• বুধবার   ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ ||

  • আশ্বিন ১৩ ১৪২৯

  • || ০১ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

সর্বশেষ:
শাবিপ্রবিতে ১ থেকে ৯ অক্টোবর পর্যন্ত ছুটির ঘোষণা জেলা পরিষদের সদস্য প্রার্থী তানভীরের মতবিনিময় সভা গুলিতে নয়, ইটের আঘাতে যুবদল কর্মী শাওনের মৃত্যু: এসপি সাকিব-মুশফিক ছাড়া প্রথম সিরিজ জয় এশিয়া কাপ খেলতে সিলেটে জাহানারা-জ্যোতিরা নবির কাছে সিংহাসন হারালেন সাকিব বিশ্বনাথে শেখ হাসিনার জন্মদিনে আ’লীগের কেক কাটা
১২

সংবাদ সম্মেলনে দাঁড়িয়ে থাকা নিয়ে যা বললেন সাবিনা

সিলেট সমাচার

প্রকাশিত: ২২ সেপ্টেম্বর ২০২২  

নেপালকে হারিয়ে বুধবার দুপুরে দক্ষিণ এশিয়ার মুকুট জিতে দেশে ফিরে বাংলাদেশ নারী ফুটবল দল। 


দেশে ফেরার পর ছাদখোলা বাসে করে ভিআইপিদের মতো রাস্তার মোড়ে মোড়ে ফুলেল শুভেচ্ছায় সিক্ত হয়ে সম্মানের সঙ্গেই বাফুফে ভবনে পৌঁছায় সাবিনা খাতুনের নেতৃত্বাধীন নারী দলটি। 

বাফুফে ভবনে আসার পর সাংবাদিক সম্মেলনে অংশ নেন সাফজয়ী বাংলাদেশ ফুটবল দলের অধিনায়ক সাবিনা খাতুন ও কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন। সেই সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে) সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন, সিনিয়র সহ-সভাপতি আব্দুস সালাম মুর্শেদীসহ বাফুফের একাধিক কর্মকর্তা। 


কর্মকর্তাদের ভিড়ে সংবাদ সম্মেলনের মঞ্চে অধিনায়ক সাবিনা খাতুন চেয়ারে বসার সুযোগ পেলেও দাঁড়িয়ে থাকতে হয় কোচ গোলাম রব্বানী ছোটনকে। অধিনায়কের প্রশ্ন-উত্তর পর্ব শেষে সাংবাদিকরা যখন কোচ ছোটনকে প্রশ্ন করেন তখন সৌজন্যতা বশতই নিজের চেয়ার ছেড়ে দিয়ে কোচকে বসে উত্তর দেওয়ার সুযোগ করে দেন সাবিনা। 

যার অক্লান্ত পরিশ্রমে বাংলাদেশ নারী ফুটবল দল সাফ চ্যাম্পিয়ন হলো সেই কোচকেই শিরোপা জয়ের পর সংবাদ সম্মেলনে চেয়ারে বসতে না দেওয়ায় দেশজুড়ে কঠোর সমালোচনা হয়। 


শুধু তাই নয়, সংবাদ সম্মেলনের মাঝপথে সেখানে উপস্থিত হন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল এমপি ও ক্রীড়া সচিব মো. মেজবাহ উদ্দিন।  

ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী ও ক্রীড়া সচিবকে জায়গা ছেড়ে দিতেই সংবাদ সম্মেলনে চেয়ার ছেড়ে দিয়ে দাঁড়িয়ে থাকতে হয় সাফজয়ী দলের অধিনায়ক সাবিনা ও কোচ ছোটনকে। তাদের দাঁড়িয়ে থাকার এই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হতেই সমালোচনার ঝড় বয়ে যায়। 


সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে যাওয়া সেই ছবি শেয়ার করে সাফজয়ী বাংলাদেশ নারী দলের অধিনায়ক লিখেছেন- আমার বিনীত অনুরোধ, এটাকে কেউ নেতিবাচক দৃষ্টিতে দেখবেন না। নেতিবাচক চোখে দেখে দয়া করে আমাদের জীবনের সেরা দিনটি নষ্ট করবেন না। আসুন সবাই ইতিবাচক হই এবং উপভোগ করি। শুধু বলতে চাই, আমরা আপনাদের ভালোবাসি।


ভাইরাল হওয়া সেই ভিডিওর কমেন্টে আমিরুল ইসলাম বাবুল নামে এক ফেসবুক ব্যবহারকারী লিখেছেন-যাই ঘটুক,যারা সফলতা এনেছে তাদের দাঁড় করিয়ে রেখে নির্লজ্জের মতো সংবাদ সম্মেলন জাতির কাছে কি বার্তা দেয়।

আহমেদ জুনায়েদ নামে একজন লেখেন-এই সোনার বাংলায় আরও কতো কিছু দেখতে হবে, যাদের জন্য এই আয়োজন, তাদের জন্য দুইটা চেয়ার মেনেজ করতে পারলো না, হায়রে বাফুফে!

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার