সোমবার   ১৮ নভেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ৩ ১৪২৬   ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

সর্বশেষ:
স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি নির্মল সম্পাদক বাবু অপরাধ নির্মুলে সাংবাদিকদের সহযোগিতা প্রয়োজন: ওসি রঞ্জন  পেঁয়াজের ঝাঁজে নিম্নবিত্তের কান্না পেঁয়াজ বিমানে উঠে গেছে কাল-পরশু এলেই দাম কমবে তরুণরাই এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে দেশ: এমপি জাহির
১১

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত সেজুল সুনামগঞ্জে সংবর্ধিত

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ৯ নভেম্বর ২০১৯  

 


শ্রেষ্ঠ গীতিকার হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে ভূষিত সেজুল হোসেনকে সংবর্ধনা দিয়েছে সুনামগঞ্জ প্রেসক্লাব। শুক্রবার সন্ধ্যায় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে এ সংবর্ধনার আয়োজন করা হয়।

এ সময় প্রেসক্লাবের নেতৃবৃন্দ ও সদস্যরা সেজুল হোসেনকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান।

সুনামগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি অ্যাডভোকেট শামসুন্নাহার বেগম শাহানা রব্বানীর সভাপতিত্বে ও কার্যকরী কমিটির সদস্য মাসুম হেলালের সঞ্চালনায় এ সময় বক্তব্য রাখেন প্রেসক্লাবের সিনিয়ন সহ-সভাপতি বিজন সেন রায়, সহ-সভাপতি রওনক আহমদ, সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ শেরগুল আহমেদ, কোষাধ্যক্ষ সেলিম আহমেদ তালুকদার, কার্যনির্বাহী সদস্য হিমাদ্রী শেখর ভদ্র, সদস্য কেজি মানব তালুকদার।

এ সময় বক্তারা বলেন, হাওর-ভাটির জেলা সুনামগঞ্জ আবহামান কাল ধরে মরমী সাধকদের পূণ্যভূমি হিসেবে পরিচিতি। এখানকার লোকগান দেশের গণ্ডি ছাড়িয়ে বিশ্বদরবারে স্থান করে নিয়েছে। সেজুল হোসেন সেই ঐতিহ্যের ধারক হিসেবে সুনামগঞ্জের জন্য এই অনন্য সম্মান এনে দিয়েছে।

তার প্রতিভা বাংলা সংগীতকে আরো সম্মৃদ্ধশালী করবেন বলে প্রত্যয় ব্যক্ত করেন বক্তারা।

সংবর্ধনার জবাবে প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বক্তব্য রাখেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে ভূষিত গীতিকার সেজুল হোসেন।

তিনি বলেন, সুনামগঞ্জ আমার প্রেরণার উৎস। প্রেসক্লাব আমার শক্তি-সাহসের জায়গা। চলচ্চিত্র পুরস্কারে মনোনীত হওয়ার পর আনুষ্ঠানিকভাবে সুনামগঞ্জ প্রেসক্লাবের পক্ষ থেকে আমাকে সম্মানিত করা হয়েছে, এই আনন্দ আমি ভাষায় প্রকাশ করতে পারছি না। এই আয়োজন দেখে আমি বুঝতে পেরেছি আমি কিছু একটা অর্জন করেছি।

আগামীতে সংগীতাঙ্গনে আরো কাজ করতে সকলের সহযোগিতা প্রত্যাশা করেন তিনি।

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার