• বৃহস্পতিবার   ০৬ মে ২০২১ ||

  • বৈশাখ ২২ ১৪২৮

  • || ২৩ রমজান ১৪৪২

সর্বশেষ:
এবারও বিদেশিদের হজ বন্ধ রাখবে সৌদি আরব! করোনায় এক দিনে মৃত্যু ৫০, শনাক্ত ১৭৪২ একসঙ্গে ৯ সন্তানের জন্ম থাকতে হবে কর্মস্থলে, জেলার গাড়ি জেলাতেই চলবে যা আছে প্রজ্ঞাপনে রায়হান হত্যা: আকবরসহ ৬ জনকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট হবিগঞ্জে ৫০ কেজি গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার শ্রীমঙ্গলে দেশের সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত

১২ বছর পর চুল কাটলেন সবচেয়ে লম্বা চুলের অধিকারীনি

সিলেট সমাচার

প্রকাশিত: ১৭ এপ্রিল ২০২১  

বিশ্বের সবচেয়ে লম্বা চুল নিয়ে গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ড বইয়ে নাম লিখিয়েছে ভারতের গুজরাটের নীলাংশী জয়। তবে অপ্রাপ্তবয়স্কদের মধ্যে সব থেকে লম্বা চুলের রেকর্ড আগে তার দখলেই ছিল। সেই রেকর্ড আরো মজবুত করে নিলেন ১৭ বছর বয়সী নীলাংশী প্যাটেল। বলা ভালো, আরো লম্বা করে নিলেন রেকর্ড।

৬ বছর বয়সে চুল কাটতে গিয়ে খুব খারাপ অভিজ্ঞতা হয় নীলাংশীর। চুলের কাটটা খুব খারাপ হয়েছিল। তাই সেই থেকেই চুল কাটা বন্ধ করে দেয় সে। এইভাবেই কেটে গিয়েছে ১০ বছর। চুল লম্বা হয়েছে ক্রমশ।

১০ বছর পর বিশ্ব রেকর্ড করল ১৬ বছররে সেই মেয়ে। গিনেস ওয়ার্ল্ডের খেতাব জয় করল নীলাংশী। গুজরাতের বাসিন্দা নীলাংশী প্যাটেল ষোড়শী কিশোরী হিসেবে বিশ্বে দীর্ঘতম চুলের জন্য গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ড জিতেছে। তার চুলের দৈর্ঘ্য ৫ ফুট ৭ ইঞ্চি।

 

১২ বছর পর চুল কাটলেন নীলাংশী

১২ বছর পর চুল কাটলেন নীলাংশী

অবশেষে দীর্ঘ ১২ বছর পর নিজের চুল কাটলেন নীলাংশী প্যাটেল। এই দীর্ঘ চুলের জন্য তিনি বাস্তবের ‘রাপুনজেল’ হিসেবে পরিচিত ছিলেন।সম্প্রতি নীলাংশীর ভিন্ন ধরনের একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। সেটি হচ্ছে তার চুল কেটে ফেলার ভিডিও। তবে চুল কাটার ভিডিও হঠাৎ কেন ভাইরাল হলো তা নিয়েই অনেকের মনে প্রশ্ন উঠছে। আসলে ১৮ বছরে পা দেয়ার পর গত ১২ বছরে প্রথমবার চুল কাটলেন তিনি।

গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ডে কিশোরী হিসেবে সবচেয়ে লম্বা চুলের রেকর্ড রয়েছে নীলাংশীর। বর্তমানে তার চুলের মাপ ২০০ সেন্টিমিটার বা ৬ ফুট ৭ ইঞ্চি। গত ২০২০ সালের জুলাই মাসে শেষবার রেকর্ড করেছেন তিনি। ২০১৮ ও ২০১৯ সালেও এই পুরস্কার পেয়েছিলেন নীলাংশী।

 

মাত্র ১০ বছর বয়সে গিনেস বুকে নাম লেখান তিনি

মাত্র ১০ বছর বয়সে গিনেস বুকে নাম লেখান তিনি

তবে নতুন হেয়ারকাটের আগে একটি ভিডিও শ্যুট করেছেন নীলাংশী। সেখানেই নিজের লম্বা চুলের গল্প জানিয়েছেন তিনি। নীলাংশী বলেন, একবার হেয়ারকাট খুব বাজে হয়েছিল। তখন আমার বয়স ছয় বছর। এরপর আর চুল কাটবো না বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম। এরপর থেকে এতদিন চুল কাটিনি।

এদিকে নিজের চুল নিলামে তুলতে, ক্যান্সার রোগীদের দান করতে বা অন্য মানুষকে অনুপ্রেরণা দেয়ার জন্য মিউজিয়ামে রাখতে পারতেন। শেষ পর্যন্ত মায়ের কথাতেই নিজের চুল মিউজিয়ামে রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন এই কিশোরী।

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার