রোববার   ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ৩০ ১৪২৬   ১৭ রবিউস সানি ১৪৪১

সর্বশেষ:
বুদ্ধিজীবি দিবসে মৌলভীবাজারে আলোচনা সভা সুনামগঞ্জে বুদ্ধিজীবী দিবস পালন সুনামগঞ্জে মহিলা পরিষদের গণসমাবেশ অনুষ্ঠিত গোয়াইনঘাটে যথাযোগ্য মর্যাদায় শহীদ বুদ্ধিজীবি দিবস পালিত সিলেটে বই মেলায় কাপড়ের দোকান ! প্রাথমিকে নেয়া হবে ১৮ হাজার শিক্ষক, ২৬ ডিসেম্বরের মধ্যে ফল ‘মোশতাক, জিয়ার মতো মীরজাফররা আর যেন ক্ষমতায় না আসে’
১৬

দালের মেহেন্দি পরিবেশনায় শেষ হলো ফোক ফেস্টের প্রথম দিন

বিনোদন ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৫ নভেম্বর ২০১৯  

হেমন্তের শেষ বিকেলে বাংলাদেশ আর্মি স্টেডিয়ামের ঘাস ভিজেছে লোকসংগীতের সুর-সুধার শিশিরে। বৃহস্পতিবার পঞ্চমবারের মতো এশিয়ার সবচেয়ে বড় লোকসংগীতের অনুষ্ঠান ‘ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ফোক ফেস্ট ২০১৯’ এর পর্দা উঠেছে। বাংলার লোকগানকে বিশ্ব-দরবারে তুলে ধরতে সান ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ও সানকমিউনিকেশনস লিমিটেডের আয়োজনে বসেছে লোকসংগীতের এই মহা উৎসব। 

সন্ধ্যায় সর্বপ্রথম মঞ্চে ওঠে প্রেমা ও ভাবনা নৃত্য দল, তাদের লোক নৃত্য পরিবেশনা নিয়ে। সুবীর নন্দী, বারী সিদ্দিকী, শাহনাজ রহমতউল্লাহ, আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল, ফকির আব্দুর রব শাহ এবং আইয়ুব বাচ্চু। বাংলা গানের এই ছয় মহারথীর উপর নির্মিত একটি ভিডিওচিত্র দেখানো হয় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে। বাংলা গানের এই কিংবদন্তিদের উৎসর্গ করেই শুরু হয় ‘ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ফোক ফেস্ট ২০১৯’।

স্বাগত বক্তব্যে সান ফাউন্ডেশন ও সান কমিউনিকেশনস লিমিটেডের চেয়ারম্যান অঞ্জন চৌধুরী, ঢাকা ব্যাংক লিমিটেডের ফাউন্ডার চেয়ারম্যান জনাব আব্দুল হাই সরকার, পররাষ্ট্র ড. এ কে আবুল কালাম আব্দুল মোমেন, তথ্য মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। এ সময় তথ্যমন্ত্রী ‘ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ফোক ফেস্ট ২০১৯’র শুভ উদ্বোধন করেন।

অনুষ্ঠানে গান পরিবেশন করেন সুদূর জর্জিয়া থেকে আগত জনপ্রিয় ফোক ব্যান্ড শেভেনেবুরেবি। বাংলাদেশের খ্যাতিম্যান লোকশিল্পী শাহ্ আলম সরকার পরিবেশন করেন বাংলাদেশের জনপ্রিয় লোকসংগীত। শুরুতেই গেয়ে ওঠেন ‘কী দরকার হিন্দু-মুসলমান’; এরপর গাইলেন ‘বিয়ে করা মানে জ্যান্ত প্রাণে মরা’, ‘এত যে নিঠুর বন্ধু জানা ছিল না’, ‘পিরিত রতন পিরিত যতন’, ‘আমি তো মরে যাব, চলে যাব, রেখে যাব সবই’।

একের পর এক গান গেয়ে দর্শকদের হৃদয়ে ঝড় তোলেন শাহ্ আলম সরকার। ‘আমি তো মরে যাব, চলে যাব রেখে যাব সবই’- এ গানটির মধ্য দিয়ে নিজের পরিবেশনা শেষ করেন তিনি।

সর্বশেষ ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ফোক ফেস্টে’র মঞ্চে ওঠে দ্য কিং অব ভাংড়া খ্যাত ভারতের দালের মেহেন্দি। মঞ্চে এসে বললেন কেমন আছো বাংলাদেশ। এরপর গান ধরলেন। শুরুতেই ‘বাহুবলী দ্য বিগিনিং’ চলচ্চিত্রের টাইটেল গান ‘বাহুবলী’গেয়ে শোনান।

এরপর তিনি গেয়ে শোনান ‘বলো তানা রারা’, ‘হ্যায়ো রাব্বা হ্যায়ো রাব্বা’, ‘ম্যায় রাব রাব কারদি’, ‘সারি দিল দে দি কুড়িয়া’, ‘ও গোরি নাচেগি’, ‘গোরি নাল ইশক মিঠা’, ‘হোগায়ে তো বাল্লে বাল্লে’সহ তার জনপ্রিয় সব গান। বাংলাদেশের গায়িকা রুনা লায়লার প্রশংসা করে এ শিল্পী গেয়ে শোনান ‘দমাদম মাস্ত কালান্দার’ গানটি। 

ফোক ফেস্টের পঞ্চম আসরে বাংলাদেশসহ বিশ্বের ছয়টি দেশের ২০০ জনেরও বেশি লোকশিল্পী ও কলাকুশলী জড়ো হয়েছেন একই মঞ্চে। সরাসরি অনুষ্ঠানটির টিভি সম্প্রচারের দায়িত্বে রয়েছে মাছরাঙা টেলিভিশন। এছাড়াও অনুষ্ঠানটি লাইভ শোনা যাবে রেডিও দিনরাত-এ। 

উৎসবের দ্বিতীয় দিনে (শুক্রবার) গাইবেন বাংলাদেশের মালেক কাওয়াল, ফকির শাহাবুদ্দিন, ‘ম্যাজিক বাউলিয়ানা’র কামরুজ্জামান রাব্বি ও শফিকুল ইসলাম, পাকিস্তানের হিনা নাসরুল্লাহ এবং মালির হাবিব কইটে অ্যান্ড বামাদা। শেষ দিনে (শনিবার) গাইবেন বাংলাদেশের কাজল দেওয়ান, চন্দনা মজুমদার, পাকিস্তানের জুনুন এবং রাশিয়ার সাত্তুমা।

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার
এই বিভাগের আরো খবর