শুক্রবার   ২৩ আগস্ট ২০১৯   ভাদ্র ৮ ১৪২৬   ২১ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

সর্বশেষ:
আজ ‘গাঙচিল’ উদ্বোধন আদালতে বঙ্গবন্ধুর ছবি টাঙানোর নির্দেশনা চেয়ে রিট ঢাকা-দিল্লি সম্পর্ক ইতিবাচক : জয়শঙ্কর প্রত্যাবাসনের বিপক্ষে প্রচারণা চালালে ব্যবস্থা : পররাষ্ট্রমন্ত্রী রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে প্রস্তুত ঘুমধুম পয়েন্ট
১১৪

শতাধিক তরুণীকে ব্ল্যাকমেইল, সিলেটের যুবক গ্রেফতার

সিলেট (ওসমানীনগর) প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ৪ আগস্ট ২০১৯  

বত্রিশ বছর বয়সী শাহ জাহাঙ্গীর আলীর বাড়ি সিলেটের ওসমানীনগর উপজেলার ফকিরাবাদ গ্রামে। শাহ কলমদর আলী মাস্টারের এই ছেলে ব্ল্যাকমেইলিংয়ে ভয়ঙ্কর হয়ে ওঠেছিলেন। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে প্রবাসী ব্যক্তিদের নাম ও ছবি ব্যবহার করে ভুয়া আইডি তৈরি করে তরুণী, যুবতী ও মহিলাদের ফাঁদে ফেলে ব্ল্যাকমেইল করতেন তিনি, হাতিয়ে নিতেন টাকা।

দীর্ঘদিন ধরে শতাধিক তরুণী, যুবতী ও মহিলা তার শিকার হয়েছেন। অবশেষে এই ব্ল্যাকমেইলারকে গ্রেফতার করেছে পুলিশের ক্রিমিনাল ইনভেস্টিগেশন ডিপার্টমেন্ট (সিআইডি) এর একটি টিম। কাল শনিবার মৌলভীবাজারের সরকাবার বাজার এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। তার বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ২০১৮ এর ২৪/২৫/২৯ ধারায় মামলা রয়েছে।

সিআইডি’র সাইবার পুলিশ সেন্টার জানিয়েছে, জাহাঙ্গীর আলী প্রবাসী কোনো ব্যক্তির ফেসবুক আইডি থেকে তথ্য ও ছবি সংগ্রহ করে ভুয়া আইডি তৈরি করতেন। এরপর ওই ভুয়া আইডি দিয়ে ভিকটিমদের ফ্রেন্ডলিস্টে যুক্ত হতেন। পরবর্তীতে নিজেকে প্রবাসী পরিচয় দিয়ে ভিকটিমদের সাথে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক গড়ে তুলতেন। কিছুদিন পর ভিকটিমকে পছন্দ হয়েছে জানিয়ে তাকে বিয়ে করার আগ্রহ প্রকাশ করেন জাহাঙ্গীর। অভিভাবকদের দেখানোর কথা বলে ভিকটিমদের কাছ থেকে তার ও তার পরিবারের ছবি সংগ্রহ করতেন তিনি। যেসব ভিকটিমের সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তুলতেন, তাদেরকে বিয়ের প্রলোভনে দেখিয়ে কৌশলে তাদের একান্ত ছবি সংগ্রহ করতেন জাহাঙ্গীর। একান্ত ছবি সংগ্রহ করতে না পারলে স্বাভাবিক ছবিকে এডিট করে অশ্লীল ও নগ্ন ছবি তৈরি করতেন জাহাঙ্গীর আলী।

সাইবার পুলিশ সেন্টার আরো জানায়, ভিকটিমদের সাথে সম্পর্ক গড়ে তোলার একপর্যায়ে জাহাঙ্গীর বিয়ে করতে দেশে আসার কথা জানান। নিজের বাবার অসুস্থতা বা অন্য কোনো সমস্যার কথা বলে ভিকটিমের কাছে টাকা চান তিনি। ভিকটিম টাকা দিতে রাজি না হলে তাদের নামে ভুয়া ফেসবুক আইডি তৈরি করে অশ্লীল ও নগ্ন ছবি প্রকাশ করতেন জাহাঙ্গীর। এসব ছবি ভিকটিমের ম্যাসেঞ্জারে পাঠিয়ে টাকা দাবি করতেন তিনি। নিজের একাধিক ভুয়া ফেসবুক আইডির মাধ্যমে এসব নগ্ন ছবি প্রকাশ করে ভিকটিমকে সামাজিকভাবে হেয়প্রতিপন্ন করার হুমকি দিয়ে মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে টাকা আদায় করতেন জাহাঙ্গীর।

সিআইডি’র সাইবার পুলিশ সেন্টার জানিয়েছে, জাহাঙ্গীর আলীর একাধিক ফেসবুক আইডি থেকে শতাধিক ভিকটিমের একান্ত ব্যক্তিগত ছবি ও ভিডিও পাওয়া গেছে। এসব ভিকটিম জাহাঙ্গীরের মাধ্যমে বিভিন্ন সময়ে ব্ল্যাকমেইলিংয়ের শিকার হয়েছেন।

গ্রেফতারকৃত জাহাঙ্গীর আলীর কাছ থেকে বেশকিছু সিম কার্ড, একাধিক মোবাইল ফোন এবং একটি সাদা রংয়ের প্রাইভেটকার ( রেজি নং-১৩-৭২৩৯) জব্দ করা হয়েছে।

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার
এই বিভাগের আরো খবর