• শুক্রবার   ১৮ জুন ২০২১ ||

  • আষাঢ় ৪ ১৪২৮

  • || ০৭ জ্বিলকদ ১৪৪২

সর্বশেষ:
ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক জাকিরের গাড়িতে হামলা চেষ্টা ওসমানী হাসপাতালের নার্সরা পাচ্ছেন আড়াই কোটি টাকা সিলেট কালিঘাটে সিসিকের অভিযান সিলেটে ফিরে ঐক্যের আহ্বান হাবিবের বন্ধ ক্লাবে পরীমনিকে নিয়ে যায় অমি, দুই মিনিটের কথা বলে ২ ঘণ্টা সিলেটে মৃত্যুহীন দিনে ৮৪ করোনা রোগী শনাক্ত

পরকীয়ার জেরে স্ত্রীকে হত্যার চেষ্টা, কারাগারে স্বামী 

সিলেট সমাচার

প্রকাশিত: ২৯ মে ২০২১  

সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলায় ৮ নং তোয়াকুল ইউনিয়নের পাইকরাজ গ্রামে পরকীয়ার জেরে পাঁচ সন্তানের জননী গৃহবধূ সুলতানা বেগমকে হত্যার চেষ্টা মামলায় স্বামী কারাগারে।

সুলতানা বেগম (৩৫) এর উপর হামলার ঘটনায় তার পিতা লেঙ্গুড়া ইউনিয়নের গুরুকচি গ্রামের বাসিন্দা কলিমউল্লা বাদি হয়ে গোয়াইনঘাট থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় গোয়াইনঘাট থানা পুলিশ সুলতানা বেগমের স্বামী ফারুক আহমদকে গ্রেফতার করেন। গ্রেফতারকৃত ফারুক ৮ নং তোয়াকুল ইউনিয়নের পাইকরাজ গ্রামের বাসিন্দা।

জানা গেছে, লেঙ্গুড়া ইউনিয়নের গুরুকচি গ্রামের কলিমউল্লা এর মেয়ে সুলতানা বেগমকে বিয়ে দেন ৮ নং তোয়াকুল ইউনিয়নের পাইকরাজ গ্রামের বাসিন্দা ফারুক আহমদের সহিত। বর্তমানে সুলতানা পাঁচ সন্তানের জননী। বিয়ের পর থেকে স্বামী ফারুক বিভিন্ন নারীদের সাথে পরকীয়ায় লিপ্ত রয়েছে। পরকীয়া নিয়ে স্বামী ফারুকের সাথে সুলতানার ঝগড়া বিবাদ লেগেই থাকে।

সর্বশেষ গত বুধবার (২৬ মে) সন্ধ্যায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে সুলতানার মাথায় আঘাত করে হাত বেধে পুকুরে ফেলে দেয় স্বামী ফারুক। পরে সুলতানার চিৎকারের আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসেন এবং সুলতানাকে পানি থেকে উদ্ধার করেন। এমন ঘটনার খবর পেয়ে সুলতানার পিতা ও স্বজনরা গিয়ে তাকে রক্তাক্ত অবস্থায় সিওমেকে ভর্তি করেন। বর্তমানে হাসপাতালের ৪র্থ তলায় ৬নং ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন। তবে সুলতানার অবস্থা গুরুতর।

ঘটনার পরদিন গত বৃহস্পতিবার সুলতানার পিতা কলিমউল্লা বাদি হয়ে গোয়াইনঘাট থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগ দায়েরের ভিত্তিতে মামলা রুজু করা হয়। মামলার প্রধান আসামি সুলতানার স্বামী ফারুক আহমদকে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে গ্রেফতার করেন সালুটিকর পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ ইন্সপেক্টর শফিকুল ইসলাম খান। বর্তমানে সুলতানার স্বামী ফারুক কারাগারে।

সুলতানার পিতা কলিমউল্লা জানান, ফারুক আহমদ একজন নারী লোভী। সে তার বড় ভাইয়ের স্ত্রী ও গ্রামের একটি মেয়ের সাথে পরকীয়ায় লিপ্ত রয়েছে। এ সকল বিষয়ে সুলতানা একাধিকবার বাধা প্রদান করলে স্বামী ফারুক তাকে মারধর করে। গ্রামের একটি মেয়েকে বিয়ে করতে বেপরোয়া হয়ে উঠেছে ফারুক। ওই মেয়েকে বিয়ে করার জন্য সে সুলতানাকে হত্যার চেষ্টা করে।

গোয়াইনঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি আব্দুল আহাদ ফারুক আহমদকে আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করে মামলার তদন্ত কার্যক্রম অব্যাহত আছে বলে জানান।
 

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার