বৃহস্পতিবার   ১২ ডিসেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ২৭ ১৪২৬   ১৪ রবিউস সানি ১৪৪১

সর্বশেষ:
বঙ্গবন্ধু বিপিএলের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী গোয়াইনঘাট-জৈন্তাপুরে ফসলের লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে গেছে দলে এখনো ‘মোশতাকদের’ পদচারণ রয়েছে: এম এ মান্নান সিলেটে বাল্যবিবাহ শূন্যের কোটায় নামাতে কাজ করছেন জেলা প্রশাসক সুনামগঞ্জে কোটি কোটি টাকার কাজে অনিয়ম পথচারীকে বাঁচাতে গিয়ে গুরুতর আহত পুলিশ সদস্য  ওলি-গলিতে গড়ে উঠেছে ভাঙ্গারী ব্যবসা, বাড়ছে চুরি সাতছড়ি উদ্যানে ফটোগ্রাফিক সোসাইটির বৃক্ষরোপন অভিযান
৬১

৮ বছর পর কানাইঘাটে আ. লীগের সম্মেলন কাল

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১০ নভেম্বর ২০১৯  

দীর্ঘ ৮ বছর পর সিলেটের কানাইঘাট উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন আগামীকাল সোমবার অনুষ্ঠিত হবে। সোমবার দুপুর ১২টায় কানাইঘাট পূর্ব বাজারে সম্মেলনের প্রথম অধিবেশন ও পরবর্তীতে পৌর শহরের ইউনিক কমিউনিটি সেন্টারে দ্বিতীয় অধিবেশনে কাউন্সিলরদের ভোটে কানাইঘাট উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত করা হবে বলে দলীয় সূত্রে জানা গেছে।

সম্মেলনে দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বলে উপজেলা আওয়ামীলীগের আহ্বায়ক, সাবেক মেয়র লুৎফুর রহমান জানিয়েছেন। এছাড়া জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দও উপস্থিত থাকবেন।

জানা যায়, সর্বশেষ ২০১১ সালে কানাইঘাট আওয়ামী লীগের সম্মেলন হয়েছিল। সেই সম্মেলনে বর্তমান উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক সাবেক মেয়র লুৎফুর রহমান সভাপতি ও বর্তমান কানাইঘাট পৌরসভার মেয়র নিজাম উদ্দিন সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছিলেন। এরপর ২০১৩ সালে লুৎফুর রহমানকে আহ্বায়ক ও অধ্যক্ষ সিরাজুল ইসলামকে সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক করে উপজেলা আওয়ামীলীগের ৮৪ সদস্য বিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হয়। অদ্যবধি পর্যন্ত এই কমিটি দলের সাংগঠনিক কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে।

এদিকে দীর্ঘ ৮ বছর পর কানাইঘাট আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক কাউন্সিলকে কেন্দ্র করে দলের তৃণমূল পর্যায়ের নেতাকর্মীদের মধ্যে ব্যাপক উদ্দীপনা পরিলক্ষিত হচ্ছে। কোন ধরনের পকেট কমিটি চাপিয়ে না দিয়ে কাউন্সিলরদের প্রত্যক্ষ ভোটে দলে নতুন নেতৃত্ব বেরিয়ে আসুক তা চান দলের তৃণমূল পর্যায়ের নেতাকর্মীরা। সম্মেলনে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে একাধিক আওয়ামী লীগ নেতা প্রার্থী হয়েছেন।

তার মধ্যে সাধারণ সম্পাদক পদে অনেক তরুণ নেতাও প্রার্থী হয়েছেন। সভাপতি পদে যাদের নাম জোরে শোরে উচ্চারিত হচ্ছে তাদের মধ্যে রয়েছেন, বর্তমান আহ্বায়ক সাবেক মেয়র লুৎফুর রহমান, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য আব্দুল মুমিন চৌধুরী, বর্তমান কমিটির সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক অধ্যক্ষ সিরাজুল ইসলাম, যুগ্ম আহ্বায়ক অলিউর রহমান এবং সাধারণ সম্পাদক পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন বর্তমান কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক সাবেক ছাত্রনেতা ইউপি চেয়ারম্যান মাসুদ আহমদ, এডভোকেট আব্দুস সাত্তার, জেলা যুবলীগ নেতা আব্দুল হেকিম শামীম, আ’লীগ নেতা সাবেক কাউন্সিলর ফখরুদ্দীন শামীম, শ্রী রিংকু চক্রবর্তী, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক আ’লীগ নেতা নাজমুল ইসলাম হারুন। এদের মধ্যে অনেক প্রার্থীর সমর্থকরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক এবং ব্যানার-বিলবোর্ডের মাধ্যমে প্রচারণা চালাচ্ছেন। এদিকে সম্মেলনকে সফল করার জন্য একটি প্রস্তুতি কমিটি গঠন করা হয়েছে।

প্রস্তুতি কমিটির সদস্য আ’লীগ নেতা শাহাব উদ্দিন ও কাউন্সিলর তাজ উদ্দিন জানিয়েছেন, ইতিমধ্যে সম্মেলনকে সফল ও সুন্দর করার জন্য সব ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। মঞ্চের কাজ শুরু করা হয়েছে।

সম্মেলনকে ঘিরে দলের তৃণমূল পর্যায়ের শত শত নেতাকর্মীদের মিলনমেলায় পরিণত হবে বলে তারা জানান। জানা গেছে, কাউন্সিলরদের ভোটার তালিকা ইতিমধ্যে সম্পন্ন করা হয়েছে। তবে নবগঠিত পৌর আওয়ামীলীগের কমিটির কাউন্সিলদের তালিকা নিয়ে জটিলতা তৈরি হয়েছে।

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার