সোমবার   ২৬ আগস্ট ২০১৯   ভাদ্র ১০ ১৪২৬   ২৪ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

সর্বশেষ:
শিগগিরই জাপানে জনশক্তি রফতানি করতে চুক্তি সই জামালপুরে নতুন ডিসি ৭৮৯ কোটি টাকার বাজেট পেলো নগরবাসী কাবিন থেকে ‘কুমারী’ শব্দ তুলে দেয়ার নির্দেশ মাত্র তিন দিনে ১০ বছর মেয়াদি পাসপোর্ট!
২৩

৩০ হাজার লোক পানিবন্দি বালাগঞ্জে 

সিলেট (বালাগঞ্জ) প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১৬ জুলাই ২০১৯  

টানা বৃষ্টিপাত ও উজানের ঢলের প্রভাবে বালাগঞ্জে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি অব্যাহত রয়েছে। বাড়তে থাকা কুশিয়ারা নদীর পানি ঢুকে উপজেলার ৬টি ইউনিয়নের প্রায় ৩০হাজার লোক পানিবন্দী হয়ে পড়েছেন। উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে কণ্টোল রুম খোলা হয়েছে। 

মঙ্গলবার থেকে কুশিয়ারা নদীর পানি বিপদসীমার উপরে প্রবাহিত হচ্ছে। উপজেলা দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির জরুরী বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। উপজেলার পূর্ব গৌরীপুর ও পূর্ব পৈলনপুর ইউনিয়নের ৩টি আশ্রয় কেন্দ্রে ২০/২৫টি পরিবার আশ্রয় গ্রহণ করেছে। বালাগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. নাজমুস সাকিব জানিয়েছেন, উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে বন্যা আক্রান্তদের মধ্যে শুকনো খাবার বিতরণ করা হয়েছে। আশ্রয়কেন্দ্র এবং ত্রাণ সামগ্রী প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে ঘরবাড়ি বন্যার পানিতে ক্ষয়ক্ষতির মধ্যে পড়েছে। উপজেলার ফেঞ্চুগঞ্জ-বালাগঞ্জ সড়ক এবং কুশিয়ারা ডাইকের বিভিন্নস্থানে সড়ক পানিতে তলিয়ে গেছে। বালাগঞ্জ উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান সামস উদ্দিন সামস, বালাগঞ্জ উপজেলাকে বন্যা দুর্গত উপজেলা ঘোষণার দাবি জানিয়েছেন। বালাগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান মোস্তাকুর রহমান মফুর জানিয়েছেন, ওসমানীনগরের শেরপুর থেকে বালাগঞ্জ বাজার পর্যন্ত কুশিয়ারা ডাইকের ভাঙ্গনে হামছাপুর, জালালপুর, গালিমপুর, ভাটপাড়া, পৈলনপুর, ফাজিলপুর, পূর্ব ইছাপুর প্রভৃতি এলাকায় পানি ঢুকছে।


এদিকে আজ মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলা দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। উপজেলা সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোস্তাকুর রহমান মফুর। সভায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. নাজমুস সাকিব, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা প্রীতি ভূষণ দাস, বালাগঞ্জ থানার অফিসার ইন-চার্জ গাজী আতাউর রহমানসহ সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান, প্রশাসনিক কর্মকর্তা এবং কমিটির সদস্যরা অংশগ্রহণ করেন।
 

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার
এই বিভাগের আরো খবর