• বুধবার   ৩০ নভেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৬ ১৪২৯

  • || ০৫ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

সর্বশেষ:
শান্তিগঞ্জে সুপেয় পানি পাবে ১৬০০ পরিবার নিউইয়র্কের পুলিশ অফিসার বড়লেখার তৌফিকের কৃতিত্ব শেষ ষোলোয় টিকে থাকতে রাতে মাঠে নামছে আর্জেন্টিনা জঙ্গি ছিনতাই: আরও এক পুলিশ সদস্য বরখাস্ত সুনামগঞ্জ সীমান্ত থেকে দেড় কোটি টাকার তক্ষক জব্দ ঠান্ডায় হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে বাড়ছে শিশু রোগীর চাপ হবিগঞ্জে ভুলে ভরা প্রশ্নপত্রে বার্ষিক পরীক্ষা!
১৬

ছয় বছরে ‘শূন্য থেকে বিলিয়নিয়ার’ পাক সেনাপ্রধানের স্ত্রী

সিলেট সমাচার

প্রকাশিত: ২২ নভেম্বর ২০২২  

পাকিস্তানের সেনাপ্রধান জেনারেল কামার জাভেদ বাজওয়া ছয় বছর দায়িত্ব পালন শেষে আগামী ২৯ নভেম্বর অবসরে যাচ্ছেন। এর ঠিক আগেই প্রকাশ হলো বিস্ফোরক তথ্য। জানা গেছে, এই ছয় বছরের মধ্যে বাজওয়ার স্ত্রী আয়শা আমজাদ শূন্য থেকে হয়েছেন বিলিয়নিয়ার। স্বামী বাজওয়া সেনাপ্রধান হওয়ার আগে আয়েশার কোনো সম্পদ না থাকলেও তিনি এখন হাজার হাজার কোটি রুপির মালিক। খবর এনডিটিভির।

শুধু স্ত্রীই নয় বাজওয়ার পরিবারের অন্যান্য সদস্যরাও হয়েছেন কোটিপতি।  

ফ্যাক্টফোকাস নামে একটি ওয়েবসাইট থেকে এসব তথ্য প্রকাশ করা হয়। এটি পাকিস্তানভিত্তিক একটি অনুসন্ধানীমূলক প্রতিষ্ঠান। তারা ২০১৩ সাল থেকে ২০২১ সাল পর্যন্ত সেনাপ্রধান কামার জাভেদ বাজওয়ার পরিবারের আর্থিক সম্পদের পরিমাণ এবং সেগুলোর ওপর দেওয়া ট্যাক্সের তথ্য প্রকাশ করেছে।

এই প্রতিষ্ঠানটির দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, পাক সেনাপ্রধানের পরিবারের জ্ঞাত সম্পদের পরিমাণ ১২.৭ বিলিয়ন পাকিস্তানি রুপি। তারা তাদের তথ্যে বলেছে, ২০১৬ সালে জেনারেল বাজওয়ার স্ত্রী আয়েশার কোনো সম্পদই ছিল না। এখন তিনি ২.২ বিলিয়ন রুপির মালিক।

পাকিস্তানভিত্তিক এ প্রতিষ্ঠানটি তাদের তথ্যে আরও জানিয়েছে, ২০১৮ সালের অক্টোবরে বাজওয়ার পুত্রবধু মানহুর সাবিরের কোনো সম্পদ ছিল না। কিন্তু মাত্র এক মাসের ব্যবধানে ২০১৮ সালের নভেম্বরে তিনি বিলিয়নিয়ার বনে যান। অন্যদিকে মানহুরের বোন হামনা নাসের এক বছরের মধ্যে বিলিয়নিয়ার হন। এছাড়া বাজওয়ার বেয়াই সাবির আহমেদের সম্পদও অস্বাভাবিক রকম বেড়েছে। ২০১৩ সালে সাবির মিলিয়নিয়ার থাকলেও কয়েক বছরের ব্যবধানে তিনি বিলিয়নিয়ারের তালিকায় নাম লেখান।

এদিকে জেনারেল বাজওয়ার পরিবারের সম্পদের পরিমাণ ও ট্যাক্সের বিষয়টি ফাঁস হওয়ার পর পাকিস্তানের অর্থমন্ত্রী ইশাক দার এটি তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন। শুধু তাই নয় তিনি আরও নির্দেশ দিয়েছেন— ২৪ ঘণ্টার মধ্যে যেন খুঁজে বের করা হয় কিভাবে এসব তথ্য ফাঁস হলো।

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার