• শনিবার   ১৯ জুন ২০২১ ||

  • আষাঢ় ৬ ১৪২৮

  • || ০৮ জ্বিলকদ ১৪৪২

সর্বশেষ:
ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক জাকিরের গাড়িতে হামলা চেষ্টা ওসমানী হাসপাতালের নার্সরা পাচ্ছেন আড়াই কোটি টাকা সিলেট কালিঘাটে সিসিকের অভিযান সিলেটে ফিরে ঐক্যের আহ্বান হাবিবের বন্ধ ক্লাবে পরীমনিকে নিয়ে যায় অমি, দুই মিনিটের কথা বলে ২ ঘণ্টা সিলেটে মৃত্যুহীন দিনে ৮৪ করোনা রোগী শনাক্ত

ভবন থেকে পড়ে যুবকের মৃত্যু, গ্রেফতার ৩

সিলেট সমাচার

প্রকাশিত: ৮ জুন ২০২১  

সিলেটে ভবন থেকে পড়ে রাবিদ আহমদ নাজিম (৩১) নামের এক যুবকের রহস্যজনক মৃত্যুর ঘটনায় এক নারীসহ তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
 
মঙ্গলবার (৮ জুন) নিহত নাজিমের পরিবারের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে তাদের গ্রেফতার করা হয়।
 
এর আগে সোমবার (৭ জুন) দিনগত রাতে নিহত নাজিমের বাবা আব্দুন নুর বাদী হয়ে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় তাদের গ্রেফতার দেখানো হয়।
 
গ্রেফতার তিনজন হলেন- সিলেট নগরের কাজিটুলা চৌধুরী ভিলার পাঁচ তলা ভবনের বাসিন্দা শাহনিয়া বেগম (৩০), একই বাসার বাসিন্দা আলাউদ্দিন আনোয়ারের ছেলে আকবর (২৬) ও ইয়ামিন আহমদ (২৪)।
 
কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এস এম আবু ফরহাদ বলেন, ছেলেকে হত্যার অভিযোগ এনে তিনজনকে আসামি করে নিহত নাজিমের বাবার দায়ের করা মামলায় সকালে ওই তিনজনকে  গ্রেফতার করার পর আদালতে সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করা হয়েছে।
 
সোমবার (৭ জুন) সকালে নগরের কাজিটুলা উচাসড়ক বি/৫ নম্বর বাসার সামনে ওই যুবককে মুমূর্ষ অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন স্থানীয়রা। গুরুতর অবস্থায় তাকে ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে দুপুরের দিকে তার মৃত্যু হয়।
 
নিহত নাজিম আহমদ সিলেটের শাহপরাণ থানার পিরেরবাজার এলাকার আটগাও কেউয়া গ্রামের বাসিন্দা নুর মিয়ার ছেলে।  

নাজিম দৈনিক যায়যায়দিন পত্রিকার বন্ধু ফোরামের সদস্য ছিলেন বলে দৈনিক যায়যায় দিনের ব্যুরো প্রধান কাইয়ুম উল্লাস জানিয়েছেন।

নিহত নাজিমের পরিবারের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, সকালে নাজিমের বাবাকে কাজিটুলা থেকে অজ্ঞাতপরিচয় এক ব্যক্তি মোবাইল ফোনে কল করে বলেন, পাঁচতলা ভবন থেকে পড়ে নাজিম গুরুতর আহত হয়েছেন। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। খবর পেয়ে তার স্বজনরা দ্রুত হাসপাতালে গেলে তাকে মৃত অবস্থায় দেখতে পান।

নিহত নাজিমের ভাই জামিল আহমদ পুলিশকে বলেন, কে বা কারা রোববার (৬ জুন) রাতে নাজিমকে কল করে কাজিটুলায় নিয়ে যান। সে রাতে আর তিনি বাড়ি ফেরেনি। এরপর থেকে তার ফোনও বন্ধ পাওয়া যায়।

ওসি ফরহাদ আরো বলেন, নাজিম নগরের কাজিটুলা উচাসড়ক বি/৫ নম্বর বাসায় সাবলেট হিসেবে ভাড়া থাকতেন। ওই নারীর বিয়ে হলেও তিনিও এসে মাঝেমধ্যে এই বাসায় থাকতেন। তবে হত্যার ঘটনাটি কী কারণে ঘটেছে, তা এখনো সুনির্দিষ্ট করে বলা যাচ্ছে না। নারী ঘটিত কারণে হত্যার ঘটনাটি ঘটেছে কিনা, তা সামনে রেখে তদন্ত চলছে। এছাড়া গ্রেফতারদের আদালতে হাজির করে রিমান্ড চাওয়া হয়েছে।  

বুধবার (৯ জুন) রিমান্ড শুনানি হতে পারে বলেও জানান ওসি ফরহাদ। 

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার