• শুক্রবার   ১০ জুলাই ২০২০ ||

  • আষাঢ় ২৬ ১৪২৭

  • || ১৯ জ্বিলকদ ১৪৪১

সর্বশেষ:
বর্ষায় আউশ ধান দেখাচ্ছে সোনালী স্বপ্ন সাহারা খাতুনের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক আ.লীগ নেতা ও সাবেক মন্ত্রী সাহারা খাতুন আর নেই
৪৯

নাম সংকটে টুইটার

সিলেট সমাচার

প্রকাশিত: ২৯ নভেম্বর ২০১৯  

টুইটারে অ্যাকাউন্ট খুলতে গেলে অনেকেই এখন পছন্দসই নাম পান না। কেউ না কেউ পছন্দের নামে অ্যাকাউন্ট খুলে রেখেছেন। তাই টুইটার কর্তৃপক্ষ চাইছিল নিষ্ক্রিয় অ্যাকাউন্ট বাতিল করে কিছু নাম উন্মুক্ত করে দিতে। তবে আপাতত তাদের সে পরিকল্পনা স্থগিত করা হয়েছে।

সম্প্রতি টুইটার কর্তৃপক্ষ জানায়, এ প্ল্যাটফর্মে ছয় মাসের বেশি নিষ্ক্রিয় থাকলে সে অ্যাকাউন্টটি মুছে ফেলা হবে। ১১ ডিসেম্বরের মধ্যে যদি নিষ্ক্রিয় অ্যাকাউন্টগুলোতে অন্তত একবার ঢোকা না হয়, তবে সে অ্যাকাউন্ট পুরোপুরি নিষ্ক্রিয় করে দেওয়া হবে।

টুইটার কর্তৃপক্ষের এ সিদ্ধান্ত ব্যবহারকারীরা ভালোভাবে নেয়নি। অনেকেই প্রতিবাদ করে বলেন, যাঁরা মারা গেছেন, তাঁদের অ্যাকাউন্টগুলোর ক্ষেত্রে এ ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া উচিত হবে না। গত বুধবার টুইটার কর্তৃপক্ষ তাদের পরিকল্পনা বাতিল করে জানায়, মৃতদের অ্যাকাউন্টগুলোকে স্মরণীয় করে রাখার ভালো কোনো উপায় বের না করা পর্যন্ত কোনো অ্যাকাউন্ট মোছা হবে না।

সামাজিক যোগাযোগের জনপ্রিয় ওয়েবসাইট ফেসবুক অবশ্য ২০০৯ সাল থেকেই ফেসবুকের বন্ধু কিংবা পরিবারের সদস্যদের স্মৃতি সংরক্ষণের একটি উপায় দিয়ে রেখেছে ব্যবহারকারীদের। কোনো ব্যবহারকারী মারা গেলে ফেসবুক কর্তৃপক্ষের কাছে ডেথ সার্টিফিকেট কিংবা মারা যাওয়ার প্রমাণ দেখালে সে অ্যাকাউন্টটি স্মৃতি হিসেবে রাখা হয়। স্মৃতি সংরক্ষণ নামের একটি বার্তাও থাকে উক্ত অ্যাকাউন্টে।

বুধবার এক টুইটে টুইটার কর্তৃপক্ষ বলেছে, ‘অ্যাকাউন্ট বন্ধ করার প্রভাব সম্পর্কে আপনাদের কথা শুনেছি। আমাদের দিক থেকে বিষয়টি ভুল হয়েছিল। স্মৃতি সংরক্ষণের উপায় বের না করা পর্যন্ত কোনো অ্যাকাউন্ট সরানো হবে না।’

টাইম ডটকমের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, টুইটারে ইউজার নেম উন্মুক্ত করার পরিকল্পনা থেকে নিষ্ক্রিয় অ্যাকাউন্ট সরিয়ে ফেলার পরিকল্পনা করা হয়। অনেক ক্ষেত্রে আকর্ষণীয় ইউজার নেম এমন সব অ্যাকাউন্ট দখল করে রেখেছে, যা দীর্ঘদিন ধরে নিষ্ক্রিয় পড়ে রয়েছে। এতে অনেক ব্র্যান্ড ও টুইটার ব্যবহারকারী বিরক্ত হচ্ছেন। জুতসই নাম না পেয়ে অনেকেই নতুন অ্যাকাউন্ট খুলছেন না।

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর