শনিবার   ১৮ জানুয়ারি ২০২০   মাঘ ৫ ১৪২৬   ২২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১

সর্বশেষ:
এক বছরে সিলেটের উন্নয়ন কাজের ফিরিস্তি দিলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী বিএনপি নির্বাচনকে বিতর্কিত করতে নির্বাচনে আসে: দীপু মনি নির্বাচনের তারিখ পরিবর্তনে সরকারের আপত্তি নেই: কাদের প্রথম শিরোপার স্বাদ পেতে আজ মুখোমুখি খুলনা-রাজশাহী ভালো নেই বেদে সম্প্রদায় বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব শুরু আজ যেভাবে এগুচ্ছে পদ্মাসেতুর সড়কপথ
১৮২

প্রধানমন্ত্রীর জামাতা মাশরুরকে নিয়ে তারেকের নতুন ষড়যন্ত্র

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৭ জানুয়ারি ২০২০  

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তার মেয়ে জামাই মাশরুর হোসাইন মিতুকে নিয়ে মিথ্যা সংবাদ পরিবেশন করে জনমনে বিভ্রান্তি সৃষ্টির পাঁয়তারা করছে কিছু বেনামি অনলাইন পত্রিকা। বিভ্রান্তিকর এসব সংবাদে দাবি করা হচ্ছে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মেয়ে জামাই মাশরুর হোসাইন মিতু দুর্নীতির মাধ্যমে অর্জিত টাকা কাতার থেকে আরব আমিরাতে নিজের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে অবৈধ উপায়ে পাচার করেছেন। অবৈধ পন্থায় অর্থ পাচার করার অভিযোগে মিতু পাসপোর্ট জব্দসহ তাকে আরব আমিরাত কর্তৃপক্ষ গৃহবন্দী করে রেখেছে বলেও সংবাদে দাবি করা হয়েছে, যা প্রকৃতপক্ষে সত্য নয়।

জানা গেছে, রাজনীতিতে ব্যর্থ হয়ে লন্ডনে বসবাসরত তারেক জিয়ার সহচররা দেশ ও বিদেশে প্রধানমন্ত্রী ও তার আত্মীয়-স্বজনদের সুনাম ক্ষুণ্ণ করতে ভিত্তিহীন তথ্য দিয়ে এসব সংবাদ পরিবেশন করছে। রাজনৈতিক উদ্দেশ্য হাসিল করতে প্রধানমন্ত্রীর পরিবারের সদস্যদের টার্গেট করে এসব ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রীর আগামী ১৩ ও ১৪ জানুয়ারির আরব আমিরাত সফর নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়াতেই এই ধরণের উদ্ভট ও কুরুচিপূর্ণ সংবাদ পরিবেশন করছে কিছু গণমাধ্যম। মূলত বিএনপি-জামায়াত সমর্থিত কিছু দেশবিরোধী চক্র প্রধানমন্ত্রীর পরিবারের সদস্যদের নিয়ে এসব অপকর্ম করছে বলেও জানা গেছে।  

প্রধানমন্ত্রীর মেয়ে জামাইকে নিয়ে বিভ্রান্তিকর সংবাদের বিষয়ে জানতে চাইলে একজন রাজনৈতিক বিশ্লেষক বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তার পরিবারের সদস্যদের চরিত্রহনন করতে সদা-ষড়যন্ত্রে লিপ্ত থাকে কিছু রাজনৈতিক চক্র। দেশ ও দেশের বাইরে অবস্থানকারী এসব চক্র বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে উদ্ভট ও মুখরোচক সংবাদ প্রচার করে জনগণকে বিভ্রান্ত করতে চায়। সত্যি বলতে মানি লন্ডারিংয়ের সাথে তো বিএনপির বড় বড় রাজনীতিবিদ জড়িত। খোদ দলটির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মানি লন্ডারিং, অর্থ পাচার, দুর্নীতি ও নানা অপকর্মের সাথে জড়িত। তার বিরুদ্ধে গুরুতর আরো অভিযোগ রয়েছে। এসব অভিযোগ থেকে রেহাই পেতেই তারা হয়তো নতুন চক্রান্ত শুরু করেছে।

তিনি আরো বলেন, মূলত রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রীর আরব আমিরাত সফর নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়াতেই এবং তার পরিবারের সদস্যদের সম্মান নষ্ট করতেই এসব মিথ্যাচার করা হচ্ছে। এই সংবাদগুলোর কোনো ভিত্তি নেই। সম্মানী মানুষের সম্মান নষ্ট করাটা অশোভন আচরণ।

এদিকে রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, বাংলাদেশের যাবতীয় অর্জনকে বিতর্কিত করতে খুঁজে খুঁজে মিথ্যা সংবাদ প্রচার করা হচ্ছে। আর এই কাজে প্রধানমন্ত্রী ও তার পরিবারের সদস্যদের টার্গেট করে অযৌক্তিক ও ভুয়া সংবাদ প্রচার করছে কিছু চক্র। উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে প্রধানমন্ত্রীর জামাইকে নিয়ে মিথ্যা সংবাদ প্রচার করাটা সেই রাজনৈতিক ষড়যন্ত্রের অংশ বলেও মনে করছেন তারা।

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার
এই বিভাগের আরো খবর