• বুধবার   ১০ আগস্ট ২০২২ ||

  • শ্রাবণ ২৬ ১৪২৯

  • || ১১ মুহররম ১৪৪৪

সর্বশেষ:
জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে বঙ্গবন্ধু রচিত বই বিতরণ অনুষ্ঠান সম্পন্ন সাকিবকে নোটিশ পাঠাল বিসিবি সিলেটের শ্রেষ্ঠ এএসআই মোহাম্মদ অলিউল হাসান
১৫

শাবিপ্রবির সেই গাজী কালুর টিলায় জ্বলছে আলো

সিলেট সমাচার

প্রকাশিত: ৫ আগস্ট ২০২২  

গত ২৫ জুন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) লোকপ্রশাসন বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী বুলবুল আহমেদ ক্যাম্পাসের অভ্যন্তরে গাজী কালুর টিলায় ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে খুন হন। সেই থেকে আলোচনা-সমালোচনার তুঙ্গে ছিল এই টিলা।

বুলবুলের মৃত্যুর পর থেকে শিক্ষার্থীরদের নিরাপত্তা নিয়ে জনমনে জেগেছে নানান প্রশ্ন, নিরাপত্তা নিয়ে দেখা দিয়েছে শঙ্কা। এ কারণে ঘটনার পর থেকে আন্দোলন, অবরোধ ও বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করে নিরাপত্তা জোরদারের দাবি জানিয়ে আসছেন শিক্ষার্থী, বিভিন্ন সাংস্কৃতিক সংগঠন ও রাজনৈতিক সংগঠনগুলো। তাদের দাবির প্রেক্ষিতে নিরাপত্তা জোরদার করতে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিকল সিসিটিভি সংস্কার, নির্জন ও অন্ধকার জায়গাগুলোতে আলোর ব্যবস্থা করেছে প্রশাসন।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বুলবুল হত্যার পর ক্যাম্পাসে লাগানো ৭২টি সিসিটিভি ক্যামেরার মধ্যে বিকল থাকা ৫৩টি ক্যামেরা সচল করা হয়েছে। এছাড়া ক্যাম্পাসের অন্ধকারাচ্ছন্ন জায়গাগুলোতে সৌরবাতি লাগানো হচ্ছে। এরই অংশ হিসেবে বুলবুল হত্যার ঘটনাস্থলে ২৫ ওয়াটের একটি সৌরবাতি স্থাপন করা হয়েছে। সন্ধ্যার পর বাতিটি জ্বলে ওঠে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক শিক্ষার্থী জানান, বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেতরের বেশ কিছু টিলা সংলগ্ন স্থানে সড়কবাতি না থাকায় সন্ধ্যার পর থেকে এসব এলাকা অন্ধকারাচ্ছন্ন থাকে। এতে শিক্ষার্থীরা সন্ধ্যার পর সেসব এলাকা পর হওয়ার সময় ছিনতাইয়ের শিকার হচ্ছেন। তাই দীর্ঘদিন ধরে শিক্ষার্থীরা এসব স্থানে সড়কবাতি স্থাপনের দাবি জানিয়ে আসছিলেন। প্রশাসন হয়ত মনে করেছে এখনই সময় সে সংকট দূর করার।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান প্রকৌশলী সৈয়দ হাবিবুর রহমান বলেন, আমরা বুলবুল হত্যার ঘটনাস্থলের প্রায় ১০ ফুট দূরে ২৫ ওয়াটের একটি সৌরবাতি স্থাপন করেছি। বর্তমানে এর আলো কতোটুকু বিস্তৃত হচ্ছে তা পর্যবেক্ষণ করছি। তা পর্যালোচনা করে কর্তৃপক্ষের অনুমতি সাপেক্ষে আরও সৌরবাতি স্থাপন করা হবে। আশাকরি এভাবে ক্যাম্পাসে আলোর স্বল্পতার সমাধান করা যাবে।

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার