• শনিবার   ০১ অক্টোবর ২০২২ ||

  • আশ্বিন ১৬ ১৪২৯

  • || ০৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

সর্বশেষ:
শাবিপ্রবিতে ১ থেকে ৯ অক্টোবর পর্যন্ত ছুটির ঘোষণা জেলা পরিষদের সদস্য প্রার্থী তানভীরের মতবিনিময় সভা গুলিতে নয়, ইটের আঘাতে যুবদল কর্মী শাওনের মৃত্যু: এসপি সাকিব-মুশফিক ছাড়া প্রথম সিরিজ জয় এশিয়া কাপ খেলতে সিলেটে জাহানারা-জ্যোতিরা নবির কাছে সিংহাসন হারালেন সাকিব বিশ্বনাথে শেখ হাসিনার জন্মদিনে আ’লীগের কেক কাটা
৯৭

জাতীয় দলে ‘ওপেন’ করবেন মুশফিক!

সিলেট সমাচার

প্রকাশিত: ১৭ আগস্ট ২০২২  

আসন্ন এশিয়া কাপের জন্য ১৭ সদস্যের দল ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। এই স্কোয়াডে ব্যাটসম্যানের ছড়াছড়ি থাকলেও এনামুল হক বিজয় আর পারভেজ হোসেন ইমন ছাড়া নেই স্বীকৃত কোনো ওপেনার। এ অবস্থায় ওপেন করতে দেখা যেতে পারে মুশফিকুর রহিমকে!

এশিয়া কাপে ওপেনারের বিকল্প ভাবনায় আছেন শেখ মেহেদী হাসান। সাকিব আল হাসানকেও ভাবনায় রেখেছে টিম ম্যানেজমেন্ট। তবে মেহেদী আর সাকিবকে ছাপিয়ে মুশফিকের নামই বেশি আলোচনায়। 

অথচ আন্তর্জাতিক টি-২০তে মাত্র ১ বার ওপেন করার অভিজ্ঞতা আছে মুশফিকের। আফগানিস্তানের বিপক্ষে সে ম্যাচে এই ডানহাতি করেন ৫ রান। আসন্ন এশিয়া কাপে ওপেন করলে পাওয়ার-প্লের ফায়দা দিতে হবে তার, সঙ্গে সামর্থ্য রাখতে হবে ১২০ বল খেলার।

এসব নিয়েই কাজ শুরু করেছেন মুশফিক। আজ বুধবার ক্রিকেট গুরু নাজমুল আবেদীন ফাহিমকে নিয়ে নিজের ব্যাটিং ঝালিয়ে নেন তিনি। মুশফিককে ব্যাটিং অনুশীলন করিয়ে মিরপুরে সংবাদমাধ্যমকে ফাহিম বলেন, ‘আসলেই (ওপেন) করবে কি না জানি না। কারণ, দুজন স্বীকৃত ওপেনার আছে আমাদের দলে।’

তিনি আরো বলেন, ‘আলোচনাটা যদি মুশফিককে নিয়ে বেশি করি, ওই দুজন খুব একটা স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করবে না। আমার মনে হয় দুজনকেই ব্যাক করা উচিত, যেন ওরা ভালো করতে পারে। সেটা পারলে সেরা হবে। যদি ওদের মধ্যে কেউ ব্যর্থ বা অসুস্থ হয় তাহলে হয়তো মেক শিফট অপশনের ব্যাপার আসবে।’

তবে মুশফিক যখন বিকেএসপির ছাত্র ছিলেন তখন ওপেন করতেন বলে জানান ফাহিম। তার ভাষায়, ‘মুশফিক যখন খেলা শুরু করেছিল বিকেএসপিতে ওপেনার হয়েই এসেছে, এটা আমি জানি। পরে ক্যারিয়ারের কারণে ও মিডল অর্ডারে চলে এসেছে।’

এরপর তিনি বলেন, ‘অবশ্যই ও মিডল অর্ডারের একজন ব্যাটসম্যান। ওপেন করাটা সবসময় চ্যালেঞ্জিং ব্যাপার। আমি জানি না ও নিজেকে কতটা প্রস্তুত করতে পারবে। কিন্তু ওর অভিজ্ঞতাটা কাজে লাগবে। যদি দরকার হয় মুশফিক ও অন্যরাও আছে।’

সম্প্রতি মুশফিকের টি-২০ ব্যাটিং সামর্থ্য নিয়ে বেশ প্রশ্ন উঠেছে। প্রয়োজনের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে রান তুলতে পারছেন না তিনি। এশিয়া কাপ দিয়ে সেই আক্ষেপ ঘোচাতে চান এই অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান। এজন্য নেটে পাওয়ার হিটিং অনুশীলন শুরু করেছেন।

ফাহিম বলেন, ‘মুশফিকের ক্ষেত্রে আমি খুব আশাবাদী। আশা করেছিলাম জিম্বাবুয়েতে পাওয়ার হিটিংয়ের সুযোগ নেবে, নেওয়ার সুযোগ ছিল। প্রথম ম্যাচে ফিফটি করেছিল। এমন একটা জায়গায় ছিল পাওয়ার হিটিং করতে পারতো। কেন সুযোগটা নেয়নি আমি জানি না।’ 

ফাহিম যোগ করেন, ‘আজকে দেখলাম কিছু ভালো শট খেলেছে। আমি নিশ্চিত সামনে আর দু-চারদিন অনুশীলন করলে আরো বেশি আয়ত্বে আসবে। ও হয়তো আরো ইফেক্টিভলি ওভার দ্য টপ খেলতে পারবে। টি-২০তে চার ছক্কা মারার যে ব্যাপার, সেটা সফল হবে।’

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার