• বৃহস্পতিবার   ২১ অক্টোবর ২০২১ ||

  • কার্তিক ৬ ১৪২৮

  • || ১৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

সর্বশেষ:
সুনামগঞ্জ পৌরসভার উদ্যোগে সম্প্রীতির সমাবেশ অনুষ্ঠিত সিলেটে করোনায় শনাক্তের হার ০.৮৩ সিলেট থেকে স্পেনে গিয়েই স্বামীকে অচেতন করে স্ত্রীর চম্পট! মধ্যরাতে এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে হঠাৎ তল্লাশি জুড়ীতে ঈদে মিলাদুন্নবী (সাঃ) উদযাপিত সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি সমুন্নত রাখতে সিলেটে সৌহার্দ্য বৈঠক

জীবন থেকে যাদের ‘আনফ্রেন্ড’ করা জরুরি

সিলেট সমাচার

প্রকাশিত: ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১  

জীবন চলার পথে আমাদের অনেকের সঙ্গেই বন্ধুত্ব হয়ে থাকে। এদের মধ্যে কারো কারো সঙ্গে থাকে ঘনিষ্ঠতা। তবে বন্ধুত্ব নির্বাচনেও হতে হবে সতর্ক। কারণ  এমন কিছু মানুষ আছে যাদের আপনার জীবনের জন্য ভালো মনে হতে পারে, কিন্তু হয় তার বিপরীত। কারণ তাদের এমন কিছু নেতিবাচক প্রভাব থাকে যা আপনি হয়তো বুঝতে পারেন না।

তাই আপনি কি এখনো ভুল মানুষের সঙ্গেই বন্ধুত্বে রয়েছেন কিনা তা খুঁজে বের করা জরুরি। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক এমন পাঁচ ধরনের মানুষের সম্পর্কে, যাদের সঙ্গে বন্ধুত্ব রাখবেন না। অর্থাৎ জীবন থেকে তাদের ‘আনফ্রেন্ড’ করা জরুরি।

নেতিবাচক স্বভাব

যারা সারাক্ষণ গ্লাসের অর্ধেক খালি দেখেন তাদের থেকে দূরে থাকুন। কারণ এর একটি বড় নেতিবাচক প্রভাব রয়েছে যা আপনি দূর করতে পারবেন না। যদি সেই ব্যক্তির সঙ্গে কথা বললে তা সব সময় আপনাকে হতাশ বা অবসন্ন করে রাখে তবে বুঝবেন, তার সঙ্গে বন্ধুত্ব ছিন্ন করার সময় এসেছে।

প্রতিযোগী স্বভাব

প্রতিযোগিতামূলক হওয়া ক্ষতিকর নয় কিন্তু এমন কিছু লোক আছে যারা সবসময় আপনাকে পরাজিত করার এবং আপনার সঙ্গে প্রতিযোগিতা করার চেষ্টা করে। আপনার এমন লোকের প্রয়োজন নেই কারণ তাদের মধ্যে শক্তিশালী নেতিবাচক প্রভাব রয়েছে এবং এটি আপনাকে নানাভাবে বিরক্ত করতে পারে।

খোঁটা দেওয়ার স্বভাব

এমন ধরনের মানুষ আছে যারা আপনার জন্য অল্পকিছু করলেও তার প্রতিদান আশা করতে থাকে। হয়তো তারা আপনাকে একবেলা দাওয়াত করে খাইয়েছে, এরপর আপনাকে বারবার সেকথা মনে করিয়ে দিতে থাকবে। এভাবে একবার কিংবা দুইবার বললে ঠিক আছে কিন্তু বারবার বলাটা স্বাভাবিক নয়। যারা আপনার জন্য কোনোকিছু করে তার খোঁটা দিতে থাকে, তাদের সঙ্গে বন্ধুত্ব রাখবেন না।

আমি, আমি এবং আমি

আপনি কারো থেরাপিস্ট নন! যদি কেউ আপনাকে ফোন করে বা দেখা করে এবং তার জীবনের সমস্যাগুলো সম্পর্কে কথা বলে তাকে সাহায্য করুন। কিন্ত যখন আপনি আপনার সমস্যার কথা বলতে যান তখন সে এড়িয়ে চলে বা গুরুত্ব দেয় না। এমন হলে সেই বন্ধুত্ব বাতিল করুন। যেকোনো সম্পর্ক একটি দ্বিমুখী ট্রাফিক। বন্ধুত্বে উভয় বন্ধু জড়িত থাকে, কেউ একা এটি চালিয়ে যেতে পারে না।

অতিরিক্ত মুডি

সবাই কম বেশি মুডি হয়ে থাকে। কিন্তু আপনার বন্ধু যদি অতিরিক্ত মুডি হয়ে থাকে তবে মুশকিল। সে কখন কী চাইছে তা বুঝতে পারবেন না। আবার অনেক সময় একটুতেই সে আপনার ওপর মনক্ষুন্ন হতে পারে। কোনো কারণ ছাড়াই আপনার ফোন ধরা বন্ধ করে দিতে পারে বা কথা বলা বাদ দিতে পারে। এ ধরনের মানুষ জীবনে প্রয়োজন নেই। কারণ তাকে বুঝতে গিয়ে আপনার অনেকটা সময় নষ্ট হয়ে যাবে। তাই অতিরিক্ত মুডি ধরনের বন্ধু থাকলে তাকে জীবন থেকে বাদ দিন।

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার