ব্রেকিং:
স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে সাংবাদিকদের স্মার্ট হতে আহ্বান শফিক চৌধুরীর পিনাকীসহ ৭ জনের বিরুদ্ধে সিলেটে মামলা দেশকে এগিয়ে রাখতে শিক্ষার গুরুত্ব অনেক বেশি: সিসিক মেয়র জাতীয় গ্রীডে যুক্ত হলো সিলেটের আরও ১৮ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস সংরক্ষিত ৪৮ আসনে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছে আ.লীগ মনোনীতরা গ্রামীণ উন্নয়নে আওয়ামিলীগ সরকার সবসময় আন্তরিক : ইমরান আহমদ দেশে রিজার্ভ সংকট নেই, উন্নয়ন কার্যক্রম চলমান : গণপূর্তমন্ত্রী প্রতিটি উপজেলায় মিনি স্টেডিয়াম নির্মাণের পরিকল্পনা রয়েছে : পাপন কুলাউড়ায় ট্রেনে কাটা পড়ে অজ্ঞাত নারীর মৃত্যু শেখ হাসিনার দর্শন:ভিশন ও নেতৃত্ব,উন্নয়নের চাবিকাঠি’ বই ড. মোমেনের দেশে আন্দোলনের কোনো ইস্যু নেই: কাদের অঙ্গীকার পূরণে এলাকার জন্য ২০ কোটি করে টাকা পাচ্ছেন এমপিরা মাথায় গুরুতর আঘাত পেয়ে হাসপাতালে মুস্তাফিজ মঙ্গলবার থেকে সিলেটসহ সারাদেশে বৃষ্টির আভাস, ফের বাড়তে পারে শীত! প্রতি সপ্তাহে বুধবার বসবে ভোলাগঞ্জ বর্ডার হাট! সিলেটে গ্যাস ও তেল নিয়ে মিললো আরও সুসংবাদ শেখ হাসিনা ও জেলেনস্কির বৈঠক, কৃতজ্ঞতা জানিয়ে জেলেনস্কির টুইট
  • সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ১২ ১৪৩০

  • || ১৪ শা'বান ১৪৪৫

সর্বশেষ:
মাথায় গুরুতর আঘাত পেয়ে হাসপাতালে মুস্তাফিজ সিলেটে ‘বর্জ্য পৃথকীকরণ প্ল্যান্ট’ উদ্বোধন করলেন এলজিআরডি মন্ত্রী শেখ হাসিনা ও জেলেনস্কির বৈঠক, কৃতজ্ঞতা জানিয়ে জেলেনস্কির টুইট সিলেটে গ্যাস ও তেল নিয়ে মিললো আরও সুসংবাদ মঙ্গলবার থেকে সিলেটসহ সারাদেশে বৃষ্টির আভাস, ফের বাড়তে পারে শীত! স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে সাংবাদিকদের স্মার্ট হতে আহ্বান শফিক চৌধুরীর দেশকে এগিয়ে রাখতে শিক্ষার গুরুত্ব অনেক বেশি: সিসিক মেয়র অঙ্গীকার পূরণে এলাকার জন্য ২০ কোটি করে টাকা পাচ্ছেন এমপিরা দেশে আন্দোলনের কোনো ইস্যু নেই: কাদের শেখ হাসিনার দর্শন:ভিশন ও নেতৃত্ব,উন্নয়নের চাবিকাঠি’ বই ড. মোমেনের দেশে রিজার্ভ সংকট নেই, উন্নয়ন কার্যক্রম চলমান : গণপূর্তমন্ত্রী পিনাকীসহ ৭ জনের বিরুদ্ধে সিলেটে মামলা প্রতিটি উপজেলায় মিনি স্টেডিয়াম নির্মাণের পরিকল্পনা রয়েছে : পাপন গ্রামীণ উন্নয়নে আওয়ামিলীগ সরকার সবসময় আন্তরিক : ইমরান আহমদ সংরক্ষিত ৪৮ আসনে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছে আ.লীগ মনোনীতরা জাতীয় গ্রীডে যুক্ত হলো সিলেটের আরও ১৮ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস
৫২

রেওয়াজে ছেদ

সিলেট সমাচার

প্রকাশিত: ২২ জানুয়ারি ২০২৪  

সিলেট-১ আসন যার, সরকার তার- বহু দিনের মিথটি না ভাঙলেও নব্বইয়ের দশক থেকে শুরু হওয়া একটি রেওয়াজে ছেদ পড়ল। মর্যাদাপূর্ণ এই আসনটির সাম্প্রতিক ইতিহাস বলে, সব সময় হেভিওয়েট প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন এবং বিজয়ী হয়ে মন্ত্রিসভায় ঠাঁই পান। হুমায়ূন রশীদ চৌধুরী, এম সাইফুর রহমান, আবুল মাল আবদুল মুহিত বিভিন্ন মেয়াদে বিভিন্ন সরকারের আমলে আলো ছড়িয়েছেন। দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনোত্তর গঠিত মন্ত্রিপরিষদে সিলেটের জনপ্রতিনিধি কম। সবশেষ সিলেট-১ আসন থেকে একাদশ সংসদে ড. এ কে আব্দুল মোমেন নির্বাচিত হয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করলেও ২০২৪-এর মন্ত্রিসভায় তার স্থান হয়নি। সুনামগঞ্জ-৩ থেকে নির্বাচিত সাবেক পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নানের ব্যক্তি ইমেজ পরিচ্ছন্ন থাকলেও জেলার রাজনীতিতে নিজেকে অভিভাবকের জায়গায় নিয়ে যেতে ব্যর্থ হন এবং স্থানীয় কোন্দলের রাজনীতিতে জড়িয়ে পড়েন। বিশেষ করে নিজ নির্বাচনী এলাকা শান্তিগঞ্জ উপজেলার বাইরে জেলায় বড় কোনো অবকাঠামোগত উন্নয়ন করেননি বললেই চলে। সুনামগঞ্জ বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠায় তার ঐকান্তিক প্রচেষ্টা থাকলেও বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনকে কেন্দ্র করে ভূমি অধিগ্রহণে একটি সিন্ডিকেট ব্যবসার পাঁয়তারা করে তাকে বিতর্কিত করে। জেলার প্রায় সব সংসদ সদস্য এতে আপত্তি জানান। জেলা সদরে কিংবা সিলেট-সুনামগঞ্জ হাইওয়ের পাশে কোথাও বিশ্ববিদ্যালয়টির স্থান নির্বাচনে বাকিরা মতামত দেন।

ঢাকার সঙ্গে সারা দেশে সড়ক ও রেল যোগাযোগব্যবস্থার উন্নয়ন হলেও ঢাকা-সিলেট হাইওয়ের চার লেনের কাজ আজও শেষ হয়নি। ননস্টপ আন্তঃনগর ট্রেন চালু হয়নি। উল্টো স্টপেজ বাড়িয়ে লোকাল ট্রেন করা হচ্ছে। সিলেট-চট্টগ্রাম ট্রেনের কোনো আধুনিকীকরণ হয়নি। যেগুলো আছে, সেগুলো ধুঁকে ধুঁকে চলছে। সিলেট জেলার সঙ্গে শিল্পাঞ্চলখ্যাত ছাতক উপজেলার ট্রেন লাইনটির উন্নয়ন আধুনিকীকরণের বদলে অনেক দিন ধরে বন্ধ আছে। সেটি চালুরও কোনো উদ্যোগ নেই। বন্যায় রেললাইনটি ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে ধ্বংস হচ্ছে। জেলা সদরে যুক্ত করার কথা থাকলেও রেললাইনের স্থান নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সাবেক মন্ত্রী এমএ মান্নান স্থানীয় সংসদদের সঙ্গে সমঝোতা নিয়ে বিতর্কে জড়িয়েছেন।

দেশে যে উন্নয়ন মহাযজ্ঞ হচ্ছে, সেসব মেগা প্রকল্পের কোনোটিই পর্যটন ও খনিজ শিল্প-সমৃদ্ধ সিলেট অঞ্চলে বাস্তবায়ন হচ্ছে না। শতাব্দীর ভয়াল বন্যায় সিলেট অঞ্চলে তছনছ হওয়া রাস্তাঘাট পুনর্নির্মাণে কোনো মেগা বরাদ্দ দেওয়া হয়নি। বহু দিন ধরে জাতীয় রাজনীতিতে আলো ছড়ানো রাজনীতিবিদদের শূন্যতায় ভুগছে সিলেট। সহসা এই শূন্যতা পূরণ হওয়ার নয়। স্পিকার হুমায়ূন রশীদ চৌধুরী, পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুস সামাদ আজাদ, অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত, সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত, দেওয়ান ফরিদ গাজী কিংবা একজন সিলেট অন্তপ্রাণ সাইফুর রহমানের শূন্যতায় বহু দিন ভুগবে সিলেটবাসী। সুনামগঞ্জ থেকে নির্বাচিত পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান মন্ত্রিসভা থেকে বাদ পড়েছেন। ক্যাবিনেটে সুনামগঞ্জ জেলার কেউ নেই। হবিগঞ্জ থেকে টেকনোক্র্যাট কোটায় ডা. সামন্ত লাল সেন অন্তর্ভুক্ত হলেও নির্বাচিত কেউ নেই। মৌলভীবাজার থেকে সপ্তমবারের মতো নির্বাচিত উপাধ্যক্ষ আবদুস শহীদ কৃষিমন্ত্রীর দায়িত্ব পেয়েছেন। আর সিলেট-২ আসন থেকে শফিকুর রহমান চৌধুরী প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পেয়েছেন। সাম্প্রতিক ইতিহাসে এই প্রথম কেউ সিলেট-১ থেকে নির্বাচিত হয়েও মন্ত্রী পরিষদে নেই। সিলেট অঞ্চল থেকে বরাবরই জাতীয় রাজনীতিতে আলো ছড়ানো তারকা রাজনীতিবিদরা থাকলেও সাম্প্রতিককালের শূন্যতা চোখে পড়ার মতো। যার ফলে জাতীয় রাজনীতিতে তো বটেই দেশের উন্নয়ন-সমতায়ও সিলেট বিভাগ আগামী দিনে আরও পিছিয়ে পড়বে বলে আশঙ্কা রয়েছে। অথচ অর্থনৈতিক বৈশ্বিক মন্দার কালেও এই অঞ্চলের বিপুল পরিমাণ প্রবাসীর রেমিট্যান্স দেশের অর্থনীতির চাকাকে সচল রাখছে। কিন্তু এই প্রবাহেও ছেদ পড়বে। বিশেষ করে বিলেতে বড় হওয়া নতুন প্রজন্ম ইউরোপ, আমেরিকা, মধ্যপ্রাচ্যের দুবাই শহরে গেলেও নিজ দেশে যেতে অতটা আগ্রহী না।

অবকাঠামোগত উন্নয়ন, পর্যটন সুবিধা বৃদ্ধি, নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পারলে দেশের বাইরে বড় হওয়া নতুন প্রজন্মকে দেশের ব্যাপারে আগ্রহী করে তোলা সম্ভব। দেশে বিনিয়োগেও তারা আগ্রহী হবে। এতে দেশের অর্থনীতি আরও সচল ও সমৃদ্ধ হবে। পর্যটনশিল্প ও বিপুল খনিজ সম্পদ-সমৃদ্ধ সিলেট অঞ্চল দেশের অর্থনীতির জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

 

লেখক : আলমগীর শাহরিয়ার, যুক্তরাজ্যে উচ্চশিক্ষারত।

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার