বৃহস্পতিবার   ১৭ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ২ ১৪২৬   ১৭ সফর ১৪৪১

শিক্ষাকে আনন্দের সাথে গ্রহণ করতে হবে: জেলা প্রশাসক

সিলেট প্রতিনিধি

সিলেট সমাচার

প্রকাশিত : ০৯:০৩ পিএম, ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯ বুধবার

সিলেটের জেলা প্রশাসক এম. কাজী এমদাদুল ইসলাম বলেছেন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের পরিবেশ হবে শিশুবান্ধব। শিক্ষকদেরকে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে বন্ধুর মতো আচরণ করতে হবে; যাতে তারা ভীতির মধ্যে না থাকে। শিক্ষার্থীদের কাছে শিক্ষা সহজ ও আনন্দদায়ক করে তুলতে হবে। শিক্ষার্থীরা যদি আনন্দ না পায়, তবে তারা প্রতিষ্ঠানে নিয়মিত আসবে না। তাছাড়া শিক্ষকরা তাদের কাজ আন্তরিকতার সাথে না করলে শিক্ষার উন্নয়নে সরকারের প্রচেষ্টাও সফল হবে না। এ জন্য শিক্ষকদের আন্তরিকভাবে দায়িত্ব পালন করতে হবে। নিশ্চিত করতে হবে শিক্ষার আনন্দদায়ক পরিবেশ।

আজ বুধবার বিকেলে সিলেটের বিয়ানীবাজার সিনিয়র কামিল মাদ্রাসায় শিক্ষক, অভিভাবক ও শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে অনুষ্টিত মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে এম. কাজী এমদাদুল ইসলাম বলেন, দেশকে এগিয়ে নিতে ভালো শিক্ষার্থীর পাশাপাশি ভালো মানুষ হতে হবে। আর ভালো মানুষ হতে হলে জ্ঞানার্জনের বিকল্প নেই। তিনি বলেন, নিয়মিত ক্লাসের মাধ্যমেই ভালো ফলাফল করা সম্ভব। আর নিয়মিত ক্লাসের জন্য শিক্ষার্থীর পাশাপাশি শিক্ষককেও প্রতিষ্ঠানে নিয়মিত উপস্থিত থাকতে হবে।

মাদ্রাসা পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি, বিয়ানীবাজার পৌরসভার মেয়র মো. আব্দুস শুকুরের সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী আরিফুর রহমান।
সভায় উপস্থিত ছিলেন বিয়ানীবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা অবনী শংকর কর, সহকারি কমিশনার (ভূমি) জেসমিন আক্তার, বিয়ানীবাজার সিনিয়র কামিল মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা আব্দুলাহিল বাকী চৌধুরী, ভাইস প্রিন্সিপাল মাওলানা আবুল হাসেম, বিয়ানীবাজার জামেয়া ইসলামিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রিন্সিপাল মাওলানা জাকির হোসেন, বিয়ানীবাজার পৌরসভার কাউন্সিলর নাজিম উদ্দিনসহ মাদ্রাসার শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও অভিভাবকবৃন্দ।

এর আগে দুপুরে জেলা প্রশাসক এম. কাজী এমদাদুল ইসলাম বিয়ানীবাজার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়, কুড়ারবাজার ইউনিয়নের কমিউনিটি ক্লিনিক ও ভূমি অফিস, দুর্যোগ সহনীয় গৃহ নির্মাণ প্রকল্প, জমি আছে ঘর নাই প্রকল্প পরিদর্শন করেন।