• সোমবার   ১৯ এপ্রিল ২০২১ ||

  • বৈশাখ ৫ ১৪২৮

  • || ০৬ রমজান ১৪৪২

সর্বশেষ:
শ্রীমঙ্গলে কঠোরভাবে লকডাউন কার্যকর করতে পুলিশের চেকপোস্ট করোনা: সিলেটে ২৪ ঘন্টায় ২ জনের মৃত্যু করোনা: স্থান সঙ্কুলান হচ্ছে না শামসুদ্দিন হাসপাতালে করোনায় এক দিনে আবারও শতাধিক মৃত্যু জগন্নাথপুরে বিয়ের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় প্রেমিকের আত্মহত্যা! বনানীর কবরস্থানে চিরনিদ্রায় শায়িত হলো কবরী

নাসির-তামিমার বিরুদ্ধে চার অভিযোগ রাকিবের

সিলেট সমাচার

প্রকাশিত: ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১  

ক্রিকেটার নাসির হোসেন ও তার সদ্য বিবাহিত স্ত্রী তামিমা সুলতানা তাম্মির বিরুদ্ধে মামলা করেছেন তাম্মির আগের স্বামী মো. রাকিব হাসান। মামলায় আগের বিয়ে গোপন রেখে নতুন বিয়ে, অন্যের স্ত্রীকে প্রলুব্ধ করে নিয়ে যাওয়া, ব্যাভিচার ও মানহানির অভিযোগ আনা হয়েছে।
বুধবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ জসিমের আদালতে রাকিব হাসান এ মামলা করেন।

রাকিবের আইনজীবী অ্যাডভোকেট ইশরাত হাসান বলেন, মামলায় তামিমা সুলতানা তাম্মিকে এক নম্বর ও ক্রিকেটার নাসির হোসেনকে দুই নম্বর আসামি করা হয়েছে। দণ্ডবিধি ১৮৬০ এর ৪৯৪, ৪৯৭, ৪৯৮, ৫০০ এবং ৩৪ ধারায় এ মামলা করা হয়েছে।

মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, ২০১১ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি বাদীর সঙ্গে ১ নম্বর আসামি তামিমা সুলতানার ইসলামী শরীয়ত মোতাবেক ৩,০০,০০১ (তিন লক্ষ এক) টাকা দেনমোহর ধার্যে বিবাহ সম্পন্ন হয় এবং রেজিস্ট্রি হয়। বিয়ের পর থেকে বাদী ও ১ নম্বর আসামি স্বামী-স্ত্রী হিসেবে সংসার করতে থাকেন। দাম্পত্য জীবনে তাদের সংসারে বাদীর ঔরসে ১নং আসামির গর্ভে একজন কন্যা সন্তানের জন্ম হয়, যার নাম রাখা হয় তোবা হাসান, বয়স-৮ বছর। ১ নম্বর আসামি (তাম্মি) পেশায় একজন কেবিন ক্রু। তিনি সৌদি এয়ারলাইন্সে কর্মরত। চাকরির সুবাদে তিনি গত ১০ মার্চ সৌদিতে গিয়েছিলেন। করোনা মহামারির কারণে জরুরি অবস্থা সৃষ্টি হলে সেখানেই অবস্থান করতে থাকেন।
এ সময়টা ফোন এবং সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে বাদীর সঙ্গে তার যোগাযোগ হতো।গত ১৪ ফেব্রুয়ারি ১নং আসামির সঙ্গে ২নং আসামির কথিত বিবাহের ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে তা বাদীর নজরে আসে। বাদী এ ধরনের ছবি দেখে হতবাক হয়ে যান। পরবর্তীতে পত্র পত্রিকায় এ বিষয়ে সংবাদ দেখে তিনি ঘটনার বিষয় সম্পূর্ণ নিশ্চিত হোন। এছাড়াও ১নং ও ২নং আসামির কথিত ‘গায়ে হলুদ’ ও ‘বিবাহ পরবর্তী সংবর্ধনা’ এই ধরনের অনুষ্ঠান যথাক্রমে গত ১৭ ও ২০ ফেব্রুয়ারি সম্পন্ন  হয় যা ইতোমধ্যেই বিভিন্ন সংবাদে প্রকাশিত হয়েছে। ১নং আসামি বাদীর সঙ্গে বিবাহের সম্পর্ক চলমান থাকাবস্থায় ২নং আসামির সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন। ২নং আসামি বাদীকে ফোন করে জানিয়েছেন, সম্পূর্ণ বিষয়টি সম্পর্কে তিনি অবগত এবং তার কাছে ১নং আসামি রয়েছে বলেও তিনি বাদীকে অবগত করেছেন। ১নং আসামি বাদীর সঙ্গে বিয়ের সম্পর্ক থাকাবস্থায় ২নং আসামিকে বিয়ে করে যা ধর্মীয় এবং রাষ্ট্রীয় আইন অনুযায়ী সম্পূর্ণ অবৈধ। ২নং আসামি ১নং আসামিকে প্রলুব্ধ করে নিজের কাছে নিয়ে গেছেন এবং ১নং আসামির সঙ্গে অবৈধ বিয়ের সম্পর্ক দেখিয়ে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করেছেন যা নিকৃষ্ট ব্যভিচার।

আবেদনে আরও বলা হয়েছে, ১নং ও ২নং আসামির এরূপ অনৈতিক ও অবৈধ সম্পর্কের কারণে বাদী ও তার ৮ (আট) বছর বয়সী শিশু কন্যা মারাত্মকভাবে মানসিক বিপর্যস্ত হয়েছে। আসামিদের এমন কার্যকলাপে বাদীর চরমভাবে মানহানি হয়েছে যা বাদীর জন্য অপূরণীয় ক্ষতি। ন্যায় বিচারের স্বার্থে আসামিদের বিরুদ্ধে উল্লিখিত ধারায় শাস্তিযোগ্য অপরাধের অভিযোগ আমলে নিয়ে প্রয়োজনীয় আদেশের আর্জি জানানো হয়েছে মামলায়।

গত ১৪ ফেব্রুয়ারি তামিমা সুলতানা তাম্মিকে বিয়ে করেন নাসির হোসেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে সদ্য বিবাহিত স্ত্রীর সঙ্গে তিনটি ছবি আপলোড করেন বহুদিন জাতীয় দলের বাইরে থাকা এ ক্রিকেটার। এরপরই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে এ বিয়ের খবর।

তবে বিয়ের সপ্তাহ না পেরোতেই খবর আসে, অন্যের স্ত্রীকে বিয়ে করেছেন নাসির। এ জন্য থানায় একটি সাধারণ ডায়েরিও (জিডি) করেন নিজেকে তাম্মির প্রথম স্বামী হিসেবে দাবি করা রাকিব হাসান। এরই মাঝে ক্রিকেটার নাসির হোসেনের একটি ফোন রেকর্ড সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। যেখানে শোনা যায়, ফোন করে এক ব্যক্তিকে জিডি করার বিষয়টি ধামাচাপা দিতে বলেছেন নাসির।

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার