বৃহস্পতিবার   ১২ ডিসেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ২৭ ১৪২৬   ১৪ রবিউস সানি ১৪৪১

সর্বশেষ:
বঙ্গবন্ধু বিপিএলের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী গোয়াইনঘাট-জৈন্তাপুরে ফসলের লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে গেছে দলে এখনো ‘মোশতাকদের’ পদচারণ রয়েছে: এম এ মান্নান সিলেটে বাল্যবিবাহ শূন্যের কোটায় নামাতে কাজ করছেন জেলা প্রশাসক সুনামগঞ্জে কোটি কোটি টাকার কাজে অনিয়ম পথচারীকে বাঁচাতে গিয়ে গুরুতর আহত পুলিশ সদস্য  ওলি-গলিতে গড়ে উঠেছে ভাঙ্গারী ব্যবসা, বাড়ছে চুরি সাতছড়ি উদ্যানে ফটোগ্রাফিক সোসাইটির বৃক্ষরোপন অভিযান
২০

জকিগঞ্জে সেই ‘ভয়ঙ্কর’ সালাম মেম্বারসহ ৪ জন জেলহাজতে

সিলেট প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ২৩ নভেম্বর ২০১৯  

 


জকিগঞ্জের আলোচিত যুবক নির্যাতনে ঘটনার দায়ে ৪ আসামীকে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। শুক্রবার জকিগঞ্জ আদালতে তাদেরকে হাজির করা হলে বিচারক জেলহাজতের প্রেরণের নির্দেশ প্রদান করেন। তারা হল আটগ্রামের সালাম মেম্বার, এবাদ মেম্বার, আনোয়ার, ও শাহজাহান। 

ভারতে পালানোর পথে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার দিকে সালাম মেম্বারকে কানাইঘাটের কাড়াবাল্লা এলাকা থেকে গ্রেফতার করে জকিগঞ্জ থানা পুলিশ। এর আগে সালামের অপর ৩ সহযোগী এবাদ মেম্বার, আনোয়ার, ও শাহজাহান ধরা পড়ে পুলিশের হাতে। আজ শুক্রবার তাদেরকে জকিগঞ্জ আদালতে হাজির করা হলে আদালত জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন বলে জানিয়েছেন জকিগঞ্জ থানার ওসি মীর আব্দুন নাসের। তিনি জানিয়েছেন, পুলিশ তাদেরকে রিমান্ড আবেদন করবে। তদন্তের স্বার্থে এখন বেশি কিছু বলতে তিনি অপারগতা প্রকাশ করেন।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি উপজেলার ৩নং কাজলশার ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য আব্দুস সালাম ওরফে ফকির মাস্তান একই ইউনিয়নের বড়বন্দ গ্রামের মৃত সফর আলীর ছেলে গিয়াস উদ্দিন (৩৫)কে বাঁশের সঙ্গে ঝুলিয়ে হাত-পা বেঁধে নির্মমভাবে পায়ের নিচে বেধড়ক মারপিট করে নির্যাতন করেন। নির্যাতনের শিকার যুবকের চিৎকার, চেচামেচি ও বাঁচার আকুতি করলেও সালামের মন গলেনি। তিনি বেধড়ক পিঠাতে থাকেন গিয়াসকে।

বুধবার রাতে নির্যাতনের এই ভিডিও ভাইরাল হলে তোলপাড় সৃষ্টি হয়। বৃহস্পতিবার সিলেটের পুলিশ সুপার ফরিদ উদ্দিনের নির্দেশক্রমে জকিগঞ্জ থানার ওসি মীর আব্দুন নাসের ঘটনার সাথে জড়িত ৪ ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেন। 

সিলেট সমাচার
সিলেট সমাচার