ব্রেকিং:
রমজানে সিলেটসহ সারাদেশে নতুন সময়সূচিতে চলছে অফিস সিলেটে স্ত্রীর সঙ্গে ডিভোর্সের আত্মহত্যা যুবকের! পবিত্র রমজান মাসের মর্যাদা, ইবাদত ও ফজিলত রমজানে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে সক্রিয় জৈন্তাপুরে বাজার মনিটরিং চুনারুঘাটে দুর্ঘটনায় চাশ্রমিক-সন্তান নিহত অস্ত্রোপচারে দুর্ঘটনার দায় হাসপাতাল ও চিকিৎসকের: স্বাস্থমন্ত্রী হাইতির প্রধানমন্ত্রী হেনরির পদত্যাগ গত ১৫ বছরে দেশের চেহারা বদলে গেছে : এম এ মান্নান এমপি বিএসএমএমইউ’র নতুন উপাচার্য ডা. দীন মোহাম্মদ নূরুল হক রমজানের প্রথম তারাবিতে সিলেটে মুসল্লিদের ঢল রমজানে আবহাওয়া যেমন থাকবে সিলেটে?
  • রোববার ১৪ জুলাই ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৩০ ১৪৩১

  • || ০৬ মুহররম ১৪৪৬

সর্বশেষ:
রমজানে সিলেটসহ সারাদেশে নতুন সময়সূচিতে চলছে অফিস সিলেটে স্ত্রীর সঙ্গে ডিভোর্সের আত্মহত্যা যুবকের! পবিত্র রমজান মাসের মর্যাদা, ইবাদত ও ফজিলত রমজানে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে সক্রিয় জৈন্তাপুরে বাজার মনিটরিং চুনারুঘাটে দুর্ঘটনায় চাশ্রমিক-সন্তান নিহত অস্ত্রোপচারে দুর্ঘটনার দায় হাসপাতাল ও চিকিৎসকের: স্বাস্থমন্ত্রী হাইতির প্রধানমন্ত্রী হেনরির পদত্যাগ গত ১৫ বছরে দেশের চেহারা বদলে গেছে : এম এ মান্নান এমপি বিএসএমএমইউ’র নতুন উপাচার্য ডা. দীন মোহাম্মদ নূরুল হক রমজানের প্রথম তারাবিতে সিলেটে মুসল্লিদের ঢল রমজানে আবহাওয়া যেমন থাকবে সিলেটে?
৮৬

বিশ্বনাথে বরখাস্ত হওয়া অধ্যক্ষকে মাদ্রাসায় প্রবেশে বাধা

সিলেট সমাচার

প্রকাশিত: ৫ সেপ্টেম্বর ২০২৩  

সিলেটের বিশ্বনাথে উপজেলার খাজা ইউনিয়নের তেলিকোনা গ্রামস্থ ‘এলাহাবাদ ইসলামিয়া আলীম মাদ্রাসা’র অধ্যক্ষ মাওলানা আবু তাহির মোহাম্মদ হোসাইনকে সম্প্রতি সাময়িক বরখাস্ত করেন মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ। বরখাস্তের পর গত রোববার (৩ সেপ্টেম্বর) তিনি (বারখাস্তকৃত অধ্যক্ষ) জোরপূর্বক মাদ্রাসায় প্রবেশ করতে চাইলে তাতে বাধা দেন কর্তৃপক্ষ।

এনিয়ে দু’পক্ষের মধ্যে বাতবিতন্ডা শুরু হলে থানা পুলিশের এসআই দিপঙ্কর ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করেন। বিষয়টিকে কেন্দ্র করে ঘটনার পর থেকে মাদ্রাসার এডহক কমিটির সাবেক সভাপতি নিজামুল ইসলাম ও ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মাওলানা হরমুজ আলী এবং বরখাস্ত হওয়া অধ্যক্ষ আবু তাহির মোহাম্মদ হোসাইন পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। যেকোন সময় উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের আশংকা করছেন এলাকাবাসী।

মাদ্রাসার শিক্ষকরা জানান, ২০২০ সালের ১ ফেব্রুয়ারি মাদ্রাসার গভর্নিং বডির সভাপতি মারা যাবার পর মাদ্রাসা শিক্ষাবোর্ডের একাধিক পত্রের নির্দেশ সত্বেও অধ্যক্ষ আবু তাহির মোহাম্মদ হোসাইন কমিটির সভাপতির শুন্য পদ পূরণ করেননি। ২০২২ সালের ২৫ জানুয়ারি বোর্ড থেকে এডহক কমিটি গঠনের নির্দেশ দেওয়া হয় কিন্তু বোর্ডের একাধিক নির্দেশ অমান্য করে দীর্ঘ ১১ মাসেও তিনি (আবু তাহির) এডহক কমিটি করেননি। ২০২২ সালের ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত সাত কর্মদিবসের মধ্যে কমিটি গঠন করে কমিটি অনুমোদনের প্রস্তাব বোর্ডে প্রেরণ করতে ব্যর্থ হন। 

এরপর ২০২২ সালের ২৮ ডিসেম্বর মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের নির্দেশের প্রেক্ষিতে বিশ্বনাথ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নুসরাত জাহান মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা আবু তাহির মোহাম্মদ হোসাইনকে বাদ দিয়ে প্রতিষ্ঠানের সহকারী অধ্যাপক মুখলিছুর রহমানকে ‘ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ’ হিসেবে দায়িত্ব প্রদানসহ এডহক কমিটি গঠনের নির্দেশ দেওয়া হয়। এরপর তিনি নিজামুল ইসলামকে সভাপতি, অধ্যক্ষ আবু তাহির মোহাম্মদ হোসাইনকে সদস্য সচিব, নূর উদ্দিনকে অভিভাবক সদস্য এবং এটিএম নূর উদ্দিনকে শিক্ষক প্রতিনিধি করে ৪ সদস্যের কমিটি গঠন করে বোর্ডে প্রেরণ করা হয়। এর প্রেক্ষিতে চলতি ২০২৩ সালের ১০ জানুয়ারী কমিটি অনুমোদন দেওয়া হয়।

অন্যদিকে অধ্যক্ষ তার অপসারণের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে রিট করে গত ৭ জুলাই পর্যন্ত ৬ মাসের স্থগিতাদেশ পেয়ে স্বপদে বহাল থাকেন। ফলে বিধি মোতাবেক এডহক কমিটি চলতি ২০২৩ সালের ১৯ মার্চ কমিটির সিদ্ধান্ত মতে অধ্যক্ষকে ১৯ জুলাই পর্যন্ত ৪ মাসের ছুটি প্রদান করা হয়। এসময় মাদ্রাসার নতুন ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ দেওয়া হয় মাওলানা হরমুজ আলীকে।

এদিকে অধ্যক্ষকে ছুটিতে পাঠিয়ে বিধিমোতাবেক পূর্ন্যাঙ্গ কমিটি নির্বাচনপূর্বক বোর্ডে অনুমোদনের জন্য প্রেরণ করা হয়। একই সময়ে (মার্চে) একটি তদন্ত কমিটির মাধ্যমে অধ্যক্ষের নানা অনিয়ম ও দুর্নীতি তদন্তপূর্বক সত্যতা প্রমানিত হলে মাদ্রাসা অধিদপ্তর ও শিক্ষাবোর্ড এবং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কয়েকটি তদন্ত প্রতিবেদনের প্রেক্ষিতে চলতি ২০২৩ সালের ৬ জুলাই এডহক কমিটি অধ্যক্ষকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করে এবং এমপিও স্থগিতের জন্য মাদ্রাসা শিক্ষা অধিদপ্তরে প্রেরণ করে। বর্তমানে বিষয়টি মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড ও অধিদপ্তরের সিদ্ধান্তের জন্য আপেক্ষমান রয়েছে। ঠিক সে সময় গত ২০ জুলাই মেয়াদ শেষ হওয়া একটি আদেশের কপি নিয়ে রোববার (৩ সেপ্টেম্বর) মাদ্রাসায় গিয়ে হাজির হন সাময়িক বরখাস্তকৃত অধ্যক্ষ আবু তহির মোহাম্মদ হোসাইন।

মাদ্রাসার বরখাস্ত হওয়া অধ্যক্ষ আবু তাহির মোহাম্মদ হোসাইন বলেন, হাই কোর্টের আদেশ ও শিক্ষা বোর্ডের আদেশ কপি নিয়ে মাদ্রাসার অফিস কক্ষে প্রবেশ করতে চাইলে আমাকে তারা অন্যায়ভাবে বাঁধা দেন। শিক্ষাবোর্ডের আইন অনুযায়ী মাদ্রাসার এডহক কমিটি কোন ভাবেই আমাকে (অধ্যক্ষ) বরখাস্ত করতে পারেনা বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

মাদ্রাসার এডহক কমিটির সাবেক সভাপতি নিজামুল ইসলাম ও ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ হরমুজ আলী বলেন, মাদ্রাসার ১৪ লাখ টাকার হিসেব না দেওয়ায় অধ্যক্ষকে সম্প্রতি সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। রোববার (৩ সেপ্টেম্বর) মেয়াদোত্তীর্ন আদেশ কপি নিয়ে মাদ্রাসার অফিস কক্ষে ঢুকতে চাইলে তাকে প্রবেশ করতে বাঁধা দেওয়া হয়েছে।

এব্যাপারে বিশ্বনাথ থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) মোহাম্মদ জাহিদুল ইসলাম বলেন, বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে দেখা হচ্ছে, পরিস্থিতিও পুলিশের নিয়ন্ত্রনে রয়েছে। উভয় পক্ষের কাগজপত্রাদি দেখে পরবর্তি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার