• শুক্রবার   ০৪ ডিসেম্বর ২০২০ ||

  • অগ্রাহায়ণ ২০ ১৪২৭

  • || ১৯ রবিউস সানি ১৪৪২

সর্বশেষ:
অ্যান্টিজেন টেস্ট, প্রস্তুত সিলেট শামসুদ্দিন হাসপাতাল করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে করণীয় নির্ধারণে সিলেট আসছেন পাটসচিব বিপুল উৎসাহে সিলেটে হাফ ম্যারাথন সম্পন্ন করোনায় আরও ২৪ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২২৫২ করোনায় আক্রান্ত সাবেক শিক্ষামন্ত্রী নাহিদ  বসল পদ্মা সেতুর ৪০তম স্প্যান, দৃশ্যমান ছয় কিলোমিটার 

তৈমুর বড় হয়ে অভিনেতাই হবে: সাইফ আলি খান

সিলেট সমাচার

প্রকাশিত: ২১ নভেম্বর ২০২০  

সাইফ আলি খান এবং কারিনা কাপুর খানের ছেলে তৈমুরের বয়স তিন। এরই মধ্যে সে একটি সেনসেশনে পরিণত হয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। সে যেখানেই যায় তাকে ঘিরে থাকে ক্যামেরাগুলো। পেজ থ্রিতে তাকে নিয়ে লেখা হচ্ছে রোজ। সেও ক্যামেরা দেখলে বেশ আয়েশ করে পোজ দেয়। শোবিজটাকে সে এখনই চিনে ফেলেছে।

বড় হয়ে পুত্র তৈমুর অভিনেতাই হবেন বলে মনে করছেন সাইফ আলি খান। সম্প্রতি ‘তানহাজি’খ্যাত এ অভিনেতা হাজির হয়েছিলেন জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজ এবং আমন্ডা কার্নির উপস্থাপনার একটি পডকাস্ট শো-তে। সেখানে তিনি এই কথা বলেন।

সাইফ জানান কীভাবে বংশ পরম্পরায় তার পরিবার অভিনয়ের সঙ্গে জড়িয়ে আছে এবং ভবিষ্যতেও থাকবে। তিনি পডকাস্টে বলেন যে, তার মা শর্মিলা ঠাকুর রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের বংশধর। যে রক্তে মিশে আছে শিল্পচর্চা। বিশেষ করে ছবি আঁকা, গান-কবিতা ও অভিনয়ে। তার মা ছিলেন উপমহাদেশের বিখ্যাত পরিচালক সত্যজিৎ রায়ের বিশেষ প্রিয় একজন অভিনেত্রী।

সাইফের ভাষায়, ‘আমার মা ১৬ বছর বয়স থেকেই চলচ্চিত্রের সঙ্গে সম্পৃক্ত। তিনি সত্যজিৎ রায়ের সঙ্গে প্রচুর কাজ করেছেন। প্রায় চার-পাঁচটি সিনেমা হবে। সত্যজিতের কাছে আমার মা ছিলেন শিল্পের জাদুঘরের মতো। তিনি ভাবতেন আমার মা তার শিল্পের চূড়ান্ত উপস্থাপনা করতে পারবেন একজন নারী শিল্পী হিসেবে।’

দুই পুত্র ইব্রাহিম ও তৈমুর সম্পর্কে সাইফ আলি খান আরও বলেন, ‘আমার বোন সিনেমা করেছে, আমার বর্তমান ও প্রাক্তন স্ত্রী তারাও অভিনয়ের মানুষ। আমার মেয়ে সারা সিনেমা করছে। বড় ছেলে ইব্রাহিমও অভিনেতা হতে চায়। আমি মনে করি তৈমুর অবশ্যই অভিনেতা হবে। কারণ ইতিমধ্যে সে আমাদের বিনোদন দিতে শুরু করেছে।’

সাইফ আলি খান বর্তমানে তার আসন্ন হরর ছবি ‘ভূত পুলিশ’র শুটিং করছেন ধর্মশালায়। এখানে তার সঙ্গে অর্জুন কাপুর, ইয়ামি গৌতম এবং জ্যাকলিন ফার্নান্দেজ মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করবেন।

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার