শুক্রবার   ২৩ আগস্ট ২০১৯   ভাদ্র ৮ ১৪২৬   ২১ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

সর্বশেষ:
আজ ‘গাঙচিল’ উদ্বোধন আদালতে বঙ্গবন্ধুর ছবি টাঙানোর নির্দেশনা চেয়ে রিট ঢাকা-দিল্লি সম্পর্ক ইতিবাচক : জয়শঙ্কর প্রত্যাবাসনের বিপক্ষে প্রচারণা চালালে ব্যবস্থা : পররাষ্ট্রমন্ত্রী রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে প্রস্তুত ঘুমধুম পয়েন্ট
১৫

রাস্তায় গরুর হাট, মেয়রের ক্ষোভ

সিলেট প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১১ আগস্ট ২০১৯  

সিলেট নগরে অনুমোদন ছাড়াই বসানো অবৈধ পশুর হাট নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। রোববার দুপুর সাড়ে ১২টায় নগরের ঐতিহাসিক শাহী ঈদগাহ পরিদর্শন শেষে এ ক্ষোভ প্রকাশ করেন মেয়র।

মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বলেন, সিলেট নগরে দুটি হাটের অনুমোদন দিয়েছে সিটি কর্পোরেশন। এর বাইরে যত হাট আছে সব অবৈধ। এসব অবৈধ হাটের ময়লা-আবর্জনা আমাদের পরিষ্কার করতে হবে।

তিনি বলেন, সিসিক জেলা প্রশাসনের কাছে নগরে নয়টি হাটের জন্য অনুমতি চেয়েছিল। কিন্তু জেলা প্রশাসন মাত্র দুটি হাটের অনুমোদন দেয়। এরপর এখন রাস্তায় বসেছে অবৈধ গরুর হাট। জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসন কঠোর না হওয়ায় এবার নগরের রাস্তার পাশে অবৈধ হাটের ছড়াছড়ি।

কোরবানির বর্জ্য অপসারণ নিয়ে মেয়র বলেন, ঈদের দিন দুপুর ১২টার পর থেকে বর্জ্য অপসারণ কাজ শুরু হয়ে যাবে। সন্ধ্যার আগেই ছয় ঘণ্টার মধ্যে ময়লা অপসারণের চেষ্টা থাকবে আমাদের।

তবে সন্ধ্যার আগেই বর্জ্য অপসারণের বিষয়টি ব্যাখ্যা করে সিসিকের প্রশাসনিক কর্মকর্তা হানিফুর রহমান বলেন, বর্জ্য অপসারণের কয়েকটি ধাপ আছে। কোরবানির পর পশুর রক্ত সন্ধ্যার আগেই অপসারণ করা সম্ভব হবে। তবে বিকেল থেকে চামড়ার যে বাজার বসবে, সেগুলোর বর্জ্য অপসারণ করতে ২৪ ঘণ্টা লাগবে।এ সময় সিসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা বিধায়ক রায় চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন।

জানা গেছে, সিলেট নগরের বিভিন্ন এলাকায় রাস্তার পাশে অন্তত ৩০টি অবৈধ পশুর হাট বসানো হয়েছে। এসব পশুর হাট নিয়ন্ত্রণ করছেন সরকারদলীয় নেতাকর্মীরা।

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার
এই বিভাগের আরো খবর