• বৃহস্পতিবার   ২১ অক্টোবর ২০২১ ||

  • কার্তিক ৬ ১৪২৮

  • || ১৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

সর্বশেষ:
সুনামগঞ্জ পৌরসভার উদ্যোগে সম্প্রীতির সমাবেশ অনুষ্ঠিত সিলেটে করোনায় শনাক্তের হার ০.৮৩ সিলেট থেকে স্পেনে গিয়েই স্বামীকে অচেতন করে স্ত্রীর চম্পট! মধ্যরাতে এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে হঠাৎ তল্লাশি জুড়ীতে ঈদে মিলাদুন্নবী (সাঃ) উদযাপিত সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি সমুন্নত রাখতে সিলেটে সৌহার্দ্য বৈঠক

জার্মান নির্বাচনে পরাজয়ের মুখে মেরকেলের দল

সিলেট সমাচার

প্রকাশিত: ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১  

জার্মানির জাতীয় নির্বাচনে ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। এরই মধ্যে প্রকাশিত হয়েছে সাময়িক ফলও। যেখানে অনেকটাই এগিয়ে রয়েছেন সোশ্যাল ডেমোক্রেটিক পার্টি (এসপিডি)। এবারের নির্বাচনে বিদায়ী চ্যান্সেলর অ্যাঞ্জেলা মেরকেলের দল ক্রিশ্চিয়ান ডেমোক্র্যাটিক ইউনিয়ন (সিডিইউ) এসপিডির চেয়ে ১ দশমিক ৬ শতাংশ ভোটে পিছিয়ে রয়েছে।

জার্মান মিডিয়া ডয়েচে ভেলের খবর অনুযায়ী, রবিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) স্থানীয় সময় রাত সোয়া ১০টার দিকে প্রকাশিত সাময়িক ওই ফলাফল অনুযায়ী, এসপিডি পেয়েছে ২৫ দশমিক ৮ শতাংশ ভোট। আর সিডিইউ পেয়েছে ২৪ দশমিক ২ শতাংশ।

এছাড়া গ্রিন পার্টির দখলে গেছে ১৪ দশমিক ৩ শতাংশ, এফডিপি ১১ দশমিক ৫ শতাংশ, অভিবাসন বিরোধী এএফডি পেয়েছে ১০ দশমিক ৬ শতাংশ, আর বাম দল পেল ৫ শতাংশ এবং অন্যান্য কয়েকটি দল পেয়েছে ৮ দশমিক ৬ শতাংশ ভোট।

সাময়িক ফলাফল বিশ্লেষণ করলে দেখা যায়, ২০১৭ সালের নির্বাচনের তুলনায় সোশ্যাল ডেমোক্রেটিক পার্টি (এসপিডি) প্রায় সাড়ে চার শতাংশ ভোট বেশি পেয়েছে। আর গ্রিন পার্টির ভোট বেড়েছে ছয় শতাংশের বেশি। যদিও চ্যান্সেলর অ্যাঞ্জেলা মেরকেলের সিডিইউ দলের ভোট কমেছে প্রায় আট শতাংশ।

এর আগে রবিবার স্থানীয় সময় সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৬টা পর্যন্ত জাতীয় নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। ভোটগ্রহণ শেষ হওয়ার পর প্রকাশিত বুথ ফেরত জরিপের ফলাফলে দেখা যায়, সিডিইউ এবং এসপিডি সমান ২৫ শতাংশ করে ভোট পেতে যাচ্ছে। আর গ্রিন পার্টি পাচ্ছে ১৫ শতাংশ ভোট।

এ দিকে সাময়িক ফলাফলে এগিয়ে থাকা এসপিডির চ্যান্সেলর প্রার্থী ওলাফ শোলজ বলেছেন, ভোটাররা স্পষ্ট করে জানিয়ে দিয়েছেন যে, তারা তাকে পরবর্তী চ্যান্সেলর হিসেবে চান।

যদিও খারাপ ফল সত্ত্বেও সরকার গঠনে আশা হারাননি সিডিইউ দলের চ্যান্সেলর প্রার্থী আরমিন লাশেট। তিনি বলেন, নির্বাচনের এমন ফলে আমরা সন্তুষ্ট হতে পারি না। কিন্তু খারাপ ফল সত্ত্বেও আমরা রক্ষণশীলদের নেতৃত্বে একটি নতুন সরকার গঠনের জন্য চেষ্টা চালিয়ে যাব।

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার