• শুক্রবার   ২৮ জানুয়ারি ২০২২ ||

  • মাঘ ১৫ ১৪২৮

  • || ২৩ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

সর্বশেষ:
টোঙ্গায় আবারও শক্তিশালী ভূমিকম্প টি-টোয়েন্টি থেকে ৬ মাসের বিরতি নিলেন তামিম শাবিতে অবরোধ তুলে নিলেন শিক্ষার্থীরা, খুলেছে অফিস শাবি ভিসিকে সরানো হবে কিনা আচার্যের বিষয়: শিক্ষামন্ত্রী দোয়ারাবাজারে স্বতন্ত্র প্রার্থী তানভীর আশরাফীর জয়
৮১

জাফলং বল্লাঘাটে অবৈধ ভাবে পাথর উত্তোলন, বসতভিটা

সিলেট সমাচার

প্রকাশিত: ১৬ মার্চ ২০২১  

সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলার জাফলং বল্লাঘাট পর্যটন এলাকায় সরকারি ইসিভুক্ত কোয়ারী এলাকা থেকে একটি প্রভাবশালী মহল প্রতিনিয়ত অবৈধ ভাবে বোমা মেশিন দিয়ে পাথর উত্তোলন করছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

পাথর উত্তোলন কাজ অব্যাহত রাখায় হুমকির মুখে পড়েছে বল্লাঘাট নদী সংলগ্ন জামে মসজিদ, বসতভিটা, স্থানীয় ব্যবসা প্রতিষ্ঠানসহ বহুতল বাণিজ্যিক ভবন।

জানা যায়, সম্প্রতি সময়ে স্থানীয় একটি প্রভাবশালী মহলের সহযোগিতায় জাফলং লাখেরপাড় গ্রামের মৃত নুর মিয়ার পুত্র নজরুল ইসলাম ও আবির হোসেনের নেতৃত্বে একটি সুবিধা ভোগী মহল অবৈধ ভাবে পাথর উত্তোলন কাজ চালিয়ে যাচ্ছে।

প্রতিদিন বোমা মেশিন ও শত শত বারকী নৌকা দিয়ে পাথর উত্তোলনের ফলে ঐতিহ্যবাহী বল্লাঘাট নদী সংলগ্ন জামে মসজিদ ও পার্শ্ববর্তী আদিবাসী সম্প্রদায়ের বসতভিটা, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান এবং বহুতল বাণিজ্যিক ভবন অনেকটা হুমকির মুখে পড়েছে।

এখানে জেলা পরিষদের পর্যটন কেন্দ্র থাকায় প্রতিদিন হাজার হাজার ছোট বড় ও শিশু-কিশোর পর্যটকগন বল্লাঘাট হয়ে মসজিদের নীচ দিয়ে নদী ভ্রমন করতে জাফলংয়ের জিরো পয়েন্ট যায়।

অবৈধ ভাবে পাথর উত্তোলন করে মসজিদের নীচের রাস্তায় বালু-পাথর মজুদ করায় এই রাস্তায় দিয়ে জনসাধারণকে যাতায়াতে নানা দূভোর্গ ও প্রতিবন্ধকতা পোহাতে হচ্ছে।  

স্থানীয় ব্যবসায়ী মো. জালাল উদ্দিন জানান, সরকারী ইসিভূক্ত এলাকা থেকে পাথর উত্তোলন বন্ধ করতে গোয়াইনঘাট উপজেলা প্রশাসনকে অবগত করা হয়েছে। প্রশাসন মাঝে মধ্যে অভিযান পরিচালনা করলে সাময়িক ভাবে কিছু সময় কাজ বন্ধ রাখা হয়, আবার পুনরায় রাতের অন্ধকারে বোমা মেশিন দিয়ে পাথর উত্তোলন কাজ চলতে থাকে।

তিনি আরো বলেন, এই অবস্থা চলতে থাকলে বল্লাঘাট জামে মসজিদ, পার্শ্ববর্তী অনেকের ব্যক্তি মালিকানাধীন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানসহ বহুতল বাণিজ্যিক ভবন নদী গর্ভে বিলীন হয়ে যাবে।

তিনি জাফলং এলাকার পর্যটন শিল্পের উন্নয়ন ও বিকাশে ইসিভূক্ত নদী এলাকা থেকে অবৈধ পাথর উত্তোলন বন্ধ করতে প্রশাসনসহ স্থানীয় সচেতন মহলকে এগিয়ে আসার আহবান জানান।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত নজরুল ইসলাম ও আবির হোসেনের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তাদের বক্তব্য পাওয়া যায় নাই।  

এ ব্যাপারে গোয়াইনঘাট উপজেলা নিবার্হী অফিসার তাহমিলুর রহমান বলেন, সরকারী ইসিভূক্ত কোয়ারী এলাকা থেকে পাথর উত্তোলন বন্ধ করতে প্রশাসন বিভিন্ন সময়ে অভিযান পরিচালনা করে আসছে।

তিনি বলেন, আমরা অভিযোগ পেয়েছি রাতের বেলায় বোমা মেশিন দিয়ে অবৈধ ভাবে পাথর উত্তোলন করা হয়। সরকারী ইসিভূক্ত কোয়ারী এলাকা থেকে পাথর উত্তোলন বন্ধ করতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার