রোববার   ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ৩০ ১৪২৬   ১৭ রবিউস সানি ১৪৪১

সর্বশেষ:
বুদ্ধিজীবি দিবসে মৌলভীবাজারে আলোচনা সভা সুনামগঞ্জে বুদ্ধিজীবী দিবস পালন সুনামগঞ্জে মহিলা পরিষদের গণসমাবেশ অনুষ্ঠিত গোয়াইনঘাটে যথাযোগ্য মর্যাদায় শহীদ বুদ্ধিজীবি দিবস পালিত সিলেটে বই মেলায় কাপড়ের দোকান ! প্রাথমিকে নেয়া হবে ১৮ হাজার শিক্ষক, ২৬ ডিসেম্বরের মধ্যে ফল ‘মোশতাক, জিয়ার মতো মীরজাফররা আর যেন ক্ষমতায় না আসে’
৭৭

সিলেটে হারিয়ে যাচ্ছে মজুমদার দিঘী 

সিলেট প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ২১ নভেম্বর ২০১৯  

 


সাগরদিঘীর পাড়, লালদিঘীর পাড়, রামেরদিঘীর পাড়- সিলেট নগরীর অন্তত ২০/২৫টি এলাকার নাম এরকম। দিঘীর নামে এলাকার নাম ঠিকই আছে, কিন্তু দিঘীগুলো নেই। ভরাট হয়ে গেছে অনেক আগেই।

একসময় সিলেটের পরিচিতি ছিলো দিঘীর শহর নামে। অপরিকল্পিত নগরায়নে এখন প্রায় সবগুলো দিঘীই ভরাট হয়ে গেছে। হাতেগোনা যে কয়েকটি টিকে আছে সেগুলোও রক্ষা করা যাচ্ছে না। নানা কৌশলে চলছে ভরাটের চেষ্টা। এরকম ভিন্ন কৌশলে চলছে নগরীর মজুমদারী এলাকার মজুমদারী দিঘী ভরাটের কাজ। দিঘীর উপর আবর্জনা ফেলে অনেকদিন ধরেই এই ভরাটের কাজ চলছে। এই আবর্জনার উপর রোপণ করা হয়েছে কলা গাছ। ফলে দিঘীর অস্তিত্বই এখন হারিয়ে গেছে। এই দিঘী ভরাট বন্ধে উচ্চ আদালত রায় থাকলেও তা মানা হচ্ছে না। এভাবে প্রশাসনও কার্যকর পদক্ষেপ নিচ্ছে না বলে অভিযোগ পরিবেশকর্মীদের।

নগরীর বিমানবন্দর সড়কের পাশে মজুমদারী এলাকায় প্রায় ৫১ শতক জায়গায় এই দিঘীর অবস্থান। ১৮৬৯ সালে তৎকালীন জমিদার সৈয়দ বখত মজুমদার এই দিঘী ও মাঠসহ তার জমিদারি ওয়াকফ সম্পত্তি হিসেবে দলিল করে দেন বলে জানা গেছে।

দিঘী ভরাট বন্ধে কার্যকর উদ্যোগ না নেওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করে বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) সিলেটের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল করিম কিম বলেন, আদালতের নির্দেশনা থাকা স্বত্বেও অদ্যাবধি দিঘীটির দখল উচ্ছেদে কোন উদ্যোগ তো নেয়া হয়নি উপরন্তু নতুন করে দখল ও ভরাট প্রক্রিয়া অব্যাহত আছে।

তবে সিলেট জেলা প্রশাসনের রেভিনিউ ডেপুটি কালেক্টর (আরডিসি) উম্মে সালিক রুমাইয়া বলেন, গত ৩ সেপ্টেম্বর জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের রাজস্ব শাখা থেকে মজুমদারি দিঘী ভরাট বন্ধকরণে ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পরিবেশ অধিদপ্তরের পরিচালক ও সিলেট সদর উপজেলার ভূমি অফিসের সহকারী কমিশনারকে চিঠি দেওয়া হয়েছে। এখন পর্যন্ত তাঁরা এ ব্যাপারে কোনো প্রতিবেদন দেননি বলে জানিয়েছেন রুমাইয়া।

এ ব্যাপারে সিলেটের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. আসলাম উদ্দিন বলেন, উচ্চ আদালতের আদেশ সংশ্লিষ্ট সকলে মিলেই বাস্তবায়ন করতে হবে। এ ব্যাপারে বিভিন্ন দপ্তরে ইতোমধ্যে চিঠিও দেওয়া হয়েছে।

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার