• রোববার   ২৯ নভেম্বর ২০২০ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৫ ১৪২৭

  • || ১৪ রবিউস সানি ১৪৪২

সর্বশেষ:
বীজ ও সার পেলেন ছাতকের ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকরা দক্ষিণ সুনামগঞ্জে বিট পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত জগন্নাথপুর বাজারের প্রাচীনতম পুকুরের পরিচ্ছন্নতা শুরু করোনা : ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে সুস্থ ২৬ জন রায়হানের মৃত্যু অতিরিক্ত আঘাতেই

হবিগঞ্জে কমছে না শীতকালিন সবজির দাম

সিলেট সমাচার

প্রকাশিত: ২১ নভেম্বর ২০২০  

বাজারে এসেছে শীতের সবজি এসে গেছে। তবুও দামে উত্তাপ কমেনি। আলু ও পেঁয়াজের দাম কিছুটা কমলেও অন্য কোনো সবজির দাম মোটেও কমেনি। অগ্রহায়ন মাসে শীতের সবজির দাম অনেকটা কম থাকে। কিন্তু এ বছর বাজার ঘুরে দেখা গেছে এর ভিন্ন চিত্র। বিভিন্ন প্রকার সবজির দাম আকাশ ছোঁয়া। 

আলু প্রতিকেজি বিক্রি হচ্ছে ৫৫-৬০ টাকা, টমেটো ১২০-১৫০ টাকা, মূলা ৬০-৭০ টাকা, সিম ১০০-১২০ টাকা, জলপাই ৬০-৮০ টাকা, গাজর ৮০-১০০ টাকা, পটল ৫০-৬০ টাকা, পেপে ৫০-৬০ টাকা, জিঙ্গা ও চিচিঙ্গা ৮০-১০০ টাকা, ঢেড়শ ১৫০ টাকা, ধনিয়া পাতা ও কাঁচা মরিচ ১৫০-২০০ টাকা। এ ছাড়াও অন্যান্য সবজি গত বছরের চেয়ে দ্বিগুন তিনগুন দাম আদায় করছে ব্যবসায়ীরা।

ক্রেতা সাধারণরা বলছেন, ‘প্রত্যেকটি পণ্যেরই দাম বেশি। সবজি সবকিছুর দামই অনেক বেশি।’ খুচরা বিক্রেতা বলেন, দাম দিয়ে আনতে হয়, তাই কম দামে বিক্রি করা যায় না। অনেক সময় আমাদেরকে সবজি ব্যবসায় লোকসান গুনতে হয়। তবুও যতটুকু পারা যায় ক্রেতাদের নিকট কম দামে বিক্রি করার চেষ্টা করি। ক্রেতারা বলছেন, এ বছর সবজির দাম সবচেয়ে বেশি। এক হাজার টাকা নিয়ে বের হলে মাছ আর সবজি কিনলেই শেষ হয়ে যায়। হবিগঞ্জ শহরের সবচেয়ে বড় বাজার হচ্ছে চৌধুরী বাজার, শায়েস্তানগর, চাষি বাজার, বগলা বাজারসহ বিভিন্ন বাজারে সবজি আছে ঠিকই কিন্তু দাম বেশির কারণে কেউ কিনতে পারছেন না।
 

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার