• মঙ্গলবার   ১৪ জুলাই ২০২০ ||

  • আষাঢ় ২৯ ১৪২৭

  • || ২৩ জ্বিলকদ ১৪৪১

সর্বশেষ:
সাহেদের খোঁজে মৌলভীবাজারে পুলিশের তৎপরতা
২৯

হাথুরুর ৪২ কোটির হুমকি পাত্তা দিচ্ছে না শ্রীলঙ্কা?

সিলেট সমাচার

প্রকাশিত: ১৪ জানুয়ারি ২০২০  

শেষ পর্যন্ত শ্রীলঙ্কা দলের প্রধান কোচ হিসেবে চন্ডিকা হাথুরুসিংহের সঙ্গে চুক্তি বাতিল করার সিদ্ধান্ত নিল দেশটির ক্রিকেট বোর্ড। বেশ কয়েক মাস ধরেই শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ডের (এসএলসি) সঙ্গে শীতল সম্পর্ক যাচ্ছিল হাথুরুসিংহের। বাংলাদেশ দলের সাবেক এ কোচ এর আগে কোর্ট অব আরবিট্রেশন ফর স্পোর্টসের (সিএএস) মাধ্যমে ক্ষতিপূরণ চেয়েছিলেন শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ডের কাছে। সে ক্ষতিপূরণের অঙ্ক বাংলাদেশি মুদ্রায় ৪২ কোটি। এখন এসএলসি যদি চুক্তি বাতিল করে, তাহলে এ অঙ্কটা তাদের পরিশোধ করতে হতে পারে হাথুরুকে।

নিজ দেশের দায়িত্ব নিতে ২০১৭ সালের শেষ দিকে বাংলাদেশের সঙ্গে আগেভাগেই সম্পর্ক শেষ করে দিয়েছিলেন হাথুরুসিংহে। কিন্তু ভালোবাসাটা বেশি দিন টেকেনি। বিশ্বকাপে দল ভালো না করায় গত আগস্টেই হাথুরুসিংহেকে জাতীয় দলের কর্মকাণ্ড থেকে সরিয়ে দিয়েছিল এসএলসি। যদিও বেশ কয়েক মাস ধরে তাঁকে পারিশ্রমিক দিয়ে গেছে বোর্ড। এ সময়ের মধ্যে দুই পক্ষের আইনজীবী চিঠি চালাচালি করেছেন, আর হাথুরুসিংহে প্রধান কোচ হিসেবে কোন কোন জায়গায় ব্যর্থ হয়েছেন, তার ফিরিস্তিও দিয়েছে বোর্ড। খেলোয়াড়দের সঙ্গে ভালো সম্পর্ক গড়তে ব্যর্থ হওয়ার পাশাপাশি বিভিন্ন সিরিজে জাতীয় দলের বাজে প্রস্তুতির জন্য হাথুরুকে অভিযুক্ত করেছে এসএলসি।

বার্তা সংস্থা এএফপি এর আগে জানিয়েছিল, মেয়াদের আগেই চুক্তি শেষ করায় এসএলসির কাছে ক্ষতিপূরণ চেয়েছেন হাথুরুসিংহে। বোর্ডের সাধারণ সম্পাদক মোহন ডি সিলভা জানিয়েছিলেন, হাথুরুসিংহে ৫ মিলিয়ন ডলার (বাংলাদেশি মুদ্রায় ৪২ কোটি ৩৯ লাখ টাকা) ক্ষতিপূরণ দাবি করে চিঠি পাঠিয়েছেন। ক্রিকইনফোর খবর অনুযায়ী, এই অঙ্কটা এসএলসিকে হয়তো পরিশোধ করতেই হবে। কারণ, মেয়াদ শেষের আগেই হাথুরুর সঙ্গে চুক্তি বাতিল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বোর্ড। চুক্তিটির মেয়াদ ছিল এ বছরের (২০২০) ডিসেম্বর পর্যন্ত।

এসএলসির প্রধান নির্বাহী অ্যাশলে ডি সিলভা ক্রিকইনফোকে বলেন, ‘শুক্রবার নির্বাহী কমিটির সবশেষ বৈঠকে (হাথুরুসিংহের) চুক্তি শেষ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। স্মৃতির ওপর ভরসা রেখে ঠিক বলতে পারছি না আমরা কবে থেকে তাকে পারিশ্রমিক দেওয়া বন্ধ করেছি। সম্ভবত এটা গত বছরের অক্টোবর থেকে হতে পারে।’

হাথুরুসিংহের ক্ষতিপূরণের দাবি এসএলসিকে পাঠিয়েছে সিএএস। এরপরই তাঁর চুক্তি শেষ করার সিদ্ধান্ত নেয় বোর্ড। ডি সিলভা নিশ্চিত করেছেন, সিএএসের প্রক্রিয়া মেনে চলতে বাধ্য ক্রিকেট বোর্ড। তাদের এখন হাথুরুসিংহের ক্ষতিপূরণ চাওয়ার দাবির জবাব দিতে হবে। সিএএসের মাধ্যমে হাথুরুসিংহে ক্ষতিপূরণ চাওয়ার যে দাবি পেশ করেছেন সেখানে চুক্তি আগেভাগেই শেষ করায় তাঁর লোকসানের বিষয়টি ছাড়াও ক্ষতিগ্রস্ত ইমেজের কথা উল্লেখ করা হয়েছে। বোর্ড পারিশ্রমিক দেওয়া বন্ধ করার পর অস্ট্রেলিয়ায় ফিরে গেছেন শ্রীলঙ্কার সাবেক এ ক্রিকেটার।

গত পাঁচ বছরে হাথুরুসিংহে শ্রীলঙ্কার তৃতীয় কোচ, যাঁকে চুক্তির মেয়াদ পূর্তির আগেই যেতে হলো। ২০১৫ সালে মারভান আতাপাত্তুর পর একই পরিণতি দেখেছিলেন গ্রাহাম ফোর্ড।

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার
খেলা বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর