• মঙ্গলবার   ১১ আগস্ট ২০২০ ||

  • শ্রাবণ ২৭ ১৪২৭

  • || ২১ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

সর্বশেষ:
সবজি চাষ: দেড় লাখ কৃষককে সোয়া ১০ কোটি টাকার প্রণোদনা করোনায় বাংলাদেশে প্রায় ৪ কোটি শিক্ষার্থী ক্ষতিগ্রস্ত: ইউনেসকো নিউজিল্যান্ড জানাল, অন্য দলের সঙ্গে বাংলাদেশও আসবে সিলেটে আরো ৪৪ জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত সিলেট সিটি কর্পোরেশনের আওতায় আসলো শাবিপ্রবি স্ত্রী যখন পুড়ছিলেন, স্বামী তখন তাস খেলায় মগ্ন  পঞ্চম ও অষ্টম শ্রেণির পাবলিক পরীক্ষা হচ্ছে না!
১২৭

সাত বছর ধরে একই স্থানে রয়েছে প্রাণীটি

সিলেট সমাচার

প্রকাশিত: ৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

 

ছোটবেলায় স্ট্যাচু খেলেছেন নিশ্চয়? একজন অন্যজনকে স্ট্যাচু বললে নড়াচড়া বন্ধ করে থাকা! ঠিক তেমনি এক প্রাণী টানা সাত বছর ধরে স্ট্যাচু হয়ে রয়েছে। অবাক হচ্ছেন নিশ্চয়!

বাস্তবে এমনই এক প্রাণীর সন্ধান পেয়েছেন ইউরোপের গবেষকরা। স্যালামান্ডার নামের এই প্রাণীটি একটি সামুদ্রিক প্রাণী। এটি গিরগিটি সদৃশ উভচর জীব। ইউরোপের বিভিন্ন গুহায় বসবাস করে এ প্রাণীটি। গুহায় বসবাস করার কারণে একে গুহাবাসী স্যালামান্ডারও বলে থাকে।  

অন্ধকারাচ্ছন্ন জায়গায় তাদের অবস্থান। এদের চোখ নেই এবং শরীরের চামড়া ফ্যাকাসে বর্ণের। খাদ্য ছাড়াই বছরের পর বছর বাঁচতে পারে এই স্যালামান্ডাররা। গত ২৮ জানুয়ারি জার্নাল অব জুওলজিতে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এ সংক্রান্ত তথ্য তুলে ধরেন বসনিয়া ও হার্জেগোভিনার একদল বিজ্ঞানী।

গবেষকরা এই প্রাণীটিকে দুই হাজার ৫৬৯ দিন স্থির হয়ে এক জায়গাতেই অবস্থান করতে দেখেছেন। এই গবেষণার নেতৃত্ব দেন হাঙ্গেরির ইয়োতোভোস লোর্যান্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক গার্গেলি বালাস। তিনি বলেন, একই জায়গায় স্থির হয়ে থাকে এই স্যালামান্ডার। এ সময়টাতে প্রাণীগুলো কিছুই করে না।

গবেষকরা আরো বলছেন, এরা একই প্রজাতির প্রাণীকে কাছে পেলে কোনো কোনো ছোটো স্যালামান্ডার এক স্থান থেকে অন্য স্থানে যেতে পারে। তবে এটিও ঘটা খুব বিরল। এক যুগে একবার এ রকম ঘটনার দেখা মেলে।  

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার
সংগঠন সংবাদ বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর