• রোববার   ২৯ মে ২০২২ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৫ ১৪২৯

  • || ২৬ শাওয়াল ১৪৪৩

সর্বশেষ:
নেই বৈধ কাগজ, বন্ধ ৫ টি ডায়াগনস্টিক সেন্টার সরকারের খাদ্য সহায়তা পেল সিলেটের ১৩ হাজার পরিবার শাহজালাল মাজারে ওরস উপলক্ষে ‘লাকড়ি তোড়া’ উৎসব ১২ ঘণ্টায় ৭ নবজাতকের জন্ম! জাফলং গিলছে বালুখেকোরা, অভিযান-জরিমানা সেমিফাইনালে মাধবপুর বালিকা দল
২৭

২ পক্ষের সংঘর্ষে যুবক নিহত, ভয়ে ‘গ্রাম ছাড়ছে’ প্রতিপক্ষ

সিলেট সমাচার

প্রকাশিত: ১৯ জানুয়ারি ২০২২  

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষে ইয়ামিন (৩৪) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় উভয়পক্ষের কমপক্ষে অর্ধশতাধিক নারী-পুরুষ আহত ও বাড়িঘর ভাঙচুরের ঘটনাও ঘটেছে।  

বুধবার (১৯ জানুয়ারি) সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত উপজেলার বাঘাবাড়ি দক্ষিণপাড়া এলাকায় দফায় দফায় সংঘর্ষ হয়। নিহত ইয়ামিন শাহজাদপুর উপজেলার বাঘাবাড়ি এলাকার ইউনুস আলীর ছেলে। এদিকে, ইয়ামিন নিহত হওয়ার খবরে প্রতিপক্ষের লোকজন ঘরের জিনিসপত্র নিয়ে দলবদ্ধভাবে পালিয়ে যাওয়ার খবর পাওয়া গেছে।  


পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শাহজাদপুর উপজেলার বাঘাবাড়ী এলাকার মিন্টু ও ককিল মোল্লা গ্রুপের সঙ্গে সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল লতিফ গ্রুপের মধ্যে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দীর্ঘদিন বিরোধ চলছিল। এ ঘটনার জেরে বুধবার সকালে বাঘাবাড়ি দক্ষিণপাড়া এলাকায় উভয় গ্রুপের লোকজন লাঠিসোঁটা ও দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। প্রায় দুই ঘণ্টাব্যাপী দফায় দফায় এ সংঘর্ষে চলে। সংঘর্ষে ধাওয়া পাল্টা-ধাওয়া ও ইটপাটকেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে ইয়ামিনসহ উভয়পক্ষের অর্ধশতাধিক নারী-পুরুষ আহত হন। আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে নেওয়ার পথে মারা যান ইয়ামিন। এদিকে, ইয়ামিনের মৃত্যুর খবরে লোকজন দলে দলে গ্রাম ছেড়ে পালিয়ে যাচ্ছে।

শাহজাদপুর থানার ওসি শাহিদ মাহমুদ খান বলেন, ‘দীর্ঘদিন ধরে বাঘাবাড়িতে এ দুই পক্ষের মধ্যে দ্বন্দ্ব চলছে। আজ তুচ্ছ ঘটনা নিয়েই সংঘর্ষ বাধে। খবর পেয়ে শাহজাদপুর থানা পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনেছে। সংঘর্ষে ইয়ামিন নামে এক যুবক নিহত হয়েছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।’

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার