• শনিবার   ০১ অক্টোবর ২০২২ ||

  • আশ্বিন ১৬ ১৪২৯

  • || ০৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

সর্বশেষ:
শাবিপ্রবিতে ১ থেকে ৯ অক্টোবর পর্যন্ত ছুটির ঘোষণা জেলা পরিষদের সদস্য প্রার্থী তানভীরের মতবিনিময় সভা গুলিতে নয়, ইটের আঘাতে যুবদল কর্মী শাওনের মৃত্যু: এসপি সাকিব-মুশফিক ছাড়া প্রথম সিরিজ জয় এশিয়া কাপ খেলতে সিলেটে জাহানারা-জ্যোতিরা নবির কাছে সিংহাসন হারালেন সাকিব বিশ্বনাথে শেখ হাসিনার জন্মদিনে আ’লীগের কেক কাটা
২৫

ফ্রিজে রাখা বিরিয়ানি খেয়ে মুহূর্তেই নিথর হলো ভাই-বোন

সিলেট সমাচার

প্রকাশিত: ১৮ আগস্ট ২০২২  

শরীয়তপুরের জাজিরায় ফ্রিজে থাকা বাসি খাবার খেয়ে অসুস্থ হয়ে ভাই-বোনের মৃত্যু হয়েছে। তাদের আর এক বোন অসুস্থ হয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি আছে বলে জানা যায়।

গতকাল মঙ্গলবার (১৬ আগস্ট) রাতে উপজেলার বিলাসপুর ইউনিয়নের মুলাই ব্যাপারীকান্দি গ্রামে এ মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। 

নিহত সৌরভ মিয়া (৬) ও খাদিজা আক্তার (৪) মুলাই ব্যাপারীকান্দি গ্রামের শওকত দেওয়ান ও আইরিশ বেগম দম্পতির সন্তান। আর আহত  সাথী আক্তার (১৪) নিহতদের বড় বোন। 

নিহতর পরিবার ও স্থানীয় সূত্র জানায়, গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে জাজিরা উপজেলার মুলাই ব্যাপারীকান্দি এলাকার রওশনা বেগম তার বাসার ফ্রিজের বাসি (বিরিয়ানি) খাবার গরম করে সৌরভ, খাদিজা ও সাথীকে খাওয়ায়। তখন তিনজনই অসুস্থ হয়ে পড়ে। পরে রাতে বেশি অসুস্থ হয়ে পড়লে তাদের জাজিরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। ঢাকা মেডিকেলে নেয়ার পথে সৌরভ ও খাদিজা মারা যায়। বুধবার জানাজা শেষে তাদের পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়। আর সাথীকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সে এখন আশঙ্কামুক্ত আছে। 

জাজিরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক সাকিল আহমেদ জানান, রাতে ওই শিশুদের হাসপাতালে নিয়ে আসলে আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। গরমে বাসি ও পঁচা খাবার খাওয়ার ফলে ফুড পয়জনিং হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

মা আইরিশ বেগম বলেন, আমার জা রওশনা বেগমের সঙ্গে আমাদের কোনো শত্রুতা নেই। আদর করে আমার বাচ্চাদের তিনি খাবার দেন। খাবার খেয়ে আমার সন্তানরা মারা গেছে। এক মেয়ে হাসপাতালে ভর্তি। আমার ভাগ্যে ছিল। তা না হলে এমন ঘটনা ঘটবে কেন?

বিষয়টি নিশ্চিত করে জাজিরা থানার ওসি মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, বিষয়টি আমি শুনেছি। খোঁজ নিয়ে দেখছি। তবে এ ব্যাপারে কেউ অভিযোগ নিয়ে থানায় আসেনি।

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার