ব্রেকিং:
স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে সাংবাদিকদের স্মার্ট হতে আহ্বান শফিক চৌধুরীর পিনাকীসহ ৭ জনের বিরুদ্ধে সিলেটে মামলা দেশকে এগিয়ে রাখতে শিক্ষার গুরুত্ব অনেক বেশি: সিসিক মেয়র জাতীয় গ্রীডে যুক্ত হলো সিলেটের আরও ১৮ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস সংরক্ষিত ৪৮ আসনে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছে আ.লীগ মনোনীতরা গ্রামীণ উন্নয়নে আওয়ামিলীগ সরকার সবসময় আন্তরিক : ইমরান আহমদ দেশে রিজার্ভ সংকট নেই, উন্নয়ন কার্যক্রম চলমান : গণপূর্তমন্ত্রী প্রতিটি উপজেলায় মিনি স্টেডিয়াম নির্মাণের পরিকল্পনা রয়েছে : পাপন কুলাউড়ায় ট্রেনে কাটা পড়ে অজ্ঞাত নারীর মৃত্যু শেখ হাসিনার দর্শন:ভিশন ও নেতৃত্ব,উন্নয়নের চাবিকাঠি’ বই ড. মোমেনের দেশে আন্দোলনের কোনো ইস্যু নেই: কাদের অঙ্গীকার পূরণে এলাকার জন্য ২০ কোটি করে টাকা পাচ্ছেন এমপিরা মাথায় গুরুতর আঘাত পেয়ে হাসপাতালে মুস্তাফিজ মঙ্গলবার থেকে সিলেটসহ সারাদেশে বৃষ্টির আভাস, ফের বাড়তে পারে শীত! প্রতি সপ্তাহে বুধবার বসবে ভোলাগঞ্জ বর্ডার হাট! সিলেটে গ্যাস ও তেল নিয়ে মিললো আরও সুসংবাদ শেখ হাসিনা ও জেলেনস্কির বৈঠক, কৃতজ্ঞতা জানিয়ে জেলেনস্কির টুইট
  • সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ১২ ১৪৩০

  • || ১৪ শা'বান ১৪৪৫

সর্বশেষ:
মাথায় গুরুতর আঘাত পেয়ে হাসপাতালে মুস্তাফিজ সিলেটে ‘বর্জ্য পৃথকীকরণ প্ল্যান্ট’ উদ্বোধন করলেন এলজিআরডি মন্ত্রী শেখ হাসিনা ও জেলেনস্কির বৈঠক, কৃতজ্ঞতা জানিয়ে জেলেনস্কির টুইট সিলেটে গ্যাস ও তেল নিয়ে মিললো আরও সুসংবাদ মঙ্গলবার থেকে সিলেটসহ সারাদেশে বৃষ্টির আভাস, ফের বাড়তে পারে শীত! স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে সাংবাদিকদের স্মার্ট হতে আহ্বান শফিক চৌধুরীর দেশকে এগিয়ে রাখতে শিক্ষার গুরুত্ব অনেক বেশি: সিসিক মেয়র অঙ্গীকার পূরণে এলাকার জন্য ২০ কোটি করে টাকা পাচ্ছেন এমপিরা দেশে আন্দোলনের কোনো ইস্যু নেই: কাদের শেখ হাসিনার দর্শন:ভিশন ও নেতৃত্ব,উন্নয়নের চাবিকাঠি’ বই ড. মোমেনের দেশে রিজার্ভ সংকট নেই, উন্নয়ন কার্যক্রম চলমান : গণপূর্তমন্ত্রী পিনাকীসহ ৭ জনের বিরুদ্ধে সিলেটে মামলা প্রতিটি উপজেলায় মিনি স্টেডিয়াম নির্মাণের পরিকল্পনা রয়েছে : পাপন গ্রামীণ উন্নয়নে আওয়ামিলীগ সরকার সবসময় আন্তরিক : ইমরান আহমদ সংরক্ষিত ৪৮ আসনে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছে আ.লীগ মনোনীতরা জাতীয় গ্রীডে যুক্ত হলো সিলেটের আরও ১৮ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস
১২৩২

ওভারব্রিজে আগ্রহ নেই পথচারীদের

সিলেট সমাচার

প্রকাশিত: ২৯ জানুয়ারি ২০২৪  

সিলেট নগরে ফুট ওভারব্রিজ থাকলেও পথচারীরা তা ব্যবহার করছেন না। ফলে কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত এসব ব্রিজ অলস পড়ে আছে। নগর কর্তৃপক্ষ বলছে পথচারীদের আকৃষ্ট করতে তারা দৃষ্টিনন্দন লাইটিংয়ের ব্যবস্থা করেছে ব্রিজে। তবে তাদের এই পদক্ষেপে সাড়া নেই পথচারীদের।

পথচারীরা বলছেন কোর্ট পয়েন্ট ব্যস্ততম সড়ক হলেও এর বেশিরভাগ অংশ সিএনজি ও হকারের দখলে থাকে। ফলে এ জায়গায় দ্রুতগামি গাড়ি দেখা যায় না, আর যা কিছু গাড়ি চলাচল করে তাও সিএনজি ও হকারের চাপে থেমে থেমে চলতে হয়। ফলে এখানে রাস্তা পারাপারে ওভারব্রিজের দরকার পড়ে না। নিচ দিয়েই অনায়াসে চলে যাওয়া যায়।

নগরের বন্দরবাজার এলাকার কোর্ট পয়েন্টে ২০১৫ সালে প্রায় দেড় কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মাণ করা হয় সিলেটের প্রথম ফুট ওভারব্রিজ। এরপর প্রায় একদশক ধরে অনেকটা পরিত্যক্ত হয়েই পড়ে আছে সেতুটি। একাধিকবার বিক্রির উদ্যোগ নিয়েও উপযুক্ত দাম না পাওয়ায় এটি এখন সিলেট সিটি কর্পোরেশনের গলার কাঁটা হয়ে রয়েছে। এর মধ্যেই নতুন করে তৈরি করা হয়েছে আরো তিনটি ব্রিজ। পথচারীরা এসব ব্রিজ ব্যবহার না করায় এখন কার্যত এই চারটি ফুট ওভারব্রিজই বেকার পড়ে আছে।

২০২১ ও ২০২২ সালে সিলেট নগরে আরও তিনটি ফুট ওভারব্রিজ নির্মাণ করেছে সিলেট সিটি কর্পোরেশন। প্রায় ৫ কোটি টাকা ব্যয়ে নগরের টিলাগড়ে এমসি কলেজের সামনে, আখালিয়ায় শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে এবং দক্ষিণ সুরমার হুমায়ুন রশীদ চত্বরের পাশে এগুলো নির্মাণ করা হয়।

তবে এক বছরের বেশি সময় ধরে এই সেতুগুলোও অব্যবহৃত অবস্থায় পড়ে আছে। কোনো পথচারীই এসব সেতু ব্যবহার করছেন না। ফলে সন্ধ্যার পর থেকে গাঁজা, ড্যান্ডিং সহ মাদকসেবীদের দখলে এসব ওভারব্রিজ চলে যায় বলে জানান স্থানীয়রা।

এ ব্যাপারে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের প্রধান প্রকৌশলী নূর আজিজুর রহমান বলেন, ঢাকা ও চট্টগ্রামে অসংখ্য ফুট ওভারব্রিজ রয়েছে। পথচারীরা এসব ব্যবহারও করছেন। এজন্যই সিলেটেও ফুট ওভারব্রিজ নির্মাণ করা হয়েছে। আমরা লাইটিং করে পথচারীদের দৃষ্টি আকর্শন করার চেষ্টার করছি। ফুট ওভারব্রিজ ব্যবহার করতে পথচারীদের সচেতনতা বাড়ানোর জন্য চেষ্টা অব্যাহত আছে।

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার