• মঙ্গলবার   ২৫ জানুয়ারি ২০২২ ||

  • মাঘ ১২ ১৪২৮

  • || ২০ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

সর্বশেষ:
শাবির প্রথম বর্ষের ভর্তি কার্যক্রম স্থগিত জৈন্তাপুরে ছেলের হাতে মা খুন! বিশ্ব দরবারে দেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করেছে পুলিশ : প্রধানমন্ত্রী শাবিতে ভিসি’র বাসবভনের সামনে খাটে শুয়ে অনশনের প্রস্তুতি শাবিতে আন্দোলন : ১৬ জন হাসপাতালে জেলা ভোগ্যপণ্য পরিবেশক গ্রুপের সাধারণ সভা পররাষ্ট্রমন্ত্রীর প্রচেষ্টায় সিলেটে হচ্ছে ‘ওয়াসা’
১০০

স্বামীর পরকীয়া ঠেকানোর কার্যকর উপায়

সিলেট সমাচার

প্রকাশিত: ২৯ নভেম্বর ২০২১  

স্বামীকে হারানোর ভয় নারীদের মনে সবসময় থাকে। নারীদের এই ভয়টা বেশি পাওয়ার পেছনেও যথাযথ কারণ রয়েছে। কারণটি হচ্ছে পুরুষেরা সহজেই পরকীয়ার ফাঁদে পা দিয়ে ফেলেন। আবার অনেক পুরুষেরই স্বভাবই একাধিক প্রেম করা। 

স্বামী পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়লে কোনো নারীরই সঠিক জ্ঞান থাকে। রাগ আর ক্ষোভে কোনো না কোনো ভুল করে বসেন। অনেকেই আবার স্বামীকে গালাগালি, চিৎকার চেচামেচি ইত্যাদি করেন। যা একদমই ভুল। কারণ এটি আপনাকে সাময়িক স্বস্তি দিলেও এতে সত্যি কোনো লাভ হয় না।

আপনার স্বামী পরকীয়ায় জড়িয়েছে। এক্ষেত্রে সিদ্ধান্ত নেয়ার আগে আপনাকে কয়েকটি বিষয়ে ভাবতে হবে। আপনি কি স্বামীর প্রেমিকার সঙ্গে মুখোমুখি হতে চান? তাহলে তার প্রেমিকার সঙ্গে কথা বলতে মাথায় রাখুন কিছু জরুরি বিষয়। বিষয়গুলো হলো— 

>> প্রথমত আপনি কি সত্যিই তার মুখোমুখি হতে চাচ্ছেন? আপনি যদি ব্যক্তিগতভাবে তাকে না চিনেন তবে এক বিষয় আর চিনলে ভিন্ন ব্যাপার। ধরে নিন আপনার স্বামী আপনার সঙ্গে যার জন্য বিশ্বাসঘাতকতা করছে সে ইনি নন। মনে করুন তার সঙ্গে কথা বললে আপনার ভালো হবে। 

>> বুঝে শুনে সিদ্ধান্ত নিন। আপনি কি তাকে ফোনে কথা বললে, মেইলে, চিঠি লিখে নাকি সরাসরি দেখা করতে চান? আপনার জন্য ভালো উপায়টিই বেছে নিন।

>> তার সঙ্গে কথা বলার সময় ধিরস্থির থাকুন। এটি খুব কঠিন তবে তা করার জন্য প্রয়োজনে কয়েক দিন বাসায় শান্ত মেজাজে থাকুন। আপনি যদি চিঠি বা মেইলে জানাতে চান তবে বারবার বিষয়টি লিখুন যে পর্যন্ত না আপনার মনমতো হয়।

>> কথা বলতে চাইলে নিরপেক্ষভাবে বলুন। পরিবেশ স্বাভাবিক রাখতে ভাবুন তৃতীয় কোনো পক্ষের সঙ্গে আপনি কথা বলছেন।

>> চিঠিতে লিখে বা কথা বলার সময় নিজের দিকে খেয়াল রাখুন। তাকে দোষ দেয়ার চেয়ে নিজের কথাগুলো বলুন। এমন কোনো প্রশ্ন করবেন না যার উত্তর আপনার জানা আছে।

>> সে যদি আপনাকে সহযোগিতা না করে বা তার কথা আপনার পছন্দ না হলেও আপসেট হবেন না। সে তার খুশিমত যা ইচ্ছা তা করতে পারে এ ব্যাপারে; আপনি কিন্তু এসব করতে পারেন না। তবে আপনি নিজেকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারেন। আপনার নিয়ন্ত্রণ যেন তার কাছে না যায় অর্থাৎ তার কথা বা কাজ যেন আপনাকে প্রভাবিত না করে।

>> আপনার সব চেষ্টা ভেস্তে গেলে আপনি ভুল করেছেন। না আপনি কাউকে কিছু করাতে জোর করতে পারেন না। সে যদি আপনার সঙ্গে কথা বলতে না চায় এ ব্যাপারে আপনার কিছুই করার নেই। 

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার