রোববার   ২৯ মার্চ ২০২০   চৈত্র ১৫ ১৪২৬   ০৪ শা'বান ১৪৪১

সর্বশেষ:
সিলেটবাসীর সুরক্ষায় মাঠে সেনাবাহিনী; সাধুবাদ দিচ্ছেন নাগরিকরা! বিশ্বনাথে সেনাবাহিনীর তত্বাবধায়নে চাল-ডাল বিতরণ বানিয়াচংয়ে ত্রাণ বিতরণ করলেন সাংসদ মজিদ খান করোনার প্রভাবে সুনামগঞ্জে কমেছে সবজির দাম সোমবার ওসমানীতে আসছে করোনা পরীক্ষার মেশিন সুনামগঞ্জে মানুষকে সচেতন করতে সেনাবাহিনীর নানা উদ্যোগ কোয়ারেন্টিন থেকে সিলেটজুড়ে মুক্তি পেয়েছেন ১২৪৭ জন
১৮

দিল্লিতে ঘর পুড়েছে বিএসএফ জওয়ানেরও

সিলেট সমাচার

প্রকাশিত: ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

ভারতের রাজধানী অঞ্চল উত্তর-পূর্ব দিল্লির খেজুরি খাস গত ২৫ ফেব্রুয়ারি রণক্ষেত্রের রুপ ধারণ করে। চারিদিকে আগুন দেখে প্রাণে বাঁচতে পালাচ্ছিলেন সাধারণ মানুষ। সেদিন উগ্র ধর্মান্ধ একদল হিন্দু মুসলিম প্রধান ওই এলাকায় থাকা বিএসএফ জওয়ান মোহাম্মদ আনিসের বাড়িতে আগুন জ্বালিয়ে দেয়। তাতে পুড়ে ছারখার হয় বাড়িটি।

খেজুরি খাস গলিতে আনিস নামের ওই বিএিএফ জওয়ানের বাড়ির সামনে ভিড় করে প্রথমে পাথর ছুঁড়তে শুরু করে উগ্রপন্থীরা। একসময় পাকিস্তান সীমান্তে নিয়োজিত ওই জওয়ান আচমকা জনতার হামলায় হতভম্ব হয়ে পড়েন। বাড়ির ভেতরে থাকা বাবা, বোন ও চাচাকে রক্ষা করবেন, সেটা তিনি হয়ত বুঝতে পারছিলেন না৷

হামলাকারীরা প্রথমে বাড়ির সামনে দাঁড়িয়ে থাকা একটি গাড়িতে আগুন লাগিয়ে দেয়। কয়েক মিনিট বাড়িটি লক্ষ্য করে ইট-পাটকেল ছোড়ে। এরপর বাইরে থেকে হামলাকারীরা চিৎকার করে বলতে থাকে, ‘ইধার আ পাকিস্তানি, তুঝে নাগরিকতা দেতে হ্যায়৷। মানে ‘এদিকে আয় ওই পাকিস্তানি, তোকে নাগরিকত্ব দিচ্ছি।’

তারপর দুষ্কৃতিকারীরা সেখানে থাকা কয়েকট গ্যাস সিলিন্ডারে আগুন লাগিয়ে তা মোহাম্মদ আনিস নামের ওই বিএসএফ জওয়ানের বাড়ির ভেতর ছুড়ে মারে। গ্যাস সিলিন্ডার হওয়ায় মুহূর্তেই পুরো বাড়িতে আগুন লেগে যায়। তারপর কিছুক্ষণ সেখানে দাঁড়িয়ে পাশবিক উচ্ছাস শেষে তারা অন্যত্র চলে যায়।

আনিস তিন বছর কাশ্মীরের পাকস্তান-ভারত সীমান্তে নিয়োজিত ছিলেন। তার বাড়িতে রয়েছেন বাবা মোহাম্মদ ইউনিস, চাচা মোহাম্মদ আহমেদ ও ১৮ বছরের বোন নেহা পরভিন। কিছুদিন পর বোনের বিয়ে। সেদিন রাতে সবাইকে বাড়ি থেকে পালাতে হয়েছিল। আগুনে পুড়ে গেছে গয়না আর নগদ তিন লাখ টাকা।

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার
এই বিভাগের আরো খবর