• সোমবার   ১৮ অক্টোবর ২০২১ ||

  • কার্তিক ৩ ১৪২৮

  • || ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

সর্বশেষ:
টাঙ্গুয়ার হাওরের ময়লা পরিষ্কার করলেন ডিসি মৌলভীবাজার ও শ্রীমঙ্গলে ১৪ ঘণ্টার জন্য গ্যাস সরবরাহ বন্ধ সিলেটসহ ৩৫ জেলায় বিজিবি মোতায়েন শাবিপ্রবি শিক্ষার্থীদের করোনার টিকাদান কার্যক্রম শুরু লিডিং ইউনিভার্সিটির ক্যাম্পাসেই মিলছে টিকা সিলেটে শান্তিপূর্ণভাবে প্রতিমা বিসর্জন মৌলভীবাজারে পাশাপাশি মসজিদ-মন্দির, সম্প্রীতির অনন্য নিদর্শন

ব্যাঙের ছাতার মতো গড়ে উঠছে নামবিহীন ইটভাটা

সিলেট সমাচার

প্রকাশিত: ১৩ ডিসেম্বর ২০২০  

পটুয়াখালীতে বিভিন্ন নদীর তীরে ব্যাঙের ছাতার মতো অপরিকল্পিতভাবে গড়ে উঠছে ইটভাটা। ভাটায় ইট পোড়ানোর কালো ধোঁয়ায় বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে পরিবেশ। বিরূপ প্রভাব পড়ছে মানবদেহে।

সরেজমিনে দেখা গেছে, কলাপাড়া উপজেলার চাকামইয়া গ্রামে বিসমিল্লাহ ব্রিকস, সদর উপজেলার লোহালীয়া নদীর তীরে দুটি ইটভাটা, বাউফল উপজেলার নাজিরপুর, দুমকি-বগা প্রধান সড়কের পাশে নামবিহীন অসংখ্য ইটভাটায় প্রতিনিয়ত ব্যবহৃত হচ্ছে কৃষিজমি, নদীর তীর ও লোকালয়ের মাটি, পোড়ানো হচ্ছে কাঠ। কাঁলো ধোয়া ও বিষাক্ত বর্জ্যে বিপন্ন হচ্ছে পরিবেশ।

নাম ছাড়া এসব ইটভাড়া স্থাপন করা হচ্ছে লোকালয়, কৃষি জমি, নদীর তীরে। পোড়ানো হচ্ছে উর্বর জমি, নদীর তীরের মাটি ও বনের কাঠ

পটুয়াখালী সিটিজেন হেলথ কমপ্লেক্সের চিকিৎসক ডা. মিঠুন চন্দ্র বলেন, অবৈধ ইটভাটায় সৃষ্ট দূষণে বয়স্ক ও শিশুরা সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। ইটভাটার কালো ধোঁয়ার কারণে মানুষের ফুসফুসে সমস্যা, শ্বাসকষ্ট ও ঠাণ্ডাজনিত নানা রোগ বৃদ্ধি পাচ্ছে।

সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক) পটুয়াখালীর সাবেক নেতা সোলায়মান হোসেন বলেন, পটুয়াখালীর ইটভাটাগুলোতে অবাধে পোড়ানো হচ্ছে জ্বালানি কাঠ। এতে উজাড় হচ্ছে বন। আইনে নিষেধ থাকলেও বেশিরভাগ ভাটা স্থাপন করা হয়েছে লোকালয়, কৃষি জমি, নদীর তীরে। যা মানুষ ও প্রাণীর জন্য ক্ষতিকর।

পটুয়াখালী জেলা প্রশাসন সূত্র জানিয়েছ, পটুয়াখালীর বিভিন্ন স্থানে অবৈধ ইটভাটার সন্ধান পাওয়া গেছে। এসব ইটভাটা পরিবেশের জন্য হুমকি স্বরূপ। ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে অধিকাংশ ইটভাটা ধ্বংস করা হয়েছে। অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার