• বুধবার   ০৩ মার্চ ২০২১ ||

  • ফাল্গুন ১৮ ১৪২৭

  • || ১৯ রজব ১৪৪২

সর্বশেষ:
বাংলাদেশ এখন মালয়েশিয়ার কাতারে মৌলভীবাজারে শুরু হলো বইমেলা, এসেছে নতুন বই জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে প্রস্তুতি সভা করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ৭ জনের মৃত্যু, নতুন আক্রান্ত ৫১৫  সিলেটে করোনার টিকা গ্রহণ, যে কারণে পিছিয়ে নারীরা মাহবুব তালুকদার ইসিকে অপদস্ত করার জন্য সবই করছেন: সিইসি ঢাবিতে পতাকা উত্তোলন দিবস পালন হবিগঞ্জে এক মাসে ২০টি মোটর সাইকেল চুরি

৭৬৯ দিন পর ম্যাচসেরার স্বীকৃতি মিরাজের

সিলেট সমাচার

প্রকাশিত: ২২ জানুয়ারি ২০২১  

মনে হয় যেন, মাত্র অল্প কিছুদিন; কিন্তু ইতিহাস ও পরিসংখ্যান জানাচ্ছে, মোটেই অল্প সময় নয়। ক্যালেন্ডারের পাতা উল্টে হিসেব করলে ৭৬৯ দিন পর আবার হলেন ম্যাচসেরা।

এটুকু শুনে মনে হতে পারে, তার আগেও বুঝি ম্যান অফ দ্য ম্যাচ হয়েছেন মেহেদি হাসান মিরাজ। আসলে তা নয়। আজ ২২ জানুয়ারি শেরে বাংলায় ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ক্যারিয়ারসেরা বোলিং করা মেহেদি হাসান মিরাজ ওয়ানডে ক্যারিয়ারেই দ্বিতীয়বারের মত হলেন ম্যাচসেরা।

ইতিহাস সাক্ষী দিচ্ছে, এর আগে মিরাজ একবারই ম্যাচসেরা হয়েছিলেন। কাকতালীয়ভাবে সেটাও এই ওয়েস্ট ইন্ডিজেরই বিপক্ষে, ২০১৮ সালের ১৪ ডিসেম্বর সিলেটে।

সে ম্যাচে মিরাজের বোলিং ফিগার ছিল ২৯ রানে ৪ উইকেট। ওই ম্যাচে মিরাজের অফস্পিনের শিকার ছিলেন ওই ট্যুরে ক্যারিবীয় ওপেনার চন্দরপল হিমরাজ, ড্যারেন ব্রাভো, শিমরন হেটমায়ার এবং ওই ট্যুরের অধিনায়ক রভম্যান পাওয়েল।

২৫ মাস পর ক্যারিয়ার সেরা বোলিং করে ম্যাচসেরা হওয়ার দিনে মেহেদি হাসান মিরাজ আরও একটি সাফল্যের ফলক স্পর্শ করেছেন। ৪৩ নম্বর ওয়ানডেতে আজ নিয়ে দ্বিতীয়বার তার নামের পাশে জমা পড়লো ৪ উইকেট।

কিন্তু মাঝখানের সময়টা ভাল কাটেনি একদমই। ২০১৮ সালের ১৪ ডিসেম্বরের পর আজকের খেলার আগে ২০ ম্যাচে আর ৩ উইকেটই পাননি মিরাজ। এই খেলা এছাড়া ৬ ম্যাচ ছিলেন উইকেটশূন্য। আর ১১ খেলায় ১টি করে উইকেট। ২ উইকেট পাবার ম্যাচই আছে মোটে তিনটি।

আজ আবার ফর্মে ফিরে তাই উৎফুল্ল মিরাজ। স্বীকার করেছেন অনেক দিন পর ওয়ানডে খেলতে নেমে প্রথম ম্যাচে ভাল বোলিং করা সম্ভব হয়নি। তবে পরের ম্যাচে মানে আজই নিজেকে ফিরে পাবার পিছনে নিজের কৃতিত্বের চেয়ে বরং সিনিয়র ক্রিকেটার ও স্পিন কোচ সোহেল ইসলামকেই কৃতিত্ব দিয়েছেন মিরাজ।

খেলা শেষে তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় তাই মিরাজের কথা, ‘অনেকদিন পর ম্যান অব দ্য ম্যাচ হতে পেরে আমি অনেক খুশি। দীর্ঘদিন পর আমরা ওয়ানডে খেলছি। প্রথম ম্যাচে খুব ভালো বোলিং করতে পারিনি। সিনিয়র খেলোয়াড় এবং টিম ম্যানেজম্যান্টের সঙ্গে এ নিয়ে আলোচনা করেছি। আমি তিন ওভার বা এমন ছোট ছোট স্পেলে বোলিং করেছি।’

সাফল্যের পিছনে অধিনায়ক তামিম ইকবাল ও অগ্রজপ্রতিম রিয়াদ (মাহমুদউল্লাহ) ভাই এবং আমাদের স্পিন বোলিং কোচ সোহেল ইসলামের সঙ্গে কথা বলেছি। তামিম ভাইও সবসময় আমাকে সাপোর্ট করেছেন।’

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার