সোমবার   ১৮ নভেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ৩ ১৪২৬   ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

সর্বশেষ:
স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি নির্মল সম্পাদক বাবু অপরাধ নির্মুলে সাংবাদিকদের সহযোগিতা প্রয়োজন: ওসি রঞ্জন  পেঁয়াজের ঝাঁজে নিম্নবিত্তের কান্না পেঁয়াজ বিমানে উঠে গেছে কাল-পরশু এলেই দাম কমবে তরুণরাই এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে দেশ: এমপি জাহির
১৪

রিমান্ড শেষে কাউন্সিলর তারেকুজ্জামান রাজীব কারাগারে

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৪ নভেম্বর ২০১৯  

অস্ত্র ও মাদক মামলায় গ্রেপ্তার ঢাকার উত্তর সিটি করপোরেশনের কাউন্সিলর তারেকুজ্জামান রাজীবকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালত আজ সোমবার এই আদেশ দেন।

এর আগে তারেকুজ্জামানকে ১৪ দিন রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আজ সোমবার ঢাকার আদালতে হাজির করে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। একই সঙ্গে কাউন্সিলর তারেকুজ্জামানকে কারাগারে পাঠানোর আবেদন করে পুলিশ। 

অপরদিকে, তারেকুজ্জামানের আইনজীবীরা আদালতের কাছে জামিনের আবেদন করেন। আদালত উভয় পক্ষের বক্তব্য শুনে তাঁকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

এর আগে গত ২১ অক্টোবর কাউন্সিলর তারেকুজ্জামানকে অস্ত্র ও মাদক মামলায় সাত দিন করে মোট ১৪ দিন রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করার অনুমতি দেন আদালত।

পুলিশ আদালতকে এক প্রতিবেদন দিয়ে বলছে, আসামি তারেকুজ্জামান দীর্ঘদিন ধরে অবৈধ আগ্নেয়াস্ত্র নিজের হেফাজতে রেখে ভূমিদস্যু, চাঁদাবাজি, অবৈধ দখলদারিসহ এলাকায় ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করে মোহাম্মদপুর এলাকায় ত্রাসের সুলতান হিসেবে আবির্ভূত হয়। তাঁর গঠিত সন্ত্রাসী বাহিনী স্থানীয় লোকজনকে জিম্মি করে বিপুল পরিমাণ অর্থের মালিক হন। তাঁর সন্ত্রাসী বাহিনীর ভয়ে এলাকায় কেউ মুখ খুলতে পারে না।

তারেকুজ্জামানকে ২০ অক্টোবর রাজধানীর বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার একটি বাসা থেকে কাউন্সিলর তারেকুজ্জামানকে গ্রেপ্তার করে র‍্যাব। তাঁর বিরুদ্ধে মোহাম্মদপুর এলাকায় বাড়ি দখল জমি দখলসহ নানা ধরনের অভিযোগ রয়েছে।

তারেকুজ্জামান রাজীব ২০১৫ সালে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে কাউন্সিলর নির্বাচিত হন। তিনি মোহাম্মদপুর থানা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক ছিলেন। এক মুক্তিযোদ্ধাকে লাঞ্ছিত করার অভিযোগে তাঁকে সংগঠন থেকে বহিষ্কার করা হয়েছিল। পরবর্তী সময়ে আবার ঢাকা মহানগর উত্তর যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হন তিনি।

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার
এই বিভাগের আরো খবর