• সোমবার   ৩০ জানুয়ারি ২০২৩ ||

  • মাঘ ১৬ ১৪২৯

  • || ০৭ রজব ১৪৪৪

সর্বশেষ:
শ্রীমঙ্গলে অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে অনুদানের চেক বিতরণ বাংলার মানুষের কথা ভেবেই দেশে এসেছি, পালাতে নয়: প্রধানমন্ত্রী মৌলভীবাজারে বিশ্ব কুষ্ঠ দিবস পালিত সিলেটে ভারতীয় চোরাই চিনিসহ কারবারি গ্রেফতার শাবিপ্রবিতে শূন্য আসন পূরণে ফের ডাকা হবে শিক্ষার্থী হবিগঞ্জে দুদকের মামলায় ৩ কর্মকর্তা-কর্মচারী কারাগারে এই সরকারের আমলে মানুষ বিচার পেয়েছে: স্পিকার
২৮

গোয়াইনঘাটে পদ শূন্যতায় ধুকছে প্রাথমিক শিক্ষা: যা বলছে শিক্ষা অফিস

সিলেট সমাচার

প্রকাশিত: ১২ জানুয়ারি ২০২৩  

মিনহাজ উদ্দিন,গোয়াইনঘাট: পদশূন্যতা ধুকছে সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলার প্রাথমিক শিক্ষা অফিস।লোকবল সংকট প্রকট হওয়াতে খোদ অফিস থেকে শুরু করে মাঠ পর্যায়েও এর নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে। এতে করে উপজেলার প্রাথমিক শিক্ষা ব্যবস্থায় দূর্ভোগ ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে শিক্ষক ছাত্র ছাত্রীদের।

লোকবল সংকট বিদ্যমান থাকায় প্রাতিষ্ঠনিক দৈনন্দিন বিভিন্ন কাজে গতিশীলতা চরমভাবে বিঘ্নিত হচ্ছে।গোয়াইনঘাটের উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসে লোকবল সংকটের কারণেই দাপ্তরিক কাজে হিমশিম খাচ্ছেন শিক্ষা কর্মকর্তা কর্মচারীরা।

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস সূত্রে জানা যায় যে,গোয়াইনঘাট উপজেলা শিক্ষা অফিসের জনগুরুত্বপূর্ণ সহকারী শিক্ষা অফিসার পদ ৬টির মধ্যে কর্মরত আছেন মাত্র ২ জন। উচ্চমান সহকারী ১টি পদ থাকলেও শূন্য রয়েছে, অফিস সহকারী ২টি পদের ১টিও নেই।হিসাব সহকারী ১টি পদে ১জন কর্মরত থাকলেও এমএলএসএসের ১টি পদে কোন লোকবল নেই।

এছাড়াও উপজেলার ১৩৬টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মধ্যে প্রধান শিক্ষক পদশূন্য ৪১টি,সহকারী শিক্ষক পদশূন্য ৭৩টি।

এদিকে বিভিন্ন বিদ্যালয় সমুহের প্রধান শিক্ষক পদশূন্য থাকায় বিদ্যালয় সমূহের প্রশাসনিক কার্যক্রম,স্বাভাবিক পাঠদান, শৃঙ্খলা ও একাডেমিক কার্যক্রম বিঘ্নিত হচ্ছে। উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস ও বিভিন্ন বিদ্যালয়ে শিক্ষক স্বল্পতার কারনে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা ব্যবস্হায় স্তবিরতা দেখা দিয়েছে।যে কারণে প্রায় সময়ই দিনের পাশাপাশি সন্ধ্যার পরও শিক্ষা অফিসে কর্মকর্তা কর্মচারীদের কর্মব্যস্ততায় দেখা যায়।

গোয়াইনঘাট উপজেলা সহকারী শিক্ষা অফিসার আশরাফুল আলম জানান,লোকবল সংকটের কারণে আমাদের দৈনন্দিন কাজে কিছুটা ব্যাগ পেতে হচ্ছে, ফিল্ড ওয়ার্কে একাধিক ক্লাস্টার আমাদের দু'জন এ,টি,ওকেই কভার করতে হচ্ছে।উপজেলা সদর থেকে শুরু করে প্রত্তন্ত অঞ্চলেও আমাদের স্কুল ভিজিটসহ শিক্ষা কার্যক্রম দেখাশোনা করতে হয়।

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার প্রতুল চন্দ্র সরকার জানান,উপজেলা শিক্ষা অফিসের লোকবল সংকট দীর্ঘদিনের।লোকবল সংকট দূরীকরণের আমরা এ ব্যাপারে বার বার উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ অবহিত করে আসছি। লোকবল সংকট বিদ্যমান থাকাতে দাপ্তরিক কাজ কর্ম বাস্তবায়নে আমাদের বেগ পেতে হচ্ছে। আশা করি কর্তৃপক্ষ দ্রুত সমাধান করে দিবেন।

গোয়াইনঘাটের উপজেলা নির্বাহী অফিসার তাহমিলুর রহমান বলেন,প্রাথমিক শিক্ষাকে আধুনিক,মানসম্মত ও যুগোপযোগী করে গড়ে তুলতে সরকার আন্তরিক। এ জন্য সারা দেশে সরকারের বিভিন্ন প্রকল্প চলমান আছে। গোয়াইনঘাটের উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের বিদ্যমান লোকবল সংকট দূরীকরণের ব্যাপারে আমাদের তরফে সরকারের সংশ্লিষ্ট দপ্তরে যোগাযোগ করা হয়েছে, আশা করি দ্রুত বিষয়টি সমাধান হয় যাবে।

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার