছিল প্রতি হাজারে অ্যাপে ১৭.৫০ টাকা এবং *২৪৭# ডায়াল করে ১৮.৫০ টাকা। সম্প্রতি প্রতিষ্ঠানটি একটি প্রিয় এজেন্ট নম্বর সর্বোচ্চ ২৫ হাজার টাকা পর্যন্ত ক্যাশ আউট চার্জ ভ্যাটসহ ১৪.৯০ পয়সা নির্ধারণ করে। এক ক্যালেন্ডার মাসে প্রিয় এজেন্ট পরিবর্তন করতে না পারা, ক্যাশআউট লিমিট বেঁধে দেয়া এমন অনেক শর্ত একদমই হাইলাইট না করে শুধুমাত্র ‘বিকাশে খরচ কমলো’ বিজ্ঞাপন ব্যাপকভাবে প্রচারের মাধ্যমে গ্রাহকদের বিভ্রান্ত করা হয়েছে বলে আমরা মনে করি। 

এমনকি এ সময়েই বিকাশ থেকে অ্যাপের মাধ্যমে ক্যাশআউট চার্জ ১৭.৫০ টাকা থেকে বাড়িয়ে ১৮.৫০ টাকা করা হয়েছে। এখন বিকাশে অ্যাপ অথবা *২৪৭# ডায়াল করে যেভাবেই গ্রাহক ক্যাশআউট করুক চার্জ ১৮.৫০ টাকা।

টিক্যাবের পক্ষ থেকে সাধারণ গ্রাহক ও এজেন্টদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, বেশির ভাগ গ্রাহকই বিকাশের বিজ্ঞাপন দেখে ক্যাশ আউট করতে এসে বিভ্রান্ত হয়েছেন। অনেক গ্রাহক এজেন্টদের সঙ্গে বাগবিতন্ডায় জড়িয়েছেন। এজেন্টরা তখন বাধ্য হয়ে বিজ্ঞাপনের নিচে ছোট করে লেখা শর্তগুলো দেখাচ্ছেন। 

আমাদের দেশের মোবাইল ব্যাংকিং ব্যবহারকারী বেশির ভাগ গ্রাহক নিম্ন মধ্যবিত্ত হওয়ায় তারা এত শর্তের মারপ্যাচে ক্যাশ আউট চার্জ ১৪.৯০ টাকার সুফল নিতে পারছেন না। তাদের মধ্যে অনেকেই বুঝতে না পারায় প্রিয় এজেন্ট সংযুক্ত করতে পারেননি। আবার অনেকে একেক দিন একেক নম্বরে ক্যাশ আউট করায় প্রিয় এজেন্ট যুক্ত করতে আগ্রহী হননি। 

আবার অনেকে এসব শর্তকে ঝামেলা মনে করে বিষয়টিকে এড়িয়ে চলছেন। গ্রাহকরা সুবিধা নিক আর না নিক বিকাশ কিন্তু ঠিকই অ্যাপ থেকে ক্যাশ আউট চার্জ বাড়িয়ে এবং ব্যাপকভাবে ‘খরচ কমলো’ প্রচারণা চালিয়ে তাদের ব্যবসায়িক সুবিধা আদায় করে নিচ্ছে।

দেশের সকল মোবাইল মোবাইল ব্যাংকিং কোম্পানিগুলোকে ক্যাশ আউট চার্জ হাজারে সিঙ্গেল ডিজিটে নামিয়ে আনার আহ্বান জানিয়েছে টিক্যাব। এতে করে জনগণের ভোগান্তি কমবে বলে মনে করে সংগঠনটি।

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার