ব্রেকিং:
স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে সাংবাদিকদের স্মার্ট হতে আহ্বান শফিক চৌধুরীর পিনাকীসহ ৭ জনের বিরুদ্ধে সিলেটে মামলা দেশকে এগিয়ে রাখতে শিক্ষার গুরুত্ব অনেক বেশি: সিসিক মেয়র জাতীয় গ্রীডে যুক্ত হলো সিলেটের আরও ১৮ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস সংরক্ষিত ৪৮ আসনে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছে আ.লীগ মনোনীতরা গ্রামীণ উন্নয়নে আওয়ামিলীগ সরকার সবসময় আন্তরিক : ইমরান আহমদ দেশে রিজার্ভ সংকট নেই, উন্নয়ন কার্যক্রম চলমান : গণপূর্তমন্ত্রী প্রতিটি উপজেলায় মিনি স্টেডিয়াম নির্মাণের পরিকল্পনা রয়েছে : পাপন কুলাউড়ায় ট্রেনে কাটা পড়ে অজ্ঞাত নারীর মৃত্যু শেখ হাসিনার দর্শন:ভিশন ও নেতৃত্ব,উন্নয়নের চাবিকাঠি’ বই ড. মোমেনের দেশে আন্দোলনের কোনো ইস্যু নেই: কাদের অঙ্গীকার পূরণে এলাকার জন্য ২০ কোটি করে টাকা পাচ্ছেন এমপিরা মাথায় গুরুতর আঘাত পেয়ে হাসপাতালে মুস্তাফিজ মঙ্গলবার থেকে সিলেটসহ সারাদেশে বৃষ্টির আভাস, ফের বাড়তে পারে শীত! প্রতি সপ্তাহে বুধবার বসবে ভোলাগঞ্জ বর্ডার হাট! সিলেটে গ্যাস ও তেল নিয়ে মিললো আরও সুসংবাদ শেখ হাসিনা ও জেলেনস্কির বৈঠক, কৃতজ্ঞতা জানিয়ে জেলেনস্কির টুইট
  • সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ১২ ১৪৩০

  • || ১৪ শা'বান ১৪৪৫

সর্বশেষ:
মাথায় গুরুতর আঘাত পেয়ে হাসপাতালে মুস্তাফিজ সিলেটে ‘বর্জ্য পৃথকীকরণ প্ল্যান্ট’ উদ্বোধন করলেন এলজিআরডি মন্ত্রী শেখ হাসিনা ও জেলেনস্কির বৈঠক, কৃতজ্ঞতা জানিয়ে জেলেনস্কির টুইট সিলেটে গ্যাস ও তেল নিয়ে মিললো আরও সুসংবাদ মঙ্গলবার থেকে সিলেটসহ সারাদেশে বৃষ্টির আভাস, ফের বাড়তে পারে শীত! স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে সাংবাদিকদের স্মার্ট হতে আহ্বান শফিক চৌধুরীর দেশকে এগিয়ে রাখতে শিক্ষার গুরুত্ব অনেক বেশি: সিসিক মেয়র অঙ্গীকার পূরণে এলাকার জন্য ২০ কোটি করে টাকা পাচ্ছেন এমপিরা দেশে আন্দোলনের কোনো ইস্যু নেই: কাদের শেখ হাসিনার দর্শন:ভিশন ও নেতৃত্ব,উন্নয়নের চাবিকাঠি’ বই ড. মোমেনের দেশে রিজার্ভ সংকট নেই, উন্নয়ন কার্যক্রম চলমান : গণপূর্তমন্ত্রী পিনাকীসহ ৭ জনের বিরুদ্ধে সিলেটে মামলা প্রতিটি উপজেলায় মিনি স্টেডিয়াম নির্মাণের পরিকল্পনা রয়েছে : পাপন গ্রামীণ উন্নয়নে আওয়ামিলীগ সরকার সবসময় আন্তরিক : ইমরান আহমদ সংরক্ষিত ৪৮ আসনে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছে আ.লীগ মনোনীতরা জাতীয় গ্রীডে যুক্ত হলো সিলেটের আরও ১৮ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস
৩৭৬

রেমিট্যান্সর সুবাতাস সিলেটো

সিলেট সমাচার

প্রকাশিত: ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪  

২০২৩-২৪ অর্থবছরর ফয়লা ৭ মাসে দেশো সবচে বেশি রেমিট্যান্স ফাটাইছইন ডাখা বিবাগোর প্রবাসীরা। আর ই তালিকাত সিলেটর প্রবাসীরা আছইন তিন নম্বর অবস্তানো। ফয়লা ৭ মাসে সিলেট বিবাগো ১৪২ কুটি ৯১ লাখ ডলার রেমিট্যান্স আইছে। আর সবচে খম রেমিট্যান্স আইছে রংপুর বিবাগো।

 

বাংলাদেশ ব্যাংকর হালনাগাদ প্রতিবেদন তাকি ই তত্য জানা গেছে।

 

ই প্রতিবেদনো খওয়া অইছে, গত জুলাই-জানুয়ারি মাসও প্রবাসীরা দেশো ১ আজার ২৯০ কুটি ৬ লাখ মার্কিন ডলার রেমিট্যান্স ফাটাইছইন। এর মইদ্যে ডাখা'ত রেমিট্যান্স আইছে ৬১৯ কুটি  ৫০ লাখ ডলার।

 

এছাড়া দ্বিতীয় সবতাকি বেশি রেমিট্যান্স আইছে চট্টগ্রাম বিবাগো। জুলাই-জানুয়ারিত চট্টগ্রাম প্রবাসীরা রেমিট্যান্স ফাটাইছইন ৩৬৫ কুটি ৩৯ লাখ মার্কিন ডলার, সিলেট বিবাগো ১৪২ কুটি ৯১ লাখ ডলার, খুলনা বিবাগো ৫১ কুটি ৩৭ লাখ ডলার, রাজশাহী বিবাগো ৪১ কুটি ১১ লাখ ডলার, বরিশাল বিবাগো ৩১ কুটি ডলার, ময়মনসিং বিবাগো ২২ কুটি ৮২ লাখ ডলার আর রংপুর বিবাগো ১৫ কুটি ৯৭ লাখ ডলার।

 

 আর গত জানুয়ারি মাসো দেশো রেমিট্যান্স আইছে ২১০ কুটি ৯ লাখ ৫০ হাজার ডলার, যা বিগত ৭ মাসের মইদ্যে সর্বুচ্চ।

 

এর আগে, ২২ অক্টোবর তাকি  বৈদো চ্যানেলে ব্যাংকর মাইদ্যমে প্রবাসী আয় দেশো ফাটাইলে প্রতি ১০০ টেখায় আড়াই টেখা প্রণোদনার লগে প্রবাসীরারে দেড়িয়া আরও আড়াই টেখা বেশি  দেওয়ার নির্দেশনা খাইর্যখর খরে বাংলাদেশ ব্যাংকে। নয়া সিদ্দান্ত অনুযায়ী, সরখার’র দেয়া আড়াই শতাংশ প্রণোদুনার লগে দেড়িয়া আরও আড়াই শতাংশ টেখা বেশি দিয়া রেমিট্যান্স কিনতে ফারবো ব্যাংকহখলে।


 
ব্যাংক সংশ্লিষ্টরার মতে, বাড়তি প্রণোদুনা ফাওয়ায় প্রবাসীরা বৈদ ফতে রেমিট্যান্স ফাটানি বাড়াইছইন। সামনে এর ফরিমাণ আরও বাড়বো। 

 

গত জানুয়ারিত রাষ্ট্র মালিকানাদীন ব্যাংকটির মাইদ্যমে আইছে ১৭ কুটি ১৯ লাখ ৩০ আজার ডলার। এছাড়াও বিশেষায়িত ব্যাংকহখলর মাইদ্যমে ৬ কুটি ৯৮ লাখ ১০ আজার ডলার, বেসরকারি ব্যাংকহখলর মাইদ্যমে ১৮৫ কুটি ২৬ লাখ ৩০ আজার ডলার ও বিদেশি খাতর ব্যাংকটিনর মাইদ্যমে আইছে ৬৫ লাখ ৮০ আজার ডলার।

 

জানুয়ারিত ডাখাত রেমিট্যান্স আইছে ১০০ কুটি ১৬ লাখ মার্কিন ডলার, যা সবতাকি বেশি। দ্বিতীয় সবতাকি বেশি রেমিট্যান্স আইছে চট্টগ্রাম বিবাগো। জানুয়ারিত চট্টগ্রামর প্রবাসীরা রেমিট্যান্স ফাটাইছইন ৫৯ কুটি ৮৯ লাখ ডলার। এছাড়া সিলেট বিবাগো ২২ কুটি ৫০ লাখ ডলার, খুলনা বিবাগো ৮ কুটি ২৮ লাখ ডলার, রাজশাহী বিবাগো ৭ কুটি ৭৩ লাখ ডলার, বরিশাল বিবাগো ৫ কুটি ৯ লাখ ডলার, ময়মনসিংহ বিবাগো ৩ কোটি ৭৯ লাখ ডলার ও রংপুর বিবাগো ২ কুটি ৬৫ লাখ ডলার রেমিট্যান্স ফাটাইছইন প্রবাসীরা।

 

 ইদিকে, গত ডিসেম্বরো ১৯৮ কুটি ৯৮ লাখ ৭০ আজার মার্কিন ডলার রেমিট্যান্স দেশো ফাটাইছইন প্রবাসী বাংলাদেশিরা। আর গত নভেম্বর, অক্টোবর, সেপ্টেম্বর, আগস্ট আর জুলাইত রেমিট্যান্স আইছে যতাক্রমে ১৯৩ কুটি ৪০ আজার, ১৯৭ কুটি ১৪ লাখ ৩০ আজার, ১৩৩ কুটি ৪৩ লাখ ৫০ আজার, ১৫৯ কুটি ৯৪ লাখ ৫০ আজার ও ১৯৭ কুটি ৩১ লাখ ৫০ আজার ডলার।

 

গত অর্তবছরর রেমিট্যান্স আইছে জুলাইত ২০৯ কুটি ৬৩ লাখ ২০ আজার, আগস্টো ২০৩ কুটি ৬৯ লাখ ৩০ আজার, সেপ্টেম্বরো ১৫৩ কুটি ৯৬ লাখ, অক্টোবরো ১৫২ কুটি ৫৫ লাখ ৪০ আজার, নভেম্বরো ১৫৯ কুটি ৫১ লাখ ৭০ আজার, ডিসেম্বরো ১৬৯ কুটি ৯৭ লাখ, জানুয়ারিত ১৯৫ কুটি ৮৮ লাখ ৭০ আজার, ফেব্রুয়ারিত ১৫৬ কুটি ৪ লাখ ৮০ আজার, মার্চো ২০২ কুটি ২৪ লাখ ৭০ আজার, এপ্রিলো ১৬৮ কুটি ৪৯ লাখ ১০ আজার, মে মাসও ১৬৯ কুটি ১৬ লাখ ৩০ আজার আর জুন মাসো ২১৯ কুটি ৯০ লাখ ১০ আজার মার্কিন ডলার।

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার