শনিবার   ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০   ফাল্গুন ১৬ ১৪২৬   ০৫ রজব ১৪৪১

সর্বশেষ:
অবকাঠামো নির্মাণের কাজ দ্রুত শেষ করা হবে শিক্ষাব্যবস্থার আমূল পরিবর্তনের কথা চিন্তা করছে সরকার: পরিকল্পনামন্ত্রী বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে ওয়ানডে: টিকিটের দাম কত? সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়কে বিআরটিসির ডাবল ডেকার বাস চালু
২৫

স্কুলছাত্র হত্যায় জড়িতদের শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন

সিলেট সমাচার

প্রকাশিত: ২২ জানুয়ারি ২০২০  

 


হবিগঞ্জ শহরতলীর তেঘরিয়া গ্রামের ৫ম শ্রেণির ছাত্র (১০) ইসমাইল হোসেন বিদয়কে নির্মম ও নৃশংসভাবে হত্যার প্রতিবাদে এবং এ ঘটনায় জড়িতদের ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী।

আজ বুধবার (২২ জানুয়ারি) দুরন্ত পথিক সংগঠনের উদ্যোগে আয়োজিত হবিগঞ্জ জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে সকাল ১১টায় এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

এতে হবিগঞ্জ সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মাহবুবুল আলম আওয়াল, ৩নং তেঘরিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আনু মিয়াসহ ব্যবসায়ীবৃন্দ, ছাত্রছাত্রীসহ এলাকাবাসীরা অংশ নেন।

মানববন্ধনে বক্তারা বিদয় হত্যার দ্রুত বিচার দাবি করেন এবং খুনি সাইমিনসহ জড়িতদের অবিলম্বে ফাঁসি দেওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী ও প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

মানববন্ধন শেষে হবিগঞ্জ জেলা প্রশাসক বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।

প্রসঙ্গত, গত ১০ জানুয়ারি উত্তর তেঘরিয়া গ্রামের সৌদি প্রবাসী ফারুক মিয়ার ছেলে পঞ্চম শ্রেণির ছাত্র ইসমাইল হোসেন বিদয় (১০) পৌদ্দার বাড়ি এলাকায় নাটক দেখার কথা বলে বাড়ি থেকে বের হয়। এ সময় তার মা শাহেনা আক্তার কার সাথে যাবে জিজ্ঞাসা করলে সে বলে, পাশের বাড়ির নবম শ্রেণির ছাত্র শাহরিয়ার মারুফ ওরফে সাইমিনের সাথে যাবে। রাত ৮টা বেজে গেলে বিদয় বাড়িতে ফিরে না আসায় বিদয়ের মা তার চাচাদের জানালে তারা বিদয়ের সাথে থাকা মোবাইলে ফোন করলে সেটা বন্ধ পান।

আশেপাশে খোঁজাখুঁজি করে তাকে না পেয়ে তার মা শাহেনা আক্তার রাতেই হবিগঞ্জ সদর মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। বিভিন্ন পত্রিকায় নিখোঁজের সংবাদও ছাপা হয়।

এরপর গত ১৩ জানুয়ারি সকাল ১০টায় হবিগঞ্জ সদর উপজেলার লস্করপুর ইউনিয়নের চরহামুয়া গ্রামের পাশ দিয়ে বয়ে যাওয়া খোয়াই নদীর পূর্ব পাড়ে নদীর কিনারায় পানিতে বিদয়ের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। পরে বিদয়ের চাচা মো. টেনু মিয়া ১৪ জানুয়ারি বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা আসামিদের বিরুদ্ধে হবিগঞ্জ সদর মডেল থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলার সূত্র ধরে জেকে এন্ড এইচকে স্কুল অ্যান্ড কলেজের ৯ম শ্রেণির ছাত্র শাহরিয়ার মারুফ ওরফে সাইমিনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। সাইমিনকে গ্রেপ্তারের পর জানা যায়, মোবাইল ফোনের জন্য হত্যা করা হয় বিদয়কে।

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার
এই বিভাগের আরো খবর