• শনিবার   ২৮ মে ২০২২ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৪ ১৪২৯

  • || ২৫ শাওয়াল ১৪৪৩

সর্বশেষ:
তরমুজ ফ্রিজে রাখবেন না যে কারণে হবিগঞ্জ জেলার শ্রেষ্ঠ ইউএনও মাধবপুরের মঈনুল পদ্মাসেতু দাঁড়িয়ে যাওয়ায় বিএনপির হিংসা হচ্ছে বড়লেখায় হত্যা চেষ্টা মামলায় প্রধান শিক্ষক কারাগারে বালি উত্তোলন না করার দাবিতে তাহিরপুরে মানববন্ধন বিশ্বনাথে জেলা আ’লীগের পক্ষ থেকে ত্রাণ বিতরণ করলেন শফিক চৌধুরী
৩২

চায়ের সঙ্গে যেসব খাবার একদম নয়

সিলেট সমাচার

প্রকাশিত: ২৬ এপ্রিল ২০২২  

চায়ের সঙ্গে ‘টা’ কথাটি হরহামেশাই বলে থাকেন অনেকে। আড্ডা, আপ্যায়ন, অফিসে কাজের ফাঁকে এককাপ চায়ের সঙ্গে কিছু একটা জুড়ে দিলে সাচ্ছন্দ অনুভব করি আমরা। কখনো বিস্কুট, কখনো পাকোড়া বা কখনো সমুচা। এমন অনেক কিছুই থাকে চায়ের সঙ্গে।

আসলে সবরকম খাবার কি চায়ের সঙ্গে খাওয়া যাবে? কিছু খাবার হয়তো আপনি বেশ তৃপ্তি করে খেলেন, কিন্তু চায়ের সঙ্গে খাওয়ার কারণে সেসব খাবারই হতে পারে প্রচণ্ড ক্ষতিকর। জেনে নিন চায়ের সঙ্গে কোন খাবারগুলো খাওয়া যাবে না-


১. বেসনের খাবার

গরম এককাপ চায়ের সঙ্গে চাপ, বেগুনি, পাকোড়া খেতে বেশ ভালোলাগে। কিন্তু চায়ের সঙ্গে বেসনের তৈরি খাবার খেলে তা স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতির কারণ ডেকে আনতে পারে। কারণ এতে হজমের সমস্যা সৃষ্টি হতে পারে। এটি খাবার থেকে পুষ্টি শোষণে বাঁধা দেয়। তাই চায়ের সঙ্গে এ ধরনের খাবার খাওয়া থেকে বিরত থাকুন।


২. আয়রন সমৃদ্ধ খাবার

আয়রন আমাদের শরীরের জন্য বেশ দরকারি একটি উপাদান। অনেক খাবারে এটি পাওয়া যায়। তবে সেসব খাবার চায়ের সঙ্গে খাওয়া একেবারেই উচিত নয়। কারণ চায়ে রয়েছে ট্যানিন এবং অক্সালেট নামক উপাদান। এগুলো আয়রনযুক্ত খাবার থেকে আয়রন শোষণে বাধা দেয়। সবুজ শাকসবজি, মসুর ডাল, শস্য, বিভিন্ন বাদাম ইত্যাদি দিয়ে তৈরি খাবার চায়ের সঙ্গে খাওয়া থেকে বিরত থাকুন।


৩. হলুদ

হলুদ উপকারী একটি মসলা। কিন্তু এটি চায়ের সঙ্গে কখনো যোগ করবেন না। কারণ চায়ের সঙ্গে হলুদ মিশিয়ে খেলে তা গ্যাস, অ্যাসিডিটি, কোষ্ঠকাঠিন্য ইত্যাদি সমস্যার কারণ হতে পারে। তাই সুস্থ থাকতে চা ও হলুদ একসঙ্গে খাওয়া এড়িয়ে চলুন।


৪. ঠান্ডা খাবার

চা খেতে হয় গরম এদিকে এর সঙ্গে যদি আপনি কোনো ঠান্ডা খাবার যোগ করে খান, তখন হজমে সমস্যা সৃষ্টি হতে পারে। ভিন্ন তাপমাত্রার খাবার একসঙ্গে খাওয়া হলে হজমপ্রক্রিয়া দুর্বল হয়ে যায় এবং বমি ও পেটে সমস্যা দেখা দিতে পারে। তাই চা পান করার আধা ঘণ্টার মধ্যে ঠান্ডা কোনো খাবার না খাওয়াই ভালো।


৫. লেবু

চায়ের সঙ্গে লেবু মেশালে স্বাদ এবং রং আরও আকর্ষণীয় হয়। এটি ওজন কমানোর পানীয় হিসেবেও জনপ্রিয়। কিন্তু চায়ের সঙ্গে লেবু খাওয়া যে উপকারী নয়, সেকথা জানেন কি? কারণ লেবুর রসের সঙ্গে চা মেশানো হলে চা হয়ে ওঠে অ্যাসিডিক প্রকৃতির। যে কারণে লেবু চা খেলে পেট ফুলে থাকতে পারে। সকালে খালি পেটে লেবু চা খেলে তা অ্যাসিডিটির কারণ হতে পারে। তাই লেবু চা যতই পছন্দের হোক না কেন, ক্ষতি এড়াতে তা খাওয়া বন্ধ করুন।

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার