• শুক্রবার   ০৫ মার্চ ২০২১ ||

  • ফাল্গুন ২১ ১৪২৭

  • || ২১ রজব ১৪৪২

সর্বশেষ:
করোনার টিকা নিলেন প্রধানমন্ত্রী করোনা শনাক্তের হার ঊর্ধ্বমুখী, ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত ৬১৯ বাংলাদেশকে অভিনন্দন জানালেন জাতিসংঘের মহাসচিব মুশতাকের সব রিপোর্টে স্বাভাবিক মৃত্যুর কথা পাওয়া গেছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী করোনা যখন পারেনি, আর কেউ থামাতে পারবে না: প্রধানমন্ত্রী এইচ টি ইমাম মারা গেছেন সিরাজগঞ্জে এইচ টি ইমামের প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত সীমান্তে প্রতিটি হত্যাকাণ্ড দুঃখজনক: জয়শঙ্কর

বিয়ানীবাজারে তিন ইউনিয়নের দুর্ভোগের নাম স্লুইচগেট

সিলেট সমাচার

প্রকাশিত: ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২১  

সিলেটের বিয়ানীবাজারের করস্বতী খাল ও কুশিয়ারা নদীর সংযোগস্থলে নির্মিত স্লুইচগেট এখন লক্ষাধিক মানুষের জন্য অভিশাপে পরিণত হচ্ছে। এই স্লুইচগেটের কারণে বিয়ানীবাজার উপজেলার ৩টি ইউনিয়নের কমপক্ষে ৩৫টি গ্রামের মানুষকে গত একযুগ ধরে কৃষিকাজে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। তাদের দাবি, দ্রুত এই স্লুইচগেট বাতিল করে কৃষি আবাদ নিশ্চিত করার ব্যবস্থা নিতে হবে।

স্থানীয়রা জানান, উপজেলার আলীনগর ইউনিয়নের করস্বতী খাল ও কুশিয়ারা নদীর সংযোগস্থলে নির্মিত অপরিকল্পিত এই স্লুইচগেট এখন কৃষি আবাদের প্রধান অন্তরায়। প্রায় ১২ বছর আগে নির্মিত এই গেটের কারণে আবাদি জমির ফসল বিনষ্ট হচ্ছে। পানিশূন্যতার কারণে এতদঞ্চলের কৃষি আবাদ বন্ধ হওয়ার পথে। বিয়ানীবাজার উপজেলার আলীনগর, চারখাই ও শেওলা ইউনিয়নের কৃষকরা এতদঞ্চলের হাওরাঞ্চল ও কৃষিজমিতে বোরো আবাদ করে থাকেন। কিন্তু গত ১২ বছর ধরে বোরো ধানের আবাদ নেই বললেই চলে। তাই স্থানীয় কৃষকদের দাবি স্লুইচগেটটি অপসারণের।

স্থানীয় সূত্র জানায়, কুশিয়ারা নদীর দক্ষিণ তীরবর্তী কুড়ারবাজার এলাকার মানুষের অনুরোধের প্রেক্ষিতে সিলেট-জকিগঞ্জ-বিয়ানীবাজার সড়কের সঙ্গে যোগাযোগব্যবস্থা সহজ করতে এই স্লুইচগেট নির্মাণ করা হয়েছিল, যা পানির প্রবাহ ধরে রাখতে কোনো কাজে আসছে না। আর পানির প্রবাহ নিশ্চিত না হওয়ায় এখানকার প্রায় ৩ লাখ হেক্টর কৃষিজমি বিরাণভূমিতে পরিণত হয়েছে। এছাড়া ঝরাবিল, পদ্মবিল, বুড়িবিল, দুবাগবিল, সদাখাল, মেঘারখাল, মাটিখালা, চুন্নিবিলসহ অন্যান্য জলাভূমিতে দেশীয় মাছের আকাল পড়েছে। 

মুক্তিযুদ্ধ গবেষক হাবীব আহমদ দত্ত চৌধুরী বলেন, 'অপরিকল্পিত স্লুইচগেটের কারণে বন্যার মৌসুমে কুশিয়ারার পানি করস্বতী খাল দিয়ে প্রবাহমান না হওয়ায় খালটি পলিতে ভরাট হয়ে পড়েছে।'

আলীনগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মামুনুর রশীদ বলেন, 'স্লুইচগেটটি না সরালে এতদঞ্চলের কৃষকদের না খেয়ে মরতে হবে।'
বিয়ানীবাজার উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা মৌসুমী মাহবুব বলেন, 'এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে বিষয়টি আমাকে জানানো হয়েছে। পানি উন্নয়ন বোর্ডসহ সংশ্লিষ্টদের ব্যবস্থা নিতে পত্র প্রেরণ করা হবে।'

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার