ব্রেকিং:
স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে সাংবাদিকদের স্মার্ট হতে আহ্বান শফিক চৌধুরীর পিনাকীসহ ৭ জনের বিরুদ্ধে সিলেটে মামলা দেশকে এগিয়ে রাখতে শিক্ষার গুরুত্ব অনেক বেশি: সিসিক মেয়র জাতীয় গ্রীডে যুক্ত হলো সিলেটের আরও ১৮ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস সংরক্ষিত ৪৮ আসনে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছে আ.লীগ মনোনীতরা গ্রামীণ উন্নয়নে আওয়ামিলীগ সরকার সবসময় আন্তরিক : ইমরান আহমদ দেশে রিজার্ভ সংকট নেই, উন্নয়ন কার্যক্রম চলমান : গণপূর্তমন্ত্রী প্রতিটি উপজেলায় মিনি স্টেডিয়াম নির্মাণের পরিকল্পনা রয়েছে : পাপন কুলাউড়ায় ট্রেনে কাটা পড়ে অজ্ঞাত নারীর মৃত্যু শেখ হাসিনার দর্শন:ভিশন ও নেতৃত্ব,উন্নয়নের চাবিকাঠি’ বই ড. মোমেনের দেশে আন্দোলনের কোনো ইস্যু নেই: কাদের অঙ্গীকার পূরণে এলাকার জন্য ২০ কোটি করে টাকা পাচ্ছেন এমপিরা মাথায় গুরুতর আঘাত পেয়ে হাসপাতালে মুস্তাফিজ মঙ্গলবার থেকে সিলেটসহ সারাদেশে বৃষ্টির আভাস, ফের বাড়তে পারে শীত! প্রতি সপ্তাহে বুধবার বসবে ভোলাগঞ্জ বর্ডার হাট! সিলেটে গ্যাস ও তেল নিয়ে মিললো আরও সুসংবাদ শেখ হাসিনা ও জেলেনস্কির বৈঠক, কৃতজ্ঞতা জানিয়ে জেলেনস্কির টুইট
  • সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ১২ ১৪৩০

  • || ১৪ শা'বান ১৪৪৫

সর্বশেষ:
মাথায় গুরুতর আঘাত পেয়ে হাসপাতালে মুস্তাফিজ সিলেটে ‘বর্জ্য পৃথকীকরণ প্ল্যান্ট’ উদ্বোধন করলেন এলজিআরডি মন্ত্রী শেখ হাসিনা ও জেলেনস্কির বৈঠক, কৃতজ্ঞতা জানিয়ে জেলেনস্কির টুইট সিলেটে গ্যাস ও তেল নিয়ে মিললো আরও সুসংবাদ মঙ্গলবার থেকে সিলেটসহ সারাদেশে বৃষ্টির আভাস, ফের বাড়তে পারে শীত! স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে সাংবাদিকদের স্মার্ট হতে আহ্বান শফিক চৌধুরীর দেশকে এগিয়ে রাখতে শিক্ষার গুরুত্ব অনেক বেশি: সিসিক মেয়র অঙ্গীকার পূরণে এলাকার জন্য ২০ কোটি করে টাকা পাচ্ছেন এমপিরা দেশে আন্দোলনের কোনো ইস্যু নেই: কাদের শেখ হাসিনার দর্শন:ভিশন ও নেতৃত্ব,উন্নয়নের চাবিকাঠি’ বই ড. মোমেনের দেশে রিজার্ভ সংকট নেই, উন্নয়ন কার্যক্রম চলমান : গণপূর্তমন্ত্রী পিনাকীসহ ৭ জনের বিরুদ্ধে সিলেটে মামলা প্রতিটি উপজেলায় মিনি স্টেডিয়াম নির্মাণের পরিকল্পনা রয়েছে : পাপন গ্রামীণ উন্নয়নে আওয়ামিলীগ সরকার সবসময় আন্তরিক : ইমরান আহমদ সংরক্ষিত ৪৮ আসনে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছে আ.লীগ মনোনীতরা জাতীয় গ্রীডে যুক্ত হলো সিলেটের আরও ১৮ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস
৪৪৩

ফুটপাতের পর এবার হকারদের দখলে নগরীর সড়ক

সিলেট সমাচার

প্রকাশিত: ১৯ জানুয়ারি ২০২৪  

সিলেট নগরীর প্রায় সবগুলো রাস্তার বড়ো একটা অংশ এখন হকারদের দখলে। আর ব্যস্ততম গুরুত্বপূর্ণ রাস্তাগুলো যেন হকারের পেটে বিলীন হয়ে বাজারে পরিণত হয়েছে। নগরের ফুটপাত দখল তো পুরনো কাহিনী। ফুটপাত দখলের পর শুরু হয় হকারদের রাস্তায় অবস্থান। সম্প্রতি ফুটপাত আর রাস্তা দখলের যেন মহৌৎসব শুরু হয়েছে। যে যেভাবে পারছে দখল করছে ফুটপাত। এতে বিপাকে পড়েছেন ফুটপাত দিয়ে চলাচলকারীরা।

আগে বিকালের পর সন্ধ্যার আগে হকাররা ফুটপাতে বসলেও গত সপ্তাহ দশ দিন থেকে সকাল থেকেই বসা শুরু করছেন। দুপুরের পর তাদের অবস্থান ফুটপাত ছাড়িয়ে রাস্তায় চলে আসে এবং একসময় রাস্তা দখলে চলে যায়। বাকি যে অল্প জায়গা অবশিষ্ট থাকে তা চলে যায় গাড়ি পার্কিংয়ের দখলে। এর মধ্যে বন্দরবাজার থেকে চৌহাট্টা পর্যন্ত রাস্তার অবস্থা দখলে বেহাল। হাকারের বাইরে রাস্তার বাকি অংশ লেগুনা এবং ব্যক্তিগত গাড়ি পার্কিং দখল হয়ে যায়। দখলের দিক থেকে বন্দরবাজার, কোর্ট পয়েন্ট এবং আম্বরখানার অবস্থা ভয়াবহ।


এসব রাস্তায় দখল এত পরিমাণ ছড়িয়েছে যে গাড়ি চলাচল তো দূরে থাকা লোকজনকে হেঁটে এসব এলাকা অতিক্রম করতে কাঙ্গালি ভোজের শিরনীর মতো লাইন করে চলতে হয়। ফলে রাস্তায় অল্প পরিমাণ অংশ দিয়ে মানুষ ও যানবাহন পালা করে চলতে হচ্ছে। এে ত তৈরি হচ্ছে দীর্ঘ যানজটের।


গতকাল বৃহস্পতিবার সরজমিন বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে দেখা যায় কোর্ট পয়েন্ট থেকে জিন্দাবাজার হয়ে চৌহাট্টা পর্যন্ত প্রায় পুরোটা সড়ক দখল হয়ে আছে। অবস্থা দেখে মনে হচ্ছে যেন ঈদের বাজার। আশপাশের বিল্ডিং থেকে থাকালে এটা কোনো সড়ক নাকি বাজার তাও ঠাওর করা কষ্টসাধ্য। ফুটপাত থেকে রাস্তার অর্ধেক দখল করে হকাররা বিক্রি করছেন শীতের কাপড়। সেই কাপড়ের দোকানগুলোতে ভিড় লেগে থাকা ক্রেতার চাপে দখল হয়েছে বাকি আরো কিছু অংশ। ক্রেতা হকারের পর বাকি যে অংশ তার কিছুটা সারিবদ্ধ লেগুনা এবং কিছু অংশ প্রাইভেটকারের পার্কিংয়ের দখলে। লেগুনাগুলো কোর্ট পয়েন্টের কাছে সারিবদ্ধভাবে থাকলেও সবুজ বিপণি পার হয়ে বাকি অংশ এলোমেলো প্রাইভেট কার, জিপ ইত্যাদির দখলে থাকতে দেখা গেছে। অনেকে রাস্তার মাঝখানে গাড়ি রেখে চলে যেতে দেখা যায়। বিকাল ৪টা ৪০ মিনিটের দিকে অগ্রগামী বালিকা বিদ্যালয়ের সামনে আইনজীবী স্টিকার লাগানো ঢাকা মেট্রো গ-১৩৬৮৪৯ নম্বরের একটি সাদা প্রাইভেট কার দেখা যায় রাস্তার মাঝখানে রেখে ড্রাইভার নেই। এমনিতেই যানজট তারমধ্যে ড্রাইভারবিহীন এই গাড়ির জন্য তৈরি হয় আরো জটলা। এই সড়কে শীতের কাপড়, জুতা, ছেলেদের আন্ডার গার্মেন্টস এবং রান্নাবান্নার সহযোগী তৈজসপত্র বিক্রির হকারদের সংখ্যা বেশি।

অপরদিকে বিকাল পৌনে ৪টার দিকে বন্দরবাজার থেকে জেলরোড পয়েন্ট পর্যন্ত সড়কের অর্ধেকের বেশি সবজিওয়ালাদের দখলে চলে যেতে দেখা গেছে। তারা সিটি করপোরেশন থেকে পোস্ট অফিসের সামনের অংশে কয়েক সারিতে রাস্তা দখল করে সবজি বিক্রি করেন। ফুটপাত থেকে রাস্তার অর্ধেক দখলে চলে যাওয়ায় যানবাহন হাসান মার্কেটের গা ঘেঁষে মাত্র এক সাড়িতে চলাচল করার সুযোগ ছিল। অবস্থা ভয়াবহ ছিল নগরীর আম্বরখানার। পয়েন্টের আশপাশ সিনএজি অটোরিকশার দখল। বাকি অংশে বিভিন্ন পদের সামগ্রী নিয়ে হকারদের দখলে। মাঝে মাঝে রাস্তার উপর টুল-টবিল বসিয়ে বিভিন্ন মোবাইল কোম্পানির সিম বিক্রিও করতে দেখা গেছে বিক্রয়কর্মীদের।

সবকিছু মিলিয়ে নগরীর ব্যস্ততম রাস্তায় যেন এক হযবরল অবস্থা বলে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন অনেকে। অনেকেই এ নিয়ে সামজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ক্ষোভ প্রকাশ করে পোস্ট দিয়েছেন। তারা বলছেন সড়ক কি যানবাহনের নাকি হকারের? সড়ক যদি হকারের হাতেই দিয়ে দিতে হয় তাহলে বাহন চলাচলের জন্য আলাদা কোনো পথ কর্তৃপক্ষ তৈরি করুক।

এ অবস্থায় সিসিক মেয়র আনোয়রুজ্জামান চৌধুরী বলেন, এক মাসের মধ্যে হকারমুক্ত হবে নগরের ফুটপাত। আমরা শিগগিরই সাঁড়াশি অভিযানে নামব।

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার