সোমবার   ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০   ফাল্গুন ৪ ১৪২৬   ২২ জমাদিউস সানি ১৪৪১

সর্বশেষ:
বিদেশ থেকে আসা ফোনকলের খরচ কমলো আড়াই বছর পর ১৬ সদস্যের টেস্ট দলে তাসকিন জুড়ী উপজেলায় এডিপির টেন্ডার স্থগিত করলেন প্রকৌশলী কোন বয়সে শিশুর হাতে স্মার্টফোন দেবেন? সিলেটে দেখা মিললো পতঙ্গখেকো ‘সূর্যশিশির’ গ্যালাক্সি এস২০ নিয়ে যে কারণে এত আলোচনা চীনের জন্য মাস্কসহ স্বাস্থ্য সামগ্রী পাঠালেন প্রধানমন্ত্রী
৪১৬

শাবিপ্রবি ‘কিন’র উদ্যোগে শীতবস্ত্র সংগ্রহ ও বিতরণ

সিলেট সমাচার

প্রকাশিত: ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮  

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্যতম স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘কিন’ এর উদ্যোগে শীতবস্ত্র সংগ্রহ ও বিতরণ করা হয়েছে।

শুক্রবার (১৪ ডিসেম্বর) সুনামগঞ্জের জেলা দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার দরগাপাশা ইউনিয়নের ৫টি গ্রামের দরিদ্র ও দুঃস্থ মানুষদের মাঝে কম্বল এবং শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়। এসময় সর্বমোট ১২১টি পরিবারকে কম্বল বিতরণ করা হয়। এছাড়া বিভিন্ন স্থান থেকে সংগ্রহকৃত কাপড় দরিদ্র ও দুঃস্থ মানুষদের মাঝে বিতরণ করে তারা। শীতবস্ত্র ও কম্বল বিতরণকালে সংগঠনের সদস্যবৃন্দ ও শুভাকাঙ্খীরা উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে গত বুধবার (১২ ডিসেম্বর) শীতবস্ত্র ও কম্বল বিতরণ কর্মসূচির অংশ হিসেবে কিন স্কুল’র ৯৫ জন শিক্ষার্থীর মাঝে শীতবস্ত্র ও পেট্রোলিয়াম জেলি বিতরণ করা হয়। শীতবস্ত্র বিতরণকালে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনটির উপদেষ্টা ও ইংরেজি বিভাগের অধ্যাপক ড. হিমাদ্রী শেখর রায়, পলিটিক্যাল স্টাডিজ বিভাগের অধ্যাপক জায়েদা শারমীন, অর্থনীতি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক চৌধুরী আবদুল্লাহ আল বাকি প্রমুখ।

শীতবস্ত্র সংগ্রহ ও বিতরণ কর্মসূচী’১৮ এর আহ্বায়ক শায়লা খানম বলেন,’ শীতবস্ত্র সংগ্রহ ও বিতরণ আমাদের ক্ষুদ্র প্রয়াস। যাতে আমরা আমাদের সামান্য সহযোগিতা দিয়ে দরিদ্র মানুষের মুখে ফুটিয়ে তুলতে পারি।’ এসময় তিনি কর্মসূচীতে অংশগ্রহণ করা সকলকে কিন এর পক্ষ থেকে আন্তরিক ধন্যবাদ।

শীতবস্ত্র সংগ্রহ ও বিতরণ সম্পর্কে সংগঠনের সভাপতি কাজী তৌসিফ হুদা বলেন, ‘কিন সবসময়ই সমাজের সুবিধাবঞ্চিত মানুষের পাশে দাঁড়াতে চেষ্টা করে। প্রতিবছরের ন্যায় এবারো আমরা শীতবস্ত্র সংগ্রহ ও বিতরণ করেছি। আমরা গত ১২ নভেম্বর থেকে ১২ ডিসেম্বর পর্যন্ত শীতবস্ত্র সংগ্রহ করি। আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ের হলগুলো, আখালিয়া, সুরমা, মদিনা মার্কেট, আম্বরখানাসহ বিভিন্ন এলাকা মেস ও বাসাবাড়ি থেকে আর্থিক অনুদান ও শীতবস্ত্র সংগ্রহ করে দরিদ্র ও দুঃস্থ ও অসহায় মানুষদের মাঝে বিতরণ করার চেষ্টা করি আসলেই যাদের এই শীতবস্ত্রের দরকার আছে।’

তিনি আরো বলেন, কিন’র চ্যারিটি, কিন স্কুল, সোশ্যাল এওয়ারনেস, ব্লাড ডোনেশন, শীতবস্ত্র সংগ্রহ ও বিতরণীমূলক পাঁচটি উইং রয়েছে। যার মধ্যে শীতবস্ত্র সংগ্রহ ও বিতরণ অন্যতম। এসময় তিনি তাদের এই প্রয়াসকে চালিয়ে যেতে সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার
এই বিভাগের আরো খবর