• বৃহস্পতিবার   ২১ অক্টোবর ২০২১ ||

  • কার্তিক ৬ ১৪২৮

  • || ১৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

সর্বশেষ:
সুনামগঞ্জ পৌরসভার উদ্যোগে সম্প্রীতির সমাবেশ অনুষ্ঠিত সিলেটে করোনায় শনাক্তের হার ০.৮৩ সিলেট থেকে স্পেনে গিয়েই স্বামীকে অচেতন করে স্ত্রীর চম্পট! মধ্যরাতে এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে হঠাৎ তল্লাশি জুড়ীতে ঈদে মিলাদুন্নবী (সাঃ) উদযাপিত সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি সমুন্নত রাখতে সিলেটে সৌহার্দ্য বৈঠক

খাসিয়ামারা নদীতে নেই সেতু, দু’পাড়ে রশি বেঁধে চলছে নৌকা

সিলেট সমাচার

প্রকাশিত: ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১  

সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজার উপজেলার খাসিয়ামারা নদী। যার দুই তীরে রয়েছে দুই গ্রাম আলীপুর ও টেংরাটিলা। এক অভিনব উপায়ে ৫০ বছর ধরে নদী পারাপার হচ্ছেন এ দুই গ্রামের বাসিন্দারা। 

নদীর দুই পাড়ে বাঁধা আছে একটি রশি। সেই রশির সাহায্য নিয়ে পার হচ্ছে নৌকা। আর এই নৌকা পার হয়ে প্রতিদিন যাতায়াত করছেন শত শত মানুষ। একটি সেতুর অভাবে প্রতিনিয়ত দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন দুই এলাকার লক্ষাধিক মানুষ।

জানা যায়, টেংরাটিলা-আলীপুর বাজারের পাশ দিয়ে বয়ে চলা খাসিয়ামারা নদীতে সেতু না থাকায় এই খেয়াঘাট দিয়ে রশি টেনে খেয়া পারাপার হতে হয়। বর্ষা মৌসুমে নদীতে অনেক পানি আর স্রোত থাকায় শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ হাওরপাড়ের জনসাধারণকে প্রতিনিয়ত ঝুঁকি নিয়ে পার হতে হয় এই নদী। খাসিয়ামারা নদী পার হয়েই এই এলাকার মানুষদের যেতে হয় দোয়ারাবাজার উপজেলা সদর ও জেলা সদরে। আর যোগাযোগের এই নাজুক ব্যবস্থার কারণে কৃষক ও মৎস্য খামারিদের গুনতে হয় বাড়তি খরচ।

স্থানীয়রা জানান, এই নদীতে দীর্ঘদিন ধরে সেতু নির্মাণের দাবি জানানো হলেও তা পূরণ হয়নি। এতে সুরমা ও লক্ষ্মীপুর ইউনিয়নের টেংরাটিলা, আলীপুর, আজবপুর, গিরিসনগর, পশ্চিম টিলাগাঁও, নূরপুর, সোনাপুর, নন্দীগ্রাম, সুলতানপুর, বড়কাটা, বৈঠাখাই, হাছনবাহার, এরুয়াখাই, রসরাই, সোনাপুরসহ এলাকার অন্তত ২০-২৫টি গ্রামের লক্ষাধিক মানুষকে পোহাতে হচ্ছে চরম দুর্ভোগ।

নূরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মুহম্মদ মশিউর রহমান বলেন, খাসিয়ামারা নদীতে সেতু হলে হাওরপাড়ের শিক্ষা, যোগাযোগ ও অর্থনৈতিক ব্যবস্থায় আমূল পরিবর্তন ঘটতে পারে।

লক্ষীপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আমিরুল হক বলেন, খাসিয়ামারা নদীতে সেতু নির্মাণের দাবি দীর্ঘদিনের। আমরা শুনেছি সেতু নির্মাণের জন্য টেন্ডার হয়ে গেছে। আশা করি দ্রুত নির্মাণের কাজ শুরু হবে।

দোয়ারাবাজারে দায়িত্বরত স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের (এলজিইডি) নির্বাহী প্রকৌশলী দেবতোষ পাল জানান, খাসিয়ামারা নদীতে সেতু নির্মাণের জন্য টেন্ডার হয়েছে। খুব দ্রুত সেতু নির্মাণের কাজ শুরু হবে।

এলজিইডির সুনামগঞ্জ জেলা কার্যালয়ের নির্বাহী প্রকৌশলী মাহবুবুর রহমান জানান, খাসিয়ামারা নদীতে সেতু নির্মাণের জন্য ৪ কোটি ২৬ লাখ ৯৪ হাজার টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। দরপত্রের মূল্যায়ন চলছে। এরপরই পরবর্তী কার্যক্রম গ্রহণ করে দ্রুত এখানে সেতু নির্মাণের কাজ শুরু হবে।

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার