• বৃহস্পতিবার   ২০ জানুয়ারি ২০২২ ||

  • মাঘ ৬ ১৪২৮

  • || ১৫ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

সর্বশেষ:
কুলাউড়া হাসপাতালের ৯ স্টাফ করোনায় আক্রান্ত স্বাস্থ্যকেন্দ্রের মেডিকেল অফিসার করোনা আক্রান্ত শিক্ষার্থীদের আন্দোলন নিয়ে যা বলছেন শাবির শিক্ষক-শিক্ষিকা জৈন্তাপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় যুবকের মৃত্যু পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে নতুন বছরের শুভেচ্ছা ব্লিনকেনের শাবিঃ ‘টাকার ব্যাগ’ আর ‘পিস্তল’ রেখে উপাচার্যের কুশপুত্তলিকা
১৮

যুক্তরাষ্ট্রে গোলাগুলিতে প্রাণ হারানো ৪ শিক্ষার্থীর পরিচয় শনাক্ত

সিলেট সমাচার

প্রকাশিত: ২ ডিসেম্বর ২০২১  

যুক্তরাষ্ট্র মিশিগান অঙ্গরাজ্যের ওকল্যান্ড কাউন্টি উচ্চ বিদ্যালয়ে পাঁচ মিনিটের গোলাগুলিতে প্রাণ হারানো চার শিক্ষার্থীর পরিচয় পাওয়া গেছে। তারা হলেন- হানা সেন্ট জুলিয়ানা (১৪), জাস্টিন শিলিং (১৭) টেট মাইরে (১৬) ম্যাডিসিন বল্ডউইন (১৭)।

বুধবার (১ ডিসেম্বর) অকল্যান্ড কাউন্টি শেরিফের কার্যালয় অক্সফোর্ড হাই স্কুলে মঙ্গলবার বিকালের ঘটনায় প্রথমে তিন ছাত্রের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করে। এর পর বুধবার সকালে আহত আরও এক শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয় বলে জানা যায়।

শেরিফ মাইকেল বৌচার্ড বলেছেন, নিহতদের পরিবারগুলোকে এরই মধ্যে বিষয়টি অবহিত করা হয়েছে। বর্তমানে তাদের প্রাপ্য সুরক্ষা দেওয়ার জন্য একজন ডেপুটি নিয়োগ করা হয়েছে। কর্মকর্তারা ১৫ বছর বয়সী এক অভিযুক্ত ছাত্রের কাছ থেকে একটি ৯ মিমি সিগ সাউয়ার আধা-স্বয়ংক্রিয় পিস্তল জব্দ করেছে। বর্তমানে সে পুলিশের হেফাজতে রয়েছে।

এতে অন্যান্য আহতদের মধ্যে রয়েছে- ১৪ বছর বয়সী ছেলের চোয়াল। তার মাথায় গুলি লেগেছে। সে বর্তমানে আশঙ্কাজনক অবস্থাতে রয়েছেন। ১৭ বছর বয়সী একটি মেয়ের ঘাড়ে গুলি লাগলেও তার অবস্থা এখন স্থিতিশীল।

এর আগে ওকল্যান্ড কাউন্টির আন্ডার শেরিফ মাইক ম্যাককেব সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে বলেছিলেন, মঙ্গলবার স্থানীয় সময় দুপুরে পাঁচ মিনিটের ওই বন্দুক হামলার ঘটনায় তিন ছাত্র প্রাণ হারিয়েছেন। এতে একজন শিক্ষকসহ আহত হয়েছেন মোট আটজন। ১৫ বছর বয়সী সন্দেহভাজনকে এরই মধ্যে সম্পূর্ণ অক্ষত অবস্থাতে পুলিশের হেফাজতে নেওয়া হয়েছে।

ম্যাককেব আরও বলেন, সম্পূর্ণ ঘটনাটি মাত্র পাঁচ মিনিট স্থায়ী হয়েছিল। অস্ত্রটি একটি আধা-স্বয়ংক্রিয় হ্যান্ডগান ছিল। হামলায় প্রাণ হারানো শিক্ষার্থীদের মধ্যে ১৪ ও ১৭ বছর বয়সী দুই নারী এবং ১৬ বছর বয়সী একজন পুরুষ রয়েছেন। আর আহতদের মধ্যে দুজনের শরীরে মঙ্গলবার বিকালে অস্ত্রোপচার হয়েছে। বর্তমানে তাদের শারীরিক অবস্থা জানা যায়নি।

তিনি জানিয়েছেন, অন্য ছয়জনের অবস্থা স্থিতিশীল। আহতরা তিনটি হাসপাতালে রয়েছে; ম্যাকলারেন লাপিয়ার রিজিওন কমিউনিটি মেডিকেল সেন্টার, পন্টিয়াকের ম্যাকলারেন ওকল্যান্ড এবং পন্টিয়াকের সেন্ট জোসেফ মার্সি ওকল্যান্ড। নিহতদের এখনো শনাক্ত করা যায়নি, তবে অক্সফোর্ড হাইতে আহতদের মধ্যে একজন শিক্ষকও রয়েছেন।

ম্যাককেবের মতে, এবার প্রায় ১৫ থেকে ২০টি গুলি চালানো হয়েছিল। শুটার একাই ছিলেন বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। ঘটনার সময় স্কুলটিতে প্রায় এক হাজার আটশ জন শিক্ষার্থী ছিল। স্কুল ভবনের দক্ষিণ প্রান্তে গোলাগুলির ঘটনা ঘটে।

তিনি বলেছিলেন, ডেপুটিরা হামলাকারীর মুখোমুখি হয়েছিল, তার কাছে অস্ত্র ছিল এবং ডেপুটিরা তাকে হেফাজতে নিয়েছে। তারা (ছাত্ররা) লক্ষ্যবস্তু ছিল কি-না আমরা জানি না। আমরা যখন এই তদন্তে আরও এগিয়ে যাব তখন আমরা এর তলানিতে যাব।

ম্যাককেবের ভাষায়, সন্দেহভাজন ব্যক্তি কীভাবে ভিতরে বন্দুকটি নিয়েছিল, আমরা জানি, তবে আমি এখনই তা বলতে চাচ্ছি না। সন্দেহভাজন ব্যক্তি এরই মধ্যে তার কথা না বলার অধিকার দাবি করেছে; সে একজন অ্যাটর্নি চায়। সন্দেহভাজন ব্যক্তিটিকে পন্টিয়াকের চিলড্রেনস ভিলেজে রাখা হয়েছে।

মিশিগানের গভঃ গ্রেচেন হুইটমার অশ্রুসিক্ত নয়নে ম্যাককেবের সঙ্গে দুপুরের সংবাদ সম্মেলনে যোগ দেন, এ সময় তিনি সাংবাদিকদের বলেছেন, এটি প্রতিটি পিতামাতার সবচেয়ে খারাপ দুঃস্বপ্ন। আমার হৃদয় পরিবারগুলোর প্রতি আন্তরিক। এটি একটি অকল্পনীয় ট্র্যাজেডি। পরিবারের চারপাশের অস্ত্র আমরা গুটিয়ে নিতে পারি।

উল্লেখ্য, অক্সফোর্ড স্কুলটি অক্সফোর্ড শহরের উত্তরে এবং ডেট্রয়েট শহর থেকে প্রায় ৪৫ মাইল উত্তরাঞ্চলে অবস্থিত।

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার